২২ জুন, ২০২৪ | ৮ আষাঢ়, ১৪৩১ | ১৫ জিলহজ, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  সোনারপাড়া উচ্চ বিদ্যালয় ব্যাচ ২০১৯-এর ঈদ পূণর্মিলন অনুষ্ঠিত হয়েছে   ●  পাহাড় ধ্বসঃ ৮ রোহিঙ্গাসহ নিহত ১০   ●  উখিয়ার ক্যাম্পে পৃথক পাহাড় ধ্বসে ৭ রোহিঙ্গা সহ নিহত ৯   ●  রামুতে ঘুমন্ত স্বামী-স্ত্রীকে জবাই করে হত্যা   ●  উখিয়া-টেকনাফের ৫ শতাধিক তরুন-তরুণীকে কারিগরি প্রশিক্ষণ দিচ্ছে ‘সুশীলন’   ●  খাদ্যে ভেজাল রোধে সামাজিক আন্দোলন দরকার : খাদ্যমন্ত্রী   ●  ইজিবাইকের ছাদে তুলে ৮ বছরের শিশু নির্যাতন ভিডিও ভাইরাল: তিন অভিযুক্ত গ্রেপ্তার   ●  ভবিষ্যতে প্রেস কাউন্সিলের সার্টিফিকেট ছাড়া সাংবাদিকতা করা যাবে না   ●  একমাসেও অধরা ঘাতক চক্র, চাঞ্চল্যকর হত্যাকাণ্ডের অগ্রগতি নিয়ে পরিবারে হতাশ   ●  সমুদ্রকেই ঘিরে কক্সবাজারের অর্থনীতি

সাড়ে চার লক্ষ ইয়াবা উদ্ধারের মামলায় ৩ রোহিঙ্গার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

নিজস্ব প্রতিনিধি:
কক্সবাজারে সাড়ে চার লক্ষ ইয়াবা এবং ৯ লক্ষ ৫১ হাজার কিয়াত মিয়ানমারের মুদ্রা উদ্ধারের মামলায় তিন রোহিঙ্গাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।
সেই সঙ্গে তাদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরো ৬ মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।
দণ্ডিত আসামিরা হলেন, মিয়ানমারের আরাকান জেলার আইকাফ থানার অনডাং এলাকার মৌং সাদুর পুত্র এ খং সা, স্যাং টোয়েং এর পুত্র মৌং চোং অং এবং আরাকানের সাই আইকান পেলিসং এলাকার মোঃ ইদ্রিস এর পুত্র মোঃ ইসহাক।
মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) জিআর মামলা নং-১০০৭/২০২০ শুনানি শেষে কক্সবাজারের সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ ইসমাইল এ রায় ঘোষণা করেন।
রায় ঘোষণাকালে দণ্ডিতরা আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন। রাষ্ট্র পক্ষে পিপি অ্যাডভোকেট ফরিদুল আলম ফরিদ ও এপিপি দীলিপ কুমার ধর মামলাটি পরিচালনা করেন। আসামীদের পক্ষে স্টেট ডিফেন্স আইনজীবী হিসাবে ছিলেন সিরাজুল ইসলাম (৪)।
২০২০ সালের ৭ ডিসেম্বর সেন্টমার্টিন ছেঁড়াদ্বীপ থেকে ইযাবা ও মিয়ানমারের মুদ্রাসহ ৩ জনকে আটক করে কোস্ট গার্ড।
এ বিষয়ে ৮ ডিসেম্বর তাদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন কোস্ট গার্ড টেকনাফ স্টেশনের পেটি অফিসার মোঃ আরশাদুল ইসলাম। যার থানা মামলা নং -১৭। জিআর মামলা নং-১০০৭/২০২০।
পিপি অ্যাডভোকেট ফরিদুল আলম ফরিদ জানিয়েছেন, দণ্ডিত আসামিদের নিকট থেকে জব্দকৃত ৯ লক্ষ ৫১ হাজার কিয়াত মিয়ানমারের মুদ্রা রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত করেছেন আদালত। তাদের সাজার মেয়াদ শেষ হলে আইনানুগ ব্যবস্থায় তাদেরকে মিয়ানমারে পুশব্যাক করার জন্য কক্সবাজারের জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।