১৪ এপ্রিল, ২০২৪ | ১ বৈশাখ, ১৪৩০ | ৪ শাওয়াল, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  আদালতে ফরেস্টার সাজ্জাদ হত্যার দায়স্বীকার সেই ডাম্পার চালক বাপ্পির   ●  ‘অভিযানে ক্ষুব্ধ, ফরেস্টার সাজ্জাদকে পূর্বপরিকল্পনায় হত্যা করা হয়’   ●  ফাঁসিয়াখালীতে পৃথক অভিযানে জবর দখল উচ্ছেদ, বালিবাহী ডাম্পার জব্দ   ●  অসহায়দের পাশে ‘রাবেয়া আলী ফাউন্ডেশন’   ●  ফরেস্টার সাজ্জাদ হত্যার মূল ঘাতক সেই বাপ্পী পুলিশের জালে   ●  ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশন অব কক্সবাজার,ক্র্যাকের সভাপতি জসিম, সম্পাদক নিহাদ   ●  নতুন জামাতে রঙিন ১০০ শিশুর মুখ   ●  মহেশখালী উপজেলা আ’লীগ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার পাশা চৌধুরীর মৃত্যুতে জেলা আ’লীগের শোক   ●  পাহাড়ে শান্তি ফেরাতে যৌথ অভিযান   ●  নিরাপদ পেকুয়া গড়তে দলমত নির্বিশেষে সকলকে এক হতে হবে, ড. সজীব

স্বামী পুরুষটি যখন দেখেন অন্য নারীকে… রইলো দাম্পত্য রক্ষায় ৯টি পরামর্শ

(প্রিয়.কম) কেউ স্বীকার করুক বা না করুক, দাম্পত্য জীবনের অন্যতম বড় সমস্যা হচ্ছে স্ত্রীর সামনেই স্বামী যখন অন্য নারীদের দিকে দেখেন। অনেক পুরুষই অন্য নারীদের দিকে দেখেন, তাঁদের প্রতি আকর্ষিত বোধ করেন। কিন্তু সমস্যাটা মারাত্মক হয়ে দাঁড়ায়, যখন তিনি স্ত্রীর সামনেই এই কাজটি করেন ও স্ত্রীর চোখে সেটা ধরাও পড়ে যায়। স্ত্রী কষ্ট পান, ঝগড়া হয়, পুরুষটিও ধরা পড়ে বিব্রত হন, এদিকে কিছুতেই নিজের চোখকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন না। জেনে নিন এমন কিছু পরামর্শ, যা স্বামী ও স্ত্রী উভয়েরই কাজে আসবে।

স্ত্রী-দের জন্য পরামর্শ

১) মানুষ মাত্রই মানুষকে দেখে, দেখবে। এই সত্যটি গ্রহণ করে নিন। আপনি কি একজন আকর্ষণীয় পুরুষের দিকে দেখেন না? অবশ্যই দেখেন। তবে হ্যাঁ, পুরুষেরা যেমন অন্য নারীকে দেখে মনে মনে অনেক কিছু চিন্তা করে ফেলেন, আপনি হয়তো সেটা করেন না। এমনও হতে পারে যে আপনার স্বামী কেবল দেখছেন, যেভাবে আমরা আর ১০টি মানুষকে দেখি। তাই প্রথমেই ব্যাপারটি বোঝার চেষ্টা করুন যে আসলে বিষয়টি কী। তিনি কি স্রেফ মানুষ হিসাবে তাকিয়েছেন, নাকি যৌন আগ্রহ নিয়ে দেখছেন সেটা তো আপনি সহজেই বুঝতে পারবেন যেহেতু আপনি তাঁর স্ত্রী। ঠিক মত কিছু না বুঝেই রাগারাগি করবেন না।

২) হ্যাঁ, আপনার স্বামী যৌন আগ্রহ নিয়ে আপনার সামনেই অন্য নারীদের দেখছেন- বিষয়টি এমন হয়ে থাকলেও এই ব্যাপারটি নিয়ে কোন উত্তেজনা প্রকাশ করবেন না ঘরের বাইরে। স্বামীর সাথে যা কথা বলতে হয়, সেটা নিজের বাড়িতে বলুন। বাড়ির বাইরে সবার সামনে এই বিষয়টি নিয়ে রাগারাগি করা আপনার জন্য সম্মানজনক কিছু নয়। সন্তানদের সামনেও এই বিষয়টি নিয়ে কথা বলবেন না, এবং বান্ধবীদের সাথেও শেয়ার করতে যাবেন না।

৩) ব্যাপারটি ২/১ বার হতেই পারে মনের ভুলে, অনেক সময়েই পুরুষ নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন না। কিন্তু ক্রমাগত যখন একই ব্যাপার ঘটতে থাকবে, তখন স্বামীর সাথে কথা বলতেই হবে। যদিও বিষয়টির ক্ষেত্রে মাথা ঠাণ্ডা রাখা খুবই কঠিন, তবুও ঠাণ্ডা মাথায় কথা বলতে হবে। তাঁর কাছে জানতে চান যে বিষয়টি কী এবং তাঁকে জানান যে এমন আচরণে আপনি খুবই কষ্ট পাচ্ছেন ও অপমানিত বোধ করছেন। অন্য নারীর দিকে তাকিয়েছেন মানেই যে তিনি আপনাকে ভালোবাসেন না, এমনটা নয়। তাই আপনার অনুভব তাঁকে জানানো জরুরী।

