৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ | ২৬ মাঘ, ১৪২৯ | ১৭ রজব, ১৪৪৪


শিরোনাম
  ●  চট্টগ্রামের বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ, এমপি মোসলেম উদ্দীনের মৃত্যুতে কক্সবাজার জেলা আ’লীগের শোক   ●  স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলামের সঙ্গে একান্তে সাক্ষাত এমপি জাফর আলমের   ●  কক্সবাজার সদর হাসপাতালে হয়রানি ও হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন   ●  প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমানোন্নয়নে কক্সবাজার পৌর এলাকায় চলছে দরিদ্রবান্ধব নগর পরিকল্পনা ও উন্নয়ন কাজ   ●  পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানে নিষিদ্ধ পলিথিন, হাইড্রোলিক হর্ণ জব্দ, জরিমানা   ●  বঙ্গবন্ধু ছিলেন বিশ্ব শ্রেষ্ঠ জাতীয়তাবাদের নেতা   ●  হাতের কব্জির রগ কেটে মোবাইল-ল্যাপটপ ছিনতাই   ●  কক্সবাজারে ইয়াবার মামলায় ৮ রোহিঙ্গার যাবজ্জীবন   ●  লোহাগাড়ায় পুলিশ কর্মকর্তার পরিবারকে ‘পেট্রোলের আগুনে’ পুড়িয়ে মারার চেষ্টা!   ●  চকরিয়ার সাহারবিলে সড়ক উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করলেন এমপি জাফর আলম

বিএনপির নিখোঁজ যুগ্ম মহাসচিব সালাহউদ্দিন আহমদকে অক্ষত অবস্থায় ফিরে পাওয়ার দাবীতে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে জেলা বিএনপির স্মারকলিপি

Cox's_Bnp Sharoklipi Pic_18.03.2015
নিখোঁজ বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহউদ্দিন আহমদকে অক্ষত অবস্থায় ফিরে পাওয়ার দাবীতে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি দিয়েছে কক্সবাজার জেলা বিএনপি। আজ বুধবার দুপুরে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে এই স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।
স্মারকলিপিতে স্বাক্ষর করেন কক্সবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক হুইপ শাহজাহান চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শামীম আরা স্বপ্না।
স্মারকলিপিতে বলা হয়, কক্সবাজার জেলাবাসীর গর্ব, তিনবার বিপুল ভোটে নির্বাচিত সাবেক সংসদ সদস্য, সাবেক যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী ও বিএনপির মুখপাত্র সালাহউদ্দিন আহমদ আইন শৃংখলা বাহিনীর সাদা পোষাকধারী কতিপয় সদস্যের হাতে অপহৃত হয়ে নিখোঁজ হয়েছেন মর্মে তার স্ত্রী সাবেক সংসদ সদস্য এডভোকেট হাসিনা আহমেদ অভিযোগ করেছেন। গত ১০ মার্চ রাত সাড়ে ১০টার দিকে ঢাকার উত্তরার একটি আবাসিক ভবন থেকে অস্ত্রের মুখে হাত ও চোখ বেঁধে আইন শৃংখলা বাহিনীর সাদা পোষাকধারী সদস্যরা সালাহউদ্দিন আহমদকে তুলে নিয়ে যান। সালাহউদ্দিন আহমদের পরিবার ও বিএনপির কেন্দ্রীয় কমান্ড নিশ্চিত হয়েছেন, সালাহউদ্দিন আহমদকে আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যরাই তুলে নিয়েছে। কিন্তু অত্যন্ত পরিতাপের বিষয়, সালাহউদ্দিন আহমদকে তুলে নিয়ে যাওয়ার পর থেকে অদ্যাবদি তার কোন সন্ধান মিলছে না। আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কোন শাখাও তাঁকে আটক কিংবা গ্রেফতারের বিষয়টি স্বীকার করছে না। এই অবস্থায় অতীতের বিএনপি নেতা ইলিয়াছ আলী, চৌধুরী আলমের মতো সালাহউদ্দিন আহমদকেও গুম করা হলো কীনা- এই আশংকায় কক্সবাজারবাসীসহ পুরো দেশবাসী অজানা আতংকে আতংকিত হয়ে পড়েছে। কিন্তু কক্সবাজারের বিএনপি নেতারা সেটি বিশ্বাস করতে চায় না। সেটা মানতেও নারাজ।
স্মারকলিপিতে সালাহউদ্দিন আহমদকে অক্ষত অবস্থায় তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেওয়ার অথবা তাকে উদ্ধার করে আদালতে সোপর্দ করার দাবী জানিয়ে আরো বলা হয়, সালাহউদ্দিন আহমদ বিএনপির নিছক একজন নেতা নন। তিনি কক্সবাজারবাসীর ভালোবাসার সন্তান। কক্সবাজারকে যিনি এগিয়ে নিয়েছেন জাতীয় নেতৃত্বে। সালাহউদ্দিন আহমদই কক্সবাজারকে উন্নয়নের শক্ত ভিত্তির উপর দাঁড় করিয়েছেন।
স্মারকলিপিতে প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে আকুতি জানিয়ে বলা হয়, একটি পরিবারের অভিভাবক হারানোর কী যন্ত্রণা আপনি জানেন। আপনি পিতা-মাতাসহ পুরো পরিবারকে হারিয়ে সেই দুঃখ বুকে নিয়ে দেশের সেবা করছেন। সালাহউদ্দিন আহমদের স্ত্রী, চার সন্তানের পাশাপাশি পুরো কক্সবাজারবাসী উদ্বিগ্ন ও উৎকণ্ঠায় রয়েছে। এর থেকে পরিত্রাণ পাওয়া জরুরী।
‘প্রিয় প্রধানমন্ত্রী’ সম্মোধন করে স্মারকলিপিতে আরো বলা হয়, ‘আমরা মনে প্রাণে বিশ্বাস করি আপনি চাইলেই আইনশৃংখলা বাহিনী সালাহউদ্দিন আহমদকে আমাদের মাঝে ফিরিয়ে দিতে পারে। আপনার রাষ্ট্রের একজন নগন্য নাগরিক মনে করে হলেও সালাহউদ্দিন আহমদকে আমাদের মাঝে ফিরিয়ে দেয়ার ব্যবস্থা করুন। আমরা পুরো দেশবাসী আপনার দিকেই তাকিয়ে আছি। আপনি জেলাবাসীকে নিরাশ ও আশাহত করবেন না।
স্মারকলিপি প্রদানকালে আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও পৌর বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব রফিকুল হুদা চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক রাশেদ মোহাম্মদ আলীসহ অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।