২২ মে, ২০২৪ | ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ | ১৩ জিলকদ, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  নবগঠিত ঈদগাঁও উপজেলার প্রথম নির্বাচনে সহিংসতায় যুবক খুন; বসতবাড়ি ভাংচুরের অভিযোগ    ●  এভারকেয়ার হসপিটালের শিশু হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. তাহেরা নাজরীন এখন কক্সবাজারে   ●  কালেক্টরেট চতুর্থ শ্রেণী কর্মচারী সমিতির সভাপতি আব্দুল হক, সম্পাদক নাজমুল   ●  ক্যাম্পের বাইরে সেমিনারে অংশ নিয়ে আটক ৩২ রোহিঙ্গা   ●  চেয়ারম্যান প্রার্থী সামসুল আলমের অভিযোগ;  ‘আমার কর্মীদের হুমকি-ধমকি দেয়া হচ্ছে’   ●  নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সবকিছু কঠোর থাকবে, অনিয়ম হলেই ৯৯৯ অভিযোগ করা যাবে   ●  উখিয়া -টেকনাফে শাসরুদ্ধকর অভিযানঃ  জি থ্রি রাইফেল, শুটারগান ও গুলিসহ গ্রেপ্তার ৫   ●  রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হেড মাঝিকে  তুলে নিয়ে   গুলি করে হত্যা   ●  যুগান্তর কক্সবাজার প্রতিনিধি জসিমের পিতৃবিয়োগ   ●  জোয়ারিয়ানালায় কিশোর গ্যাংয়ের হামলায় আহত রামু কলেজের অফিস সহায়ক

পেকুয়ায় মাদকসেবী বখাটেদের উৎপাতে জিম্মি সাধারণ মানুষ

shomoy
পেকুয়ায় মাদকসেবী-বখাটেদের উৎপাতে জিম্মি ও অতিষ্ট হয়ে পড়েছে বারবাকিয়া-টইটং ও শিলখালীর সাধারণ মানূষ। স্বঃঘোষিত শক্তিধর এ বখাটে মাদকসেবীদের আইনের আমলে নেওয়ার দাবী জানিয়েছে ভুক্তভুগী এলাকাবাসী। উপজেলার শিলখালী ইউনিয়নের কাঁচারীমুরা, সবুজপাড়া, ছৈয়দনগর, কসাইপাড়া, ভারুয়াখালী ও তার আশেপাশে বসবাসকারী শত শত মানুষ নাম প্রকাশ না করার শর্তে সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন, তারা চিহ্নিত মাদকসেবী ও বখাটেদের কাছে দীর্ঘদিন ধরে জিম্মি। এদের উৎপাতে সর্বস্তরের মানূষ অতিষ্ট। চিহ্নিত এ মাদকসেবী ও বখাটের দল প্রায় প্রতিদিনই কোন না কোন রাতে সু’কৌশলে এলাকার নিরহ ও অসহায় লোকজনের বসতঘরে হানা দেয়। এসময় তারা বসতভিটার গাছপালা কেটে লুঠ পাঁচার ছাড়াও সামনে যা পায় তাই প্রকাশ্যে হাতিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। গত কিছুদিন পূর্বে সড়ক পাশর্^ ও তাদের ভিটা বাড়ির গাছপালাগুলোও কেটে নিয়ে যান। এছাড়া, বারবাকিয়া বাজারের ওয়ারেচী মঞ্জিল ও পাহাড়িয়াখালী এলাকায় প্রকাশ্য রাস্তায় শিলখালীর কাঁচারীমুরা ষ্টেশনের গরীব ফুল ঝাড়– ব্যবসায়ীদের মালবাহি গাড়ি থামিয়ে আটকানোর মাধ্যমে মোটাংকের চাঁদা দাবী ও আদায় করে আসছেন। অন্যদিকে, চিহ্নিত এই মাদকসেবী বখাটের দল বারবাকিয়া টইটং ইউনিয়নের পাহাড়ি লোকালয়ে নানা অসামাজিক কার্যকলাপের নেপথ্য নায়ক হিসাবে উৎপ্রোত ভাবে জড়িত। সেখানে সংরক্ষিত বন ভুমির গাছপালা কেটে নেয়া থেকে শুরু করে বন ও ভুমি দূস্যতা, নিরহ লোকজনের বাড়িঘর উচ্ছেদ, দখল-বেদখল, মা-বোনদের শালীনতা হানি সহ এমন কোন অপরাধ নেই যা তারা করছেনা। আর এসব অপরাধে জড়িতদের নেতৃত্ব দিয়ে থাকেন, বারবাকিয়া ইউনিয়নের পাহাড়িয়াখালী এলাকার ছৈয়দ নুরের পুত্র সাহাবউদ্দিন ও মৃত আলী আহমদের পুত্র মোঃ ইলিয়াছ। ভুক্তভুগীাদের অভিযোগ, চিহ্নিত এ মাদকসেবী ও বখাটেরদলকে বারবাকিয়া বাজারের প্রভাবশালী ওয়ারেচী মঞ্জিলে প্রকাশ্যে সার্বক্ষনিক অবস্থানে থাকতে দেখা গেলেও প্রশাসনের লোকজন নেয়না তাদের বিরুদ্ধে কোন ধরনের আইনগত ব্যবস্থা। এদিকে, বারবাকিয়া বাজারের অধিকাংশ ব্যবসায়ীরা সাংবাদিকদের অভিযোগ করে জানান, পেকুয়া সদর ইউনিয়নের মেহেরনামা মোছইন্নেকাটা এলাকার জসিম উদ্দিনের পুত্র প্রভাবশালী মাদক ব্যবসায়ী মোঃ এমরানকেও ওই অপরাধী চক্রের হোতাদের সাথে প্রকাশ