১৮ মে, ২০২৪ | ৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ | ৯ জিলকদ, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  ক্যাম্পের বাইরে সেমিনারে অংশ নিয়ে আটক ৩২ রোহিঙ্গা   ●  চেয়ারম্যান প্রার্থী সামসুল আলমের অভিযোগ;  ‘আমার কর্মীদের হুমকি-ধমকি দেয়া হচ্ছে’   ●  নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সবকিছু কঠোর থাকবে, অনিয়ম হলেই ৯৯৯ অভিযোগ করা যাবে   ●  উখিয়া -টেকনাফে শাসরুদ্ধকর অভিযানঃ  জি থ্রি রাইফেল, শুটারগান ও গুলিসহ গ্রেপ্তার ৫   ●  রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হেড মাঝিকে  তুলে নিয়ে   গুলি করে হত্যা   ●  যুগান্তর কক্সবাজার প্রতিনিধি জসিমের পিতৃবিয়োগ   ●  জোয়ারিয়ানালায় কিশোর গ্যাংয়ের হামলায় আহত রামু কলেজের অফিস সহায়ক   ●  রামুর বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে পুলিশের সহযোগিতায়  আসছে চোরাই গরু   ●  রামুতে ওসির আশকারায় এসআই আল আমিনের নেতৃত্বে ‘সিভিল টিম’   ●  ড. সজীবের সমর্থনে বারবাকিয়ায় পথসভা

হাতের কব্জির রগ কেটে মোবাইল-ল্যাপটপ ছিনতাই


নিজস্ব প্রতিনিধি:
কক্সবাজার শহরে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থার (এনজিও) দুই কর্মি ছিনতাইয়ের শিকার হয়েছেন। এসময় বাধা দিতে গিয়ে দুষ্কৃতিকারিদের ছুরিকাঘাতে একজনের হাতের কব্জির রগ কেটে গেছে।

কক্সবাজার সদর থানার ওসি মো. রফিকুল ইসলাম জানান, সোমবার সকালে কক্সবাজার শহরের বাইপাস সড়কের কলাতলী এলাকার বিকাশ ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটেছে।

আহত জামাল আফরান (৩৮) টেকনাফ সদর ইউনিয়নের উত্তর লম্বরী পাড়ার মৃত ওবাইদুর রহমানের ছেলে। এসময় ছিনতাইয়ের শিকার হয়েছেন আহতের সহকর্মি মিথিলা হক। ভূক্তভোগীদের বরাতে রফিকুল বলেন, সকাল সাড়ে ৬ টায় চট্টগ্রামের উদ্দ্যেশে বাসে উঠতে রিকশা যোগে কক্সবাজার কেন্দ্রিয় বাস টার্মিনাল যাচ্ছিল জামাল আফরান ও তার সহকর্মি মিথিলা হক নামের এক তরুণী। পথিমধ্যে কক্সবাজার শহরের বাইপাস সড়কের কলাতলী এলাকার বিকাশ ভবনের সামনে পৌঁছলে অটোরিকশা যোগে এসে একদল ছিনতাইকারি তাদের গতিরোধ করে। এসময় তাদের (ভূক্তভোগী) সঙ্গে থাকা দুইটি ব্যাগ ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা চালায়। এতে বাধা দিলে ছিনতাইকারিরা জামাল আফরানকে ছুরিকাঘাত করে। এসময় ছুরিকাঘাতে জামাল আফরানের বাম হাতের কব্জির রগ কেটে যায়। পরে ছিনতাইকারি ব্যাগ দুইটি নিয়ে পালিয়ে যায়। স্থানীয়দের সহযোগিতায় তাকে উদ্ধার করে কক্সবাজার জেলা সদর আনা হয়।

ভূক্তভোগী মিথিলা হক বলেন, ছিনিয়ে নেওয়া ব্যাগ দুইটিতে তাদের ২ টি মোবাইল ফোন সেট, ১ টি ল্যাপটপ, ১ টি পাসপোর্ট ও ১ টি জাতীয় পরিচয়পত্র রয়েছে। আহত জামাল আফরানকে প্রায় দুই ঘন্টা অস্ত্রোপচার শেষে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রাখা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাটি অবহিত হওয়ার পরে জড়িতদের শনাক্ত করে গ্রেপ্তারে অভিযান চালাচ্ছে বলে জানান ওসি মো. রফিকুল ইসলাম।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।