৪) এটা একদম ধ্রুব সত্য যে অনেক পুরুষই বিয়ের কিছু বছর পর স্ত্রীর প্রতি আগ্রহ আস্তে আস্তে হারিয়ে ফেলতে পারেন। এবং অনেকের ক্ষেত্রেই একটা সময় এমন আসে যে স্ত্রী ব্যতীত আর সকল নারীকেই তাঁর ভালো লাগে। কিন্তু এটার অর্থ এই নয় যে আপনার আকর্ষণ কমে গেছে বা আপনার নিজেকে নিয়ে লজ্জিত বোধ করার কিছু আছে। স্বামী নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারছেন না, এটা স্বামীর লজ্জা। আপনার নয়। আর মনে রাখবেন, অন্য নারীর দিকে তাকিয়েছেন বলেই আপনাকে তিনি ছেড়ে চলে যাবেন, বিষয়টি মোটেও এমন নয়। তাই প্রচণ্ড রিঅ্যাক্ট করা থেকে বিরত থাকুন। স্ত্রীর ঈর্ষায় অনেক স্বামী মজাও পেয়ে থাকেন।

৫) স্বামীর সাথে যখনই বাইরে যাবেন, নিজেকে গুছিয়ে চলুন। মেয়েরা সংসার নিয়ে এত ব্যস্ত হয়ে পড়েন যে নিজের দিকে তাকাবার সময় পান না। এই ভুলটি করবেন না। স্বামীর সাথে কোথাও ঘুরতে গেলে এমন ভাবেই পরিপাটি হয়ে যান যেন ১০ মানুষ আপনার দিকে প্রশংসার দৃষ্টিতে তাকায়। প্রত্যেক স্বামীই এটা পছন্দ করেন এবং নিজের স্ত্রীর প্রশংসা সকলে করলে তাঁর দৃষ্টিও স্ত্রীর দিকেই থাকে।

পুরুষদের জন্য পরামর্শ

৬) একটা জিনিস ভুলে যাবেন না, আপনি যেমন অন্য নারীর দিকে তাকাতে পারেন স্ত্রীও কিন্তু তেমনই অন্য পুরুষদের দিকে দেখতেই পারেন। তাই স্ত্রীর সামনে আচরণ একটু বুঝেশুনে করাই ভালো। আপনি হয়তো স্রেফ দেখেছেন, স্ত্রী হয়তো সম্পর্কে জড়িয়েও যেতে পারেন!

৭) নিজের স্ত্রীর সামনে অন্য মেয়েদের দিকে তাকিয়ে থাকাটা আসলে কোন পুরুষের জন্যই সম্মানজনক কোন বিষয় নয়। বেশিরভাগ পুরুষই এটা জানেন না যে এমন আচরণের মাধ্যমে কেবল স্ত্রী নয়, অন্যদের চোখেও তিনি ছোট হয়ে যান। মনে মনে কাছের মানুষেরাই তাঁকে দুশ্চরিত্র ভাবেন। সম্মান নিজের স্ত্রীর প্রতি মনযোগ দেয়াতেই।

৮) পুরুষ মানুষ হয়েছি, মেয়ে তো তো দেখবই- এমন সস্তা দরের চিন্তাভাবনা বাদ দিন। পুরুষ বলেই এমন অভ্যাস তৈরি হয়নি, বরং আপনি নিজেই এই অভ্যাস গড়ে তুলেছেন। নায়িকাদের নিয়ে ফ্যান্টাসিতে ভোগা, পর্ণ দেখা, বন্ধুদের সঙ্গ ইত্যাদি থেকে এই অভ্যাস গড়ে উঠেছে। পৃথিবীতে এমন অনেক পুরুষই আছেন, যারা যৌন আকর্ষণের এমন নির্লজ্জ প্রকাশ করেন না। নিজেকে একজন রুচিবান মানুষ হিসাবে গড়ে তুলুন।

৯) আপনি হয়তো সাধারণ ভাবেই তাকিয়েছেন, কেবল একজন মানুষ হিসাবে। তবে সত্যি বলতে কী, স্ত্রী এটা বুঝবেন না। আপনি যতই সাধারণ ভাবেই দেখে থাকেন না কেন, স্ত্রী কষ্ট পাবেন। কারণ তাঁর মনে হবে আপনি আর তাঁকে ভালোবাসেন না। তাই দাম্পত্য শান্তি রক্ষায় স্ত্রীর সামনে একটু সাবধান থাকুন। সচেতন ভাবেই নিজের দৃষ্টিকে সংযত করুন।

সমস্যাটি বিব্রতকর, কিন্তু কমবেশি সকল দাম্পত্যেই আছে। দুজনের মাঝে ভালোবাসার বন্ধন অটুট থাকার পাশাপাশি আকর্ষণটাও ধরে রাখা চাই। ভালো থাকুন জীবনে।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।