১৪ এপ্রিল, ২০২৪ | ১ বৈশাখ, ১৪৩০ | ৪ শাওয়াল, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  আদালতে ফরেস্টার সাজ্জাদ হত্যার দায়স্বীকার সেই ডাম্পার চালক বাপ্পির   ●  ‘অভিযানে ক্ষুব্ধ, ফরেস্টার সাজ্জাদকে পূর্বপরিকল্পনায় হত্যা করা হয়’   ●  ফাঁসিয়াখালীতে পৃথক অভিযানে জবর দখল উচ্ছেদ, বালিবাহী ডাম্পার জব্দ   ●  অসহায়দের পাশে ‘রাবেয়া আলী ফাউন্ডেশন’   ●  ফরেস্টার সাজ্জাদ হত্যার মূল ঘাতক সেই বাপ্পী পুলিশের জালে   ●  ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশন অব কক্সবাজার,ক্র্যাকের সভাপতি জসিম, সম্পাদক নিহাদ   ●  নতুন জামাতে রঙিন ১০০ শিশুর মুখ   ●  মহেশখালী উপজেলা আ’লীগ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার পাশা চৌধুরীর মৃত্যুতে জেলা আ’লীগের শোক   ●  পাহাড়ে শান্তি ফেরাতে যৌথ অভিযান   ●  নিরাপদ পেকুয়া গড়তে দলমত নির্বিশেষে সকলকে এক হতে হবে, ড. সজীব

মহেশখালীর ৬ রাজাকারকে সেফহোমে জিজ্ঞাসাবাদ

War Crimeমানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় গ্রেপ্তারকৃত মহেশখালী উপজেলার ছয় রাজাকারকে অবশেষে তদন্ত সংস্থার ধানমন্ডির সেফহোমে নিয়ে আলাদা আলাদাভাবে মোট চারদিনে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দিয়েছে ট্রাইবুনাল। আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনাল-১ এর চেয়ারম্যান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বে তিন সদস্যের বিচারিক প্যানেল প্রসিকিউশনের আনা আবেদন গ্রহণ করে বৃহস্পতিবার এ আদেশ দেন বলে জানা গেছে। আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন প্রসিকিউটর রানা দাশগুপ্ত ও তুরিন আফরোজ। সূত্রে জানা যায়,মহেশখালী উপজেলায় মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় সর্বমোট ১৯ জন আসামি হলেও এ পর্যন্ত গ্রেফতার হয়েছেন এলডিপি নেতা কক্সবাজার চেম্বারের সাবেক সভাপতি সালামত খান উল্লাহ খান ওরফে ‘পঁচাইয়া রাজাকার’, বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য মোহাম্মদ রশিদ মিয়া, জিন্নাত আলী, মৌলভী ওসমান গণি, নুরুল ইসলাম, শামসুদ্দোহা ও বাদশা মিয়া।এর মধ্যে শামসুদ্দোহা কারাগারে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। এ মামলায় সব আসামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হলেও পলাতক রয়েছে গড়ফাদার মৌলভী জাকারিয়া সিকদারসহ ১২ জন। সুচতুর মৌলভী জাকারিয়া সিকদার সড়ক পথে কৌশলে ভারত ও পাকিস্তান হয়ে বর্তমানে সৌদী আরবে অবস্থান করছে বলে একটি নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে। এই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম সরজমিনে মহেশখালী এসে তিন জন গ্রেফতারকৃত সালামত খান,মোহাম্মদ রশিদ মিয়া ও মৌলভী জাকারিয়া সিকদারের বিরুদ্ধে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম সরজমিনে মহেশখালী এসে তদন্ত করতে গিয়ে মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী বিভিন্ন অপরাধের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকা আরো ১৯ জনের রাজাকারের নাম পান বলে জানান। তাদেরকে গ্রেফতার করে বিচারের মুখোমুখি করা হবে জানান।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।