২৩ মে, ২০২৪ | ৯ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ | ১৪ জিলকদ, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সাঁড়াশি অভিযানে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গুলিসহ আরসা সন্ত্রাসী গ্রেপ্তার    ●  নবগঠিত ঈদগাঁও উপজেলার প্রথম নির্বাচনে সহিংসতায় যুবক খুন; বসতবাড়ি ভাংচুরের অভিযোগ    ●  এভারকেয়ার হসপিটালের শিশু হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. তাহেরা নাজরীন এখন কক্সবাজারে   ●  কালেক্টরেট চতুর্থ শ্রেণী কর্মচারী সমিতির সভাপতি আব্দুল হক, সম্পাদক নাজমুল   ●  ক্যাম্পের বাইরে সেমিনারে অংশ নিয়ে আটক ৩২ রোহিঙ্গা   ●  চেয়ারম্যান প্রার্থী সামসুল আলমের অভিযোগ;  ‘আমার কর্মীদের হুমকি-ধমকি দেয়া হচ্ছে’   ●  নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সবকিছু কঠোর থাকবে, অনিয়ম হলেই ৯৯৯ অভিযোগ করা যাবে   ●  উখিয়া -টেকনাফে শাসরুদ্ধকর অভিযানঃ  জি থ্রি রাইফেল, শুটারগান ও গুলিসহ গ্রেপ্তার ৫   ●  রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হেড মাঝিকে  তুলে নিয়ে   গুলি করে হত্যা   ●  যুগান্তর কক্সবাজার প্রতিনিধি জসিমের পিতৃবিয়োগ

বদি কি সংসদ সদস্য থাকতে পারবেন?তা নিয়ে বিভিন্ন প্রশ্ন!

bodi-1420620012
দুর্নীতি মামলায় দুই বছরের সাজা হওয়ার পর আওয়ামী লীগ নেতা আবদুর রহমান বদি আর সংসদ সদস্যপদ থাকবে কি না সে নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। সংবিধান অনুযায়ী ফৌজদারি মামলায় কারও দুই বছরের সাজা হলে তার সদস্যপদ থাকে না। তবে তিনি আপিল করলে এই রায় স্থগিত থাকবে কি না, সে বিষয়ে সংবিধানে কিছু বলা নেই।
বুধবার সকালে ঢাকার একটি আদালত অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় কক্সবাজার-৪ আসনের সংসদ সদস্য বদিকে তিন বছরের কারাদণ্ড দেন। সেই সঙ্গে তাকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও দুই বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়।সংবিধানের ৬৬ (২) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী, নৈতিক স্খলনজনিত কোনো ফৌজদারি অপরাধে দুই বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হলে কোনো ব্যক্তি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়া বা সংসদ সদস্য থাকার যোগ্যতা হারাবেন।
তাহলে আবদুর রহমান বদির কি সংসদ সদস্যপদ খালি হয়ে যাবে? জানতে চাইলে সাবেক আইনমন্ত্রী শফিক আহমেদ বলেন, ‘এখনো ওনার (বদি) আপিল করার অধিকার আছে। আপিল করলে মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত রায় স্থগিত থাকবে। সে ক্ষেত্রে তার সংসদ সদস্যপদ এখনই খালি হওয়ার কারণ নেই্।’তবে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, বদি আপিল করলেও তার সংসদ সদস্যপদ থাকার কারণ নেই। তিনি বলেন, ‘এই সংসদ সদস্য আপিল করলেও হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী থাকার কথা না। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কয়েকজন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিলের পর আমরা হাইকোর্টে গিয়ে পক্ষে রায় পাইনি। কারণ, আদালত বলেছে তারা সাজাপ্রাপ্ত।’তবে সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির বর্তমান সভাপতি ইউসুফ হোসেন হুমায়ূন বলছেন, বিচারিক আদালতের রায়ই চূড়ান্ত নয়। এখনও বদির আপিলের সুযোগ রয়েছে। উচ্চ আদালতের রায়ই হবে চূড়ান্ত। সেখানে মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত তার সংসদ সদস্য পদ নিয়ে প্রশ্ন উঠার সুযোগ নেই।
জাতীয় সংসদের কার্যপ্রণালি বিধিতে বলা হয়েছে, সংবিধানের ৬৬ (২) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী, কোনো সংসদ সদস্যকে তার পদে থাকার অযোগ্য মনে হলে সংবিধানের ৭০ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী এ বিষয়ে জানানোর জন্য স্পিকার নির্বাচন কমিশনের (ইসি) কাছে চিঠি দেবেন। তবে এ বিষয়ে এখনও কোনো উদ্যোগ নেই বলে জানিয়েছেন সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তারা। ঢাকাটাইমস

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।