২০ জুন, ২০২৪ | ৬ আষাঢ়, ১৪৩১ | ১৩ জিলহজ, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  পাহাড় ধ্বসঃ ৮ রোহিঙ্গাসহ নিহত ১০   ●  উখিয়ার ক্যাম্পে পৃথক পাহাড় ধ্বসে ৭ রোহিঙ্গা সহ নিহত ৯   ●  রামুতে ঘুমন্ত স্বামী-স্ত্রীকে জবাই করে হত্যা   ●  উখিয়া-টেকনাফের ৫ শতাধিক তরুন-তরুণীকে কারিগরি প্রশিক্ষণ দিচ্ছে ‘সুশীলন’   ●  খাদ্যে ভেজাল রোধে সামাজিক আন্দোলন দরকার : খাদ্যমন্ত্রী   ●  ইজিবাইকের ছাদে তুলে ৮ বছরের শিশু নির্যাতন ভিডিও ভাইরাল: তিন অভিযুক্ত গ্রেপ্তার   ●  ভবিষ্যতে প্রেস কাউন্সিলের সার্টিফিকেট ছাড়া সাংবাদিকতা করা যাবে না   ●  একমাসেও অধরা ঘাতক চক্র, চাঞ্চল্যকর হত্যাকাণ্ডের অগ্রগতি নিয়ে পরিবারে হতাশ   ●  সমুদ্রকেই ঘিরে কক্সবাজারের অর্থনীতি   ●  সামাজিক কাজে বিশেষ অবদানের জন্য হাসিঘর ফাউন্ডেশনকে সম্মাননা স্মারক প্রদান

বিচারহীনতার সংস্কৃতি জঙ্গী খুনীদের বেপরোয়া করে তুলেছে

সিলেটে মুক্তমনা ব্লগার অনন্ত বিজয় দাশের খুনীদের গ্রেপ্তার ও ছাত্র ইউনিয়নের মিছিলে বর্বরোচিত পুলিশী হামলার বিচারের দাবীতে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকালে কক্সবাজার শহরের যৌথ মিছিল ও সমাবেশ করেছে উদীচী শিল্পী গোষ্ঠী, ছাত্র ইউনিয়ন,ছাত্র ইউনিয়নসহ সমমনা সংগঠনগুলো।
কক্সবাজার পৌর ভবন সামনের সড়কে জেলা ছাত্র ইউনিয়নের সভপতি সৌরভ দে এর সভপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক অন্তিক চক্রবর্তীর সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য দেন জেলা উদীচীর সাবেক সভাপতি সাংবাদিক মুহাম্মদ আলী জিন্নাত, বর্তমান সভাপতি ফজলুল কাদের চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক কল্যাণ পাল, ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সহসভাপতি মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ শহীদ, যুব ইউনিয়নের সংগঠক মুনীর মোবারক,ছাত্র ইউনিয়নের সংগঠক মোসাদ্দেক আবু, মরিদুল ইভান, পাভেল দাশ, শয়ন বিশ্বাস প্রমুখ।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, সিলেটে অনন্ত হত্যাকান্ড বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়। জঙ্গী, উগ্র ধর্মান্ধ গোষ্ঠীর পরিকল্পিত সিরিজ হত্যাকান্ড হচ্ছে অনন্ত হত্যাকান্ড। বিচার হীনতার সংস্কৃতি দেশে প্রচলিত থাকায় জঙ্গী খুনীদের বেপরোয়া করে তুলেছে, তারা একের পর এক হত্যাযঞ্জ চালাচ্ছে। জঙ্গীদের ব্যাপারে বর্তমান সরকারের রাজনৈতিক অবস্থান কি এদেশের মানুষের সামনে পরিষ্কার করতে হবে। রাষ্ট্র মানবিক হলে এদেশে হয়তো মুক্তমনা মানুষদের লাইন ধরে জীবন দিতে হতো না, রাজপথে ছাত্রছাত্রীদের বর্বর হামলার শিকার হতো না।
সমাবেশ শেষে একটি মিছিল জেলা শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।