২২ মে, ২০২৪ | ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ | ১৩ জিলকদ, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  নবগঠিত ঈদগাঁও উপজেলার প্রথম নির্বাচনে সহিংসতায় যুবক খুন; বসতবাড়ি ভাংচুরের অভিযোগ    ●  এভারকেয়ার হসপিটালের শিশু হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. তাহেরা নাজরীন এখন কক্সবাজারে   ●  কালেক্টরেট চতুর্থ শ্রেণী কর্মচারী সমিতির সভাপতি আব্দুল হক, সম্পাদক নাজমুল   ●  ক্যাম্পের বাইরে সেমিনারে অংশ নিয়ে আটক ৩২ রোহিঙ্গা   ●  চেয়ারম্যান প্রার্থী সামসুল আলমের অভিযোগ;  ‘আমার কর্মীদের হুমকি-ধমকি দেয়া হচ্ছে’   ●  নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সবকিছু কঠোর থাকবে, অনিয়ম হলেই ৯৯৯ অভিযোগ করা যাবে   ●  উখিয়া -টেকনাফে শাসরুদ্ধকর অভিযানঃ  জি থ্রি রাইফেল, শুটারগান ও গুলিসহ গ্রেপ্তার ৫   ●  রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হেড মাঝিকে  তুলে নিয়ে   গুলি করে হত্যা   ●  যুগান্তর কক্সবাজার প্রতিনিধি জসিমের পিতৃবিয়োগ   ●  জোয়ারিয়ানালায় কিশোর গ্যাংয়ের হামলায় আহত রামু কলেজের অফিস সহায়ক

বাদশাঘোনায় জহিরের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ভূক্তভোগীদের

বার্তা পরিবেশক:

কক্সবাজার শহরের পুলিশ লাইন্স এলাকার পাশ্ববর্তি নতুন বাদশাঘোনা এলাকায় জহির নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মানববন্ধন করেছে ভূক্তভোগী এলাকাবাসী।
গতকাল বেলা ১১টায় কোট বিল্ডিং চত্ত্বরে উক্ত মানব বন্ধন অনুষ্টিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন, একই এলাকার ভূক্তভোগী সাইফুল ইসলাম, শহিদুল ইসলাম, মনির হোসেন, আবুল কালাম, এলম বাহার, সবুজ, জাহানারা সহ আরও অনেকে। ভূক্তভোগী এলাকাবাসী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, জহিরের কাছে জিম্মি থেকে নতুন বাদশাঘোনাবাসীকে রক্ষাকরণ সহ ওই জহির বাহিনীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের কাছে আবেদন জানান।
অভিযোগে প্রকাশ, নতুন বাদশাঘোনা এলাকায় জহির মনোরঞ্জনের জন্য এবং অবৈধ ব্যবসা নির্বিঘ্নে চালানোর জন্য অখ্যাত অন্ধকার জগতের মেয়েদের টাকার বিনিময় এনে আসর বসায়। এলাকায় কোন বাসিন্দা তাকে টাকা না দিয়ে বসবাস করতে পারেনা। তার ভয়ে এলাকার মহিলারা ঘর থেকে বের হতে পারেনা। তাকে নিয়মিত চাঁদা না দিলে অত্যাচারে থাকতে হয় অনেককে। তার ইচ্ছার বাইরে কেউ গেলে পড়তে হয় নানা সমস্যায়। তার ভয়ে কেউ মুখ খোলার সাহস পয়ানা। ভূক্তভোগীরা প্রশাসনের কাছে আকুল আবেদন জানিয়েছে ওই জহির গংকে আইনের আওতায় এনে অসহায় নতুন বাদশাঘোনাবাসীকে মুক্ত করতে জোরদাবী জানান ভূক্তভোগীরা। তারা আরও আশংকা করেন, হয়তো উক্ত মানব বন্ধনের কারণে পুরো এলাকাবাসী পুনরায় ওই জহির বাহিনীর হাতে নির্যাতিত হতে পারে। এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন পুরো এলাকাবাসী। এ বিষয়ে তারা প্রশাসনের হস্থক্ষেপ কামনা করছেন।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।