১৮ মে, ২০২৪ | ৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ | ৯ জিলকদ, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  ক্যাম্পের বাইরে সেমিনারে অংশ নিয়ে আটক ৩২ রোহিঙ্গা   ●  চেয়ারম্যান প্রার্থী সামসুল আলমের অভিযোগ;  ‘আমার কর্মীদের হুমকি-ধমকি দেয়া হচ্ছে’   ●  নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সবকিছু কঠোর থাকবে, অনিয়ম হলেই ৯৯৯ অভিযোগ করা যাবে   ●  উখিয়া -টেকনাফে শাসরুদ্ধকর অভিযানঃ  জি থ্রি রাইফেল, শুটারগান ও গুলিসহ গ্রেপ্তার ৫   ●  রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হেড মাঝিকে  তুলে নিয়ে   গুলি করে হত্যা   ●  যুগান্তর কক্সবাজার প্রতিনিধি জসিমের পিতৃবিয়োগ   ●  জোয়ারিয়ানালায় কিশোর গ্যাংয়ের হামলায় আহত রামু কলেজের অফিস সহায়ক   ●  রামুর বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে পুলিশের সহযোগিতায়  আসছে চোরাই গরু   ●  রামুতে ওসির আশকারায় এসআই আল আমিনের নেতৃত্বে ‘সিভিল টিম’   ●  ড. সজীবের সমর্থনে বারবাকিয়ায় পথসভা

চকরিয়ায় কলেজ ছাত্রী অপহরণ চেষ্ঠার ঘটনায় গ্রেপ্তার-৩, থানায় মামলা

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়াঃ কক্সবাজারের চকরিয়ায় মঙ্গলবার বিকালে ছুটি শেষে বাড়ি ফেরার পথে কলেজ ছাত্রীকে অপহরণ চেষ্ঠার ঘটনায় পুলিশ জড়িদের মধ্যে তিনজনকে গ্রেফতার করেছে। গতকাল বুধবার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে থানা পুলিশের একটিদল তাদেরকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হন।
গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন-সিএনজি চালক উপজেলার কাকারা ইউনিয়নের বটতলী গ্রামের মৃত মোহাম্মদ হোসেনের ছেলে কবির হোসেন (৩৫), মাঝেরফাঁড়ি স্টেশন এলাকার বশির আহমদের ছেলে রাজমেস্ত্রী মিনার উদ্দিন জিকু (২৮) ও সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পাড়ার মৃত সিরাজুল ইসলামের ছেলে মিনারুল ইসলাম মিনার (২৩)।
এদিকে অপহরণ চেষ্ঠার ঘটনায় আক্রান্ত ছাত্রীর বাবা মোজাম্মেল হক বাদী হয়ে বুধবার বিকেলে চকরিয়া থানায় চারজনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা রুজু করেছেন। এজাহারনামীয় অপর আসামী আলী হোসেনকে গ্রেপ্তারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে বলে নিশ্চিত করেছেন থানার ওসি তদন্ত শফিকুল আলম চৌধুরী।
চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি (তদন্ত) এ কে এম শফিকুল আলম চৌধুরী বলেন, অপহরণ চেষ্ঠার অটোরিক্সা থেকে কলেজছাত্রী শামশুন্নাহার মুন্নির লাফ দেওয়ার ঘটনায় জড়িত চারজনের নাম উল্লেখ করে থানায় লিখিত এজাহার দেয় বাবা মোজাম্মেল হক। তন্মধ্যে প্রধান আসামীসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্য আসামীকেও গ্রেপ্তার করা হবে সহসা।
প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার চকরিয়া সরকারি কলেজে ছুটি শেষে চকরিয়া পৌরশহরের চিরিঙ্গা থেকে অটোরিক্সায় করে বাড়ি ফিরছিল পূর্ব কাকারা পাহাড়তলী গ্রামের মোজাম্মেল হকের কন্যা ও একাদশ প্রথমবর্ষের শিক্ষার্থী শামশুন্নাহার মুন্নি। কিন্তু পথিমধ্যে অটোর ভেতর থাকা বখাটেরা চালকের সহায়তায় ওই ছাত্রীকে প্রথমে উত্ত্যক্ত ও পরে অপহরণের চেষ্ঠা করলে অবস্থা বেগতিক দেখে ওই ছাত্রী চলন্ত অবস্থায় অটো থেকে লাফ দেয়। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। ঘটনার পর অটো ফেলে চালক ও যাত্রীবেশের বখাটেরা পালিয়ে যায়।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।