২০ জুন, ২০২৪ | ৬ আষাঢ়, ১৪৩১ | ১৩ জিলহজ, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  পাহাড় ধ্বসঃ ৮ রোহিঙ্গাসহ নিহত ১০   ●  উখিয়ার ক্যাম্পে পৃথক পাহাড় ধ্বসে ৭ রোহিঙ্গা সহ নিহত ৯   ●  রামুতে ঘুমন্ত স্বামী-স্ত্রীকে জবাই করে হত্যা   ●  উখিয়া-টেকনাফের ৫ শতাধিক তরুন-তরুণীকে কারিগরি প্রশিক্ষণ দিচ্ছে ‘সুশীলন’   ●  খাদ্যে ভেজাল রোধে সামাজিক আন্দোলন দরকার : খাদ্যমন্ত্রী   ●  ইজিবাইকের ছাদে তুলে ৮ বছরের শিশু নির্যাতন ভিডিও ভাইরাল: তিন অভিযুক্ত গ্রেপ্তার   ●  ভবিষ্যতে প্রেস কাউন্সিলের সার্টিফিকেট ছাড়া সাংবাদিকতা করা যাবে না   ●  একমাসেও অধরা ঘাতক চক্র, চাঞ্চল্যকর হত্যাকাণ্ডের অগ্রগতি নিয়ে পরিবারে হতাশ   ●  সমুদ্রকেই ঘিরে কক্সবাজারের অর্থনীতি   ●  সামাজিক কাজে বিশেষ অবদানের জন্য হাসিঘর ফাউন্ডেশনকে সম্মাননা স্মারক প্রদান

সোমবার ও শুক্রবার কক্সবাজারের পায়রা বাজার

paira-1
সপ্তাহের প্রতি সোমবার ও শুক্রবার কক্সবাজার শহরের থানা রাস্তার মাথায় (পৌরসভা সংলগ্ন ইভান প্লাজার সামনে) বসবে জেলার বৃহৎ পায়রা বাজার।

প্রতিদিন বিকাল তিনটা থেকে এ বাজারে দেশী বিদেশী নানা জাত ও ধরণের পায়রা মিলবে।

২০১১ সালের ৩ মার্চ এই স্থানে প্রথম উদ্বোধন হয় জেলার প্রথম ও বৃহৎ পায়রা।

সোমবার (৩১ অক্টোবর) উদ্বোধন হলো দ্বিতীয় দিনের পায়রা বাজার।

কক্সবাজার পৌরসভা সংলগ্ন এই পায়রা বাজারের উদ্বোধন করেন কক্সবাজার পৌরসভার কাউন্সিলর ছালামত উল্লাহ বাবুল।

এসময় উপস্থিত ছিলেন কোরল রীফ প্লাজা ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি সরওয়ার রোমন, সাংবাদিক সৈয়দ মোহাম্মদ শাকিল, ব্যবসায়ী পূর্ণ বর্ধন বড়ুয়া, জাহেদুল ইসলাম, বেলাল উদ্দিন, জাফর আলম, মোঃ ছিদ্দিক প্রমুখ।
paira-2
বাজারে আনা পায়রার পরিচর্যা করছেন পরিচালক ইয়াছির আরাফাত রিগ্যান।
বাজারে আনা পায়রার পরিচর্যা করছেন পরিচালক ইয়াছির আরাফাত রিগ্যান।
পায়রা বাজারের পরিচালক ইয়াছির আরাফাত রিগ্যান জানান, ২০১১ সালের ৩রা মার্চ শহরের ইভান প্লাজার সম্মুখে এই পায়রা বাজার প্রতিষ্ঠা হয়। প্রতি শুক্রবার বিকাল ৩টা থেকে সন্ধ্যা অবধি বাজারে পায়রা পাওয়া যবে।

তিনি জানান, পায়রা বাজার উদ্বোধনের পর থেকে প্রচুর সাড়া মেলে। মানুষের চাহিদা বিবেচনা করে ‘পায়রা বাজার’ একদিন বাড়িয়ে প্রতি শুক্রবার ও সোমবার করা হয়েছে। বাজার পরিচালনায় তিনি সবার সহযোগিতা কামনা করেছেন।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।