৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ | ২৬ মাঘ, ১৪২৯ | ১৭ রজব, ১৪৪৪


শিরোনাম
  ●  চট্টগ্রামের বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ, এমপি মোসলেম উদ্দীনের মৃত্যুতে কক্সবাজার জেলা আ’লীগের শোক   ●  স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলামের সঙ্গে একান্তে সাক্ষাত এমপি জাফর আলমের   ●  কক্সবাজার সদর হাসপাতালে হয়রানি ও হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন   ●  প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমানোন্নয়নে কক্সবাজার পৌর এলাকায় চলছে দরিদ্রবান্ধব নগর পরিকল্পনা ও উন্নয়ন কাজ   ●  পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানে নিষিদ্ধ পলিথিন, হাইড্রোলিক হর্ণ জব্দ, জরিমানা   ●  বঙ্গবন্ধু ছিলেন বিশ্ব শ্রেষ্ঠ জাতীয়তাবাদের নেতা   ●  হাতের কব্জির রগ কেটে মোবাইল-ল্যাপটপ ছিনতাই   ●  কক্সবাজারে ইয়াবার মামলায় ৮ রোহিঙ্গার যাবজ্জীবন   ●  লোহাগাড়ায় পুলিশ কর্মকর্তার পরিবারকে ‘পেট্রোলের আগুনে’ পুড়িয়ে মারার চেষ্টা!   ●  চকরিয়ার সাহারবিলে সড়ক উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করলেন এমপি জাফর আলম

পেকুয়ায় যুবলীগের এক নেতার অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দিলেন ইউএনও

pic.pekua house-08-03-15
পেকুয়ার টইটং এ যুবলীগের এক নেতার অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মারুফুর রশিদ খান। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, ৮মার্চ সকাল ১১টার দিকে উপজেলার টইটং নাপিতখালী মৌলভী তোরাবউদ্দিন পাড়ায় টইটং ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি এনামের অবৈধ ভাবে নির্মানাধীন একটি ঘর ভেঙ্গে গুড়িয়েদেন ইউএনও মারুফুর রশিদ খাঁন। জানাযায়, এরশাদ আলী ওয়াকফ ষ্টেটের মালীকানাধীন ওই জায়গা জবর দখল করে এক সাপ্তাহ ধরে মাটি কেটে বসতঘর তৈরী করছিল যুবলীগ নেতা এনাম। ওই ষ্টেটের বর্তমান মতোয়াল্লী বাংলাদেশ সরকার পক্ষে পেকুয়ার ইউএনও নিজেই। পেকুয়ার ইউএনও মারুফুর রশিদ খাঁন বলেন, এনাম সরকারী জায়গা জবর দখল করে ঘর তৈরী করে বিক্রি করার পরিকল্পনায় একাজ করছিল এমন সংবাদ পেয়ে ওই স্থাপনা সরিয়ে নিতে বলার পর বাধ্য হয়ে সরকারী জায়গা জবর দখল মুক্ত করতে এ অভিযান চালানো হয়েছে। স্থানীয় লোকজন বলেন, এরশাদ আলী ওয়াকফ ষ্টেটের এ জায়গা বিগত ১শ বছর ধরে বংশ পরম্পরায় ষ্টেটকে খাজনা দিয়ে ভোগ দখল করে আসছে স্থানীয় বশির আহমদের ছেলে জাকের হোসেন ও জহির আহমদ। কিন্তু যুবলীগ নেতা এনাম দানু মিয়ার ছেলে জাগু মাঝি, মোসলেম উদ্দিনের ছেলে ফোরকান, হাছিম আলীর ছেলে সৈয়দ আহমদ জায়গাটি জবর দখল করে ঘর তৈরী করে আসছিল। জাকের হোসেনের স্ত্রী হোসনে আরা বলেন, জায়গাটি তার দাদা শশুড়ের আমল থেকে ষ্টেটকে খাজনা দিয়ে ভোগ করে আসছে। গত ৩বছর পূর্বে তাদের বসতঘর সংস্কারের জন্যে ঘরের ছালা খুললে এনাম সহ তার সহযোগীরা এখনো পর্যন্ত ঘরটি সংস্কার করতে দেয়নি। তিন বছর ধরে বৃষ্টিতে ভিজে ও রোদে শোকিয়ে বসবাস করে আসেছে। হঠাৎ করে তাদের জায়গার মাথাখিলায় এনাম, জাগুমাঝি ফোরকান ও সৈয়দ আহমদ বসতঘর তৈরী করলে ওয়াকফ ষ্টেটের মতোয়াল্লী ইউএনও পুলিশ নিয়ে ঘরটি গুড়িয়ে দেন। তিনি আরো বলেন, এনাম তার বাহিনীর লোকজন নিয়ে নিত্যদিন ছেলে মেয়ে নিয়ে বসতঘর ছেড়ে চলে যেতে হুমকি ধমকি দিয়ে আসছে কয়েকবার তাদের ওপর হামলাও করেছে তিনি সন্ত্রাসীদের হাত থেকে রেহায় পেতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।