১৯ মে, ২০২২ | ৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ | ১৭ শাওয়াল, ১৪৪৩


শিরোনাম
  ●  সম্প্রীতি রক্ষায় সকলকে সকল ধর্মের প্রতি সকলকে শ্রদ্ধাশীল হতে হবে- এমপি কমল   ●  আ’লীগে ঘাপটি মেরে থাকা খন্দকার মোস্তাকের বংশধরদের বিতাড়িত করার আহবান : মেয়র মুজিব   ●  নিজ গুলিতে প্রাণ গেলো বনকর্মীর   ●  কক্সবাজারে অবৈধ যানবাহনের বিরুদ্ধে অভিযান, জরিমানা আদায়   ●  রামুতে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ টুর্ণামেন্ট উপজেলা চ্যাম্পিয়ন ফতেখাঁরকুল   ●  গরীবের বন্ধু মনুর বিরুদ্ধে অপপ্রচারের তীব্র প্রতিবাদ অটো রিক্সা শ্রমিকদের   ●  রামু প্রেস ক্লাবের কমিটি গঠিত; নীতিশ বড়ুয়া সভাপতি, সোয়েব সাঈদ সাধারণ সম্পাদক   ●  রামুতে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধনী দিনে খুনিয়াপালং, দক্ষিণ মিঠাছড়ি, রাজারকুল জয়ী   ●  হলদিয়াপালংয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন কাউন্সিল সম্পন্ন   ●  উখিয়ার লোকালয়ে একজোড়া বন্যহাতি; কয়েক ঘন্টার প্রচেষ্টায় ফিরলো বনে

জালালাবাদের চেয়ারম্যান রাশেদের নেতৃত্বে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতার উপর হামলা,থানায় অভিযোগ

বিশেষ প্রতিবেদক:
কক্সবাজারের ঈদগাঁওয়ের জালালাবাদের চেয়ারম্যান ইমরুল হাসান রাশেদের নেত্বত্বে সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক নুরুল আলমের উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। এব্যাপারে সোমবার বিকেলে ঈদগাও থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন আহত নুরুল আলম।
রোববার রাতে রাত্রিকালীন মিনি ফুটবল টুর্নামেন্টের অতিথি হওযায় নুরুল আলমের উপর চেয়ারম্যান রাশেদ ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগে সূত্রে জানা গেছে।
এ বিষয়ে নিজেকে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশি দাবী করে নুরুল আলম বলেন, আমি গেল কয়েক বছর ধরে  জালালাবাদ ইউনিয়নে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছি।  আমার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে মনোনয়ন হারানোর ভয়ে উন্মাদ আচরন করছেন ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ইমরুল হাসান রাশেদ। তার নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী গেল ১৬ জানুয়ারি রাতে সশস্ত্র হামলা চালিয়েছে।
এদিকে চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে সন্ত্রাসী হামলার বিচারের দাবীতে সোমবার সন্ধ্যায় কক্সবাজার শহরের এক সংবাদ সম্মেলন করা হয় কক্সবাজার রিপোর্টার্স ইউনিটি হলরুমে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে নুরুল আলম দাবি করেন, চেয়ারম্যান রাশেদের বিভিন্ন অত্যচারে অতিষ্ট জনগণ নতুন নেতৃত্ব চাই। আমি জনগণের সে প্রত্যাশা পুরণ করে এগিয়ে যাচ্ছি। ফলে দিনদিন আমার জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পাচ্ছে। এভাবে চলতে থাকলে আমার মনোনয়ন কেউ ঠেকাতে পারবে না। এটি বুঝতে পেরে রাশেদ বিভিন্ন সময় আমাকে হত্যার হুমকি দিয়ে আসছে।
এরই অংশ হিসেবে ১৬ জানুয়ারি রাত সাড়ে নয়টার দিকে ঈদগাঁও উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়নের ফরাজি পাড়া এলাকায় সন্ত্রাসীদের নিয়ে আমার উপর সশস্ত্র হামলা চালাই।
হামলার শিকার নুরুল আলম বলেন, চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর ইমরুল হাসান রাশেদ ধারাকে সারা জ্ঞান করে এলাকায় রামরাজত্ব কায়েম করেছে। তার ভাই, আত্মীয় স্বজন এবং এলাকার চিহ্নিত অপরাধীদের নিয়ে গড়ে তোলেছেন অপরাধ চক্র। ফসলি জমির মাটি বিক্রি, পাহাড় কেটে মাটি বিক্রি, খাল থেকে অবৈধ বালি উত্তোলন, সরকারি বনজ সম্পদ ধ্বংস করে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত। একই সাথে সরকারি বরাদ্দ আত্মসাতের মতো গুরুতর অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো দাবি করেছেন, সরকারি দলের নাম ভাঙ্গীয়ে বিভিন্ন অপকর্ম চালিয়ে গেলেও ভয়ে কেউ মুখ খুলতে সাহস পায়না। এতে সরকারের ভাবমূর্তি যেমন ক্ষুন্ন হচ্ছে তেমনি দিন দিন জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ছে আওয়ামী লীগ। আমি একজন মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়ে এলাকায় বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে সম্পৃক্ত কাজ করে যাচ্ছি। সেটিই সহ্য করতে পারছে না রাশেদ। তাই আমাকে নৌকার মনোনয়ন চাওয়া থেকে বঞ্চিত রাখতে বিভিন্ন সময় হুমকি-ধামকি দিয়ে আসছে।
নুরুল আলম  বলেন, ফরাজি পাড়ায় ক্রীড়া প্রেমিক যুবকদের আয়োজনে রাত্রিকালীন মিনি ফুটবল টুর্নামেন্ট ফাইনাল খেলায় আমি আমন্ত্রীত বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলাম। খেলা শুরুর পূর্বেই সশস্ত্র সন্ত্রাসী নিয়ে আমার উপর হামলা চালাই রাশেদ। বর্তমানে চেয়ারম্যান ও তার লোকজনের হুমকিতে আমি পরিবার পরিজন নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছি।
তবে অভিযুক্ত চেয়ারম্যান ইমরুল হাসান রাশেদ মুঠোফোন রিসিভ না করায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।
ঈদগাঁও থানার ওসি মো. আবদুল হালিম বলেন, চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।