১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ | ১৮ মাঘ, ১৪২৯ | ৯ রজব, ১৪৪৪


শিরোনাম
  ●  পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানে নিষিদ্ধ পলিথিন, হাইড্রোলিক হর্ণ জব্দ, জরিমানা   ●  বঙ্গবন্ধু ছিলেন বিশ্ব শ্রেষ্ঠ জাতীয়তাবাদের নেতা   ●  হাতের কব্জির রগ কেটে মোবাইল-ল্যাপটপ ছিনতাই   ●  কক্সবাজারে ইয়াবার মামলায় ৮ রোহিঙ্গার যাবজ্জীবন   ●  লোহাগাড়ায় পুলিশ কর্মকর্তার পরিবারকে ‘পেট্রোলের আগুনে’ পুড়িয়ে মারার চেষ্টা!   ●  চকরিয়ার সাহারবিলে সড়ক উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করলেন এমপি জাফর আলম   ●  রাইজিংবিডির বর্ষাসেরা প্রতিবেদক তারেককে আরইউসির শুভেচ্ছা   ●  স্ট্রীটফুড ও ড্রাই ফিস প্রশিক্ষাণার্থীদের মধ্যে সার্টিফিকেট বিতরণ ও সাপোর্ট প্রদান   ●  রামুতে দুই শতাধিক মানুষ বিনামূল্যে পেল স্বাস্থ্যসেবা ও ওষুধ   ●  সেন্টমার্টিনে রিসোর্ট নির্মাণ কাজ বন্ধের নির্দেশ দিলেন পরিবেশ অধিদপ্তর

বৈধ ৩শ ৩০,বাদ পড়ল ৪২ প্রার্থী

nirbason
আসন্ন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বাছাইয়ের দ্বিতীয় দিন গতকাল বৃহস্পতিবার কাউন্সিলর পদে ২৯ জনের মনোনয়ন পত্র বাতিল করেছেন রিটার্নিং অফিসার মো.আব্দুল বাতেন। এদের মধ্যে সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী ২৩ জন ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী ৬ জন।
নির্দিষ্ট বয়সের চাইতে কম বয়স ব্যাংক লোন খেলাপী ও মনোনয়নপত্রের সাথে জমা দেওয়া কাগজপত্রের ত্রুটির কারনে
তাদের মনোনয়ন পত্র বাতিল করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন রিটার্নিং অফিসার আব্দুল বাতেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সোয়া ৯টা থেকে মনোনয়ন পত্র যাচাইবাছাই শুরু হয়। বিকেল সাড়ে ৫টায় যাচাইবাছাই শেষে রিটার্নিং অফিসার বাতিল হওয়া প্রার্থীদের তালিকা সাংবাদিকদের কাছে উপস্থাপন করেন তিনি।
এ নিয়ে গত দু’দিনে মেয়র পদে একজন, সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ১০ জন এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩১ জনের মনোনয়ন পত্র বাতিল হল। আর তিনটি পদ মিলিয়ে মনোনয়ন পত্র দাখিলকারী ৩৭২ জনের মধ্যে ৪২ জনের প্রার্থীতা বাতিল হওয়ায় এ নির্বাচনে বৈধ প্রার্থীর সংখ্যা দাড়ালো ৩শ জনে।
মনোনয়ন পত্র বাতিলের কারণে সংক্ষুব্ধ অথবা বৈধ ঘোষিত প্রার্থীর বিরুদ্ধে কারও কোন অভিযোগ থাকলে তিনদিনের মধ্যে সংশ্লিষ্ট আপিল কর্তৃপক্ষ বিভাগীয় কমিশনারের কাছে লিখিতভাবে আপিল দায়ের করতে পারবেন। দায়েরের তিনদিনের মধ্যে বিভাগীয় কমিশনার বিষয়টি নিষ্পত্তি করবেন। এর পরই রয়েছে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের তারিখ। ৯ এপ্রিল মনোনয়নপত্র প্রত্যহাার করতে পারবেন বলে জানা গেছে।
মনোনয়পত্র বাছাএয়র প্রথম দন বুধবার মেয়র পদে একজন, সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৪ জন এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৮ জনের মনোনয়ন পত্র বাতিল করা হয়।
এনিয়ে এখন মেয়র পদে মোট ১২ জন প্রার্থী থাকল। এরা হলো,সদ্য বিদায়ী মেয়র ও বিএনপি সমর্থিত চট্টগ্রাম উন্নয়ন আন্দোলনের মনোনীত প্রার্থী এম মনজুর আলম, আওয়ামী লীগ সমর্থিত নাগরিক কমিটির প্রার্থী আ জ ম নাছির উদ্দিন, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সোলায়মান আলম শেঠ, বিএনএফ’র আরিফ মঈনুদ্দীন, গাজী মো. আলাউদ্দিন, ওয়াইয়াজ হোসেন ভূঁইয়া, ইসলামিক ফ্রন্টের মজিবুল হক শুক্কুর, এম এ মতিন, সৈয়দ সাজ্জাদ জোহা, সাইফুদ্দিন আহমেদ রবি, আবুল কালাম আজাদ, ও শফিউল আলম।
ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৬১ জন এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ২৫৭ জন নির্বাচনী দৌঁড়ে থাকল।
নগরীর মুসলিম ইনস্টিটিউট হলে রিটার্নিং অফিসার মো.আব্দুল বাতেনের নেতৃত্বে বুধবার থেকে এ যাচাইবাছাই কার্যক্রম শুরু হয়। বৃহস্পতিবার শেষ হয়েছে এ কার্যক্রম।
ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী আগামী ৯ এপ্রিল প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষদিন। ১০ এপ্রিল প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ হবে। এর পরই মূলত শুরু হবে প্রচার প্রচারনা। তবে এর আগেও থেমে নেই প্রার্থীরা। রাজনৈতিক দল ও সামাজিক সংগঠনের ব্যনারে প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন প্রার্থীরা।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।