৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ | ২০ মাঘ, ১৪২৯ | ১১ রজব, ১৪৪৪


শিরোনাম
  ●  প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমানোন্নয়নে কক্সবাজার পৌর এলাকায় চলছে দরিদ্রবান্ধব নগর পরিকল্পনা ও উন্নয়ন কাজ   ●  পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানে নিষিদ্ধ পলিথিন, হাইড্রোলিক হর্ণ জব্দ, জরিমানা   ●  বঙ্গবন্ধু ছিলেন বিশ্ব শ্রেষ্ঠ জাতীয়তাবাদের নেতা   ●  হাতের কব্জির রগ কেটে মোবাইল-ল্যাপটপ ছিনতাই   ●  কক্সবাজারে ইয়াবার মামলায় ৮ রোহিঙ্গার যাবজ্জীবন   ●  লোহাগাড়ায় পুলিশ কর্মকর্তার পরিবারকে ‘পেট্রোলের আগুনে’ পুড়িয়ে মারার চেষ্টা!   ●  চকরিয়ার সাহারবিলে সড়ক উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করলেন এমপি জাফর আলম   ●  রাইজিংবিডির বর্ষাসেরা প্রতিবেদক তারেককে আরইউসির শুভেচ্ছা   ●  স্ট্রীটফুড ও ড্রাই ফিস প্রশিক্ষাণার্থীদের মধ্যে সার্টিফিকেট বিতরণ ও সাপোর্ট প্রদান   ●  রামুতে দুই শতাধিক মানুষ বিনামূল্যে পেল স্বাস্থ্যসেবা ও ওষুধ

মহেশখালীতে জলদস্যুদের গুলিতে মালয়েশিয়াগামী গুলিবিদ্ধ, নিখোঁজ ৩

index

মহেশখালী উপজেলার কুতুবজোমে গুলি বর্ষণ করে মালয়েশিয়াগামীসহ বোট অপহরণ করে নিয়ে গেছে দস্যুরা। এসয়ম দস্যুদের ছোঁড়া গুলিতে ১ মালয়েশিয়াগামী গুলিবিদ্ধ ও সাগরে ঝাঁপ দিয়ে তিন জন নিখোঁজ রয়েছে। এখন পর্যন্ত বোটসহ অন্তত ৩০ জন মালয়েশিয়াগাীকে জিম্মি করে রেখেছে দস্যুরা। সোমবার রাত সাড়ে ১১ টার দিকে বঙ্গোপসাগরে তাজিয়াকাটা পয়েন্টে এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় ইউপি সদস্য মাওলানা এখতিয়ার জানান, তাজিয়াকাটার সাহেব মিয়ার পুত্র আবু তালেবের মালিকানাধীন একটি বোট ৩০/৩৫ জন মালয়েশিয়াগামী নিয়ে সাগরে রওনা দেয়। কিছু দূর এগোতেই মালয়েশিয়াগামীদের ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যে আরেকদল সশস্ত্র মানবপাচারকারী ওই বোটকে লক্ষ্য করে গুলি বর্ষণ করতে করতে বোটটিকে জিম্মি করে ফেলে। এসময় ঘটিভাঙ্গার ঢেমবনিয়াপাড়ার আবদ্দু শুক্কুর (৩৫) নামে বোটের কর্মরত এক ব্যক্তি গুলিবিদ্ধ হয়েছে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত তিনি মহেশখালী হাসপাতালে গোপনে চিকিৎসা নিচ্ছিল। একই সময় সাগরের ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজ রয়েছে ৩ জন। তাদের মধ্যে একজনের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেলেও বাকিদের পরিচয় পাওয়া যায়নি। পরিচয় পাওয়া মালয়েশিগামী হলেন তাজিয়াকাটার জাহাবাসুর পুত্র দিলদার মিয়া (২৫)।
এদিকে অন্যান্য মালয়েশিয়াগামীসহ বোটটি অপহরণ করে নিয়েছে অজ্ঞাত দস্যুরা। তবে একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে বোটের মালয়েশিয়াগামীরা অক্ষত রয়েছে।
এ ব্যাপারে কুতুবজোম ইউপি চেয়ারম্যান শফিউল আলম জানিয়েছেন, তিনি ঘটনাটি পুরোপুরি জেনেছেন। এলাকার বাইরে থাকায় ঘটনাস্থলে গিয়ে বিস্তারিত জানা সম্ভব হয়নি। তবে পুলিশকে জানানো হয়েছে।
মহেশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন বলেন, ‘ওই ঘটনা ব্যাপারে আমি অবহিত হয়েছি। বিস্তারিত খোঁজ-খবর নেয়া হচ্ছে।’

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।