১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ | ১৮ মাঘ, ১৪২৯ | ৯ রজব, ১৪৪৪


শিরোনাম
  ●  পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানে নিষিদ্ধ পলিথিন, হাইড্রোলিক হর্ণ জব্দ, জরিমানা   ●  বঙ্গবন্ধু ছিলেন বিশ্ব শ্রেষ্ঠ জাতীয়তাবাদের নেতা   ●  হাতের কব্জির রগ কেটে মোবাইল-ল্যাপটপ ছিনতাই   ●  কক্সবাজারে ইয়াবার মামলায় ৮ রোহিঙ্গার যাবজ্জীবন   ●  লোহাগাড়ায় পুলিশ কর্মকর্তার পরিবারকে ‘পেট্রোলের আগুনে’ পুড়িয়ে মারার চেষ্টা!   ●  চকরিয়ার সাহারবিলে সড়ক উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করলেন এমপি জাফর আলম   ●  রাইজিংবিডির বর্ষাসেরা প্রতিবেদক তারেককে আরইউসির শুভেচ্ছা   ●  স্ট্রীটফুড ও ড্রাই ফিস প্রশিক্ষাণার্থীদের মধ্যে সার্টিফিকেট বিতরণ ও সাপোর্ট প্রদান   ●  রামুতে দুই শতাধিক মানুষ বিনামূল্যে পেল স্বাস্থ্যসেবা ও ওষুধ   ●  সেন্টমার্টিনে রিসোর্ট নির্মাণ কাজ বন্ধের নির্দেশ দিলেন পরিবেশ অধিদপ্তর

শীর্ষ প্রচারে ১২তম বর্তমান ও আমার দেশ ১৬তম

শীর্ষ প্রচারে ১২তম বর্তমান ও আমার দেশ ১৬তম

সম্প্রতি মালিকপক্ষ থেকে বন্ধ করে দেওয়া দৈনিক বর্তমান ও সরকারের সিদ্ধান্তে প্রকাশনা বন্ধ থাকা দৈনিক আমার দেশ পত্রিকা তথ্য মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ প্রচারিত গণমাধ্যমের তালিকায় প্রথম ২০টির মধ্যে রয়েছে।

দশম জাতীয় সংসদের পঞ্চম অধিবেশনে রবিবার এম এ মালেক ও মো. ইসরাফিল আলমের পৃথক দুই প্রশ্নের উত্তরে তথ্য মন্ত্রী এ তথ্য জানান।

মন্ত্রী জানান, বাংলাদেশে বর্তমানে ৯০২টি দৈনিক পত্রিকা ও ৪১টি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল রয়েছে।

রাজধানী ঢাকা থেকে ৩৭৪টি দৈনিক পত্রিকার মধ্যে প্রচারের শীর্ষে রয়েছে দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন ও দ্বিতীয় স্থানে দৈনিক প্রথম আলো। দৈনিক কালের কণ্ঠ তৃতীয় স্থানসহ প্রথম দশের তালিকায় পর্যায়ক্রমে রয়েছে আমাদের সময়, যুগান্তর, ইত্তেফাক, জনকণ্ঠ, সমকাল, মানবকণ্ঠ ও আলোকিত বাংলাদেশ।

মন্ত্রী জানান, রাজধানী ঢাকা থেকে ৩৭৪টি ও মফস্বল জেলা থেকে ৫২৮টি পত্রিকা প্রকাশিত হয়। ৭৭৮টি সাপ্তাহিক পত্রিকার মধ্যে ঢাকা থেকে প্রকাশিত হয় ১৮০টি এবং মফস্বল থেকে ৫৯৮টি। ১০২টি পাক্ষিক পত্রিকার মধ্যে ঢাকা থেকে ৫৯টি এবং মফস্বল থেকে প্রকাশিত হয় ৪৩টি। মাসিক পত্রিকা ১৬৮টির মধ্যে ৭০টি ঢাকা থেকে আর মফস্বল থেকে ৯৮টি। দ্বিমাসিক পত্রিকা ঢাকা থেকে দুটি এবং মফস্বল থেকে ১টি প্রকাশিত হয়।

১১টি ত্রৈমাসিক পত্রিকা মধ্যে ৪টি ঢাকা থেকে ৭টি মফস্বল থেকে প্রকাশিত হয়। ষন্মাসিক দুটি পত্রিকার একটি ঢাকা থেকে অন্যটি মফস্বল থেকে প্রকাশিত হয় এবং দেশের একমাত্র বাৎসরিক পত্রিকা প্রকাশিত হয় ঢাকা থেকে। সারা দেশে মোট এক হাজার ৯৬৭টি প্রিন্ট পত্রিকা প্রকাশিত হয়।

মন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমান সরকার বেসরকারিখাতে মোটি ৩১টি স্যাটেলাইট টেলিভিশন, ২৪টি এফ.এম বেতার কেন্দ্র এবং ৩২টি কমিউনিটি রেডিও অুনমোদন দিয়েছে। বর্তমানে বাংলাদেশে পূর্বের অনুমোদনসহ ৪১টি বেসরকারি স্যাটেলাইট টেলিভিশন, ২৮টি এফ.এম বেতার ও ৩২টি কমিউনিটি রেডিও রয়েছে।’

সেলিনা বেগমের এক প্রশ্নের উত্তরে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘২০১৩-১৪ অর্থবছরে বাংলাদেশ টেলিভিশন করসহ মোট ৮৮ কোটি ৩৮ লাখ ৮৭ হাজার টাকার রাজস্ব আয় করেছে। চলতি অর্থবছরে ৮ মাসে আয় করেছে ৬১ কোটি ৭১ লাখ ৮ হাজার টাকা। বাংলাদেশ বেতার থেকে সরকারের বছরে গড় আয় ১০ কোটি টাকা। ২০১৩-১৪ অর্থবছরে বেতার হতে সরকারের রাজস্ব আয় হয়েছে ৯ কোটি ৯২ লাখ ৬৬ হাজার টাকা। আর চলতি অর্থবছরের প্রথম ৮ মাসে রাজস্ব আয় হয়েছে ৮ কোটি ২৬ লাখ ৫৬ হাজার টাকা।’

মনোয়ারা বেগমের এক প্রশ্নের উত্তরে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘পেট্রোলবোমা নিক্ষেপ ও জ্বালাও-পোড়াওসহ সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সরকারি ও বেসরকারি টিভি চ্যানেলসমূহ প্রচারণা চালিয়ে আসছে। এ বিষয়ে সকল টেলিভিশন চ্যানেল ও বেতার কেন্দ্রকে মন্ত্রণালয় থেকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। ইলেকট্রনিক গণমাধ্যমগুলোর প্রধান নির্বাহীর সঙ্গে মতবিনিময় হলে তারা স্বপ্রণোদিত হয়ে মানুষ হত্যা, জ্বালাও-পোড়াওয়ের নিন্দা জানান।’

মন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াত জোট আন্দোলনের নামে সারাদেশে মানুষ হত্যা ও জ্বালাও-পোড়াও করে মানুষের জানমালের যে ক্ষতি করেছে তার বিরুদ্ধে জনগণকে সচেতন করার জন্য বিটিভির সংবাদে ধ্বংসযজ্ঞের ওপর প্রামাণ্য চিত্র প্রচার করছে। তা ছাড়া বাংলাদেশ টেলিভিশনে নিয়মিতভাবে বেশ কয়েকটি ডকুমেন্টরি প্রচার করা হচ্ছে।’

– See more at: http://www.thereport24.com/article/96623/index.html#sthash.e9wPTDOR.dpuf

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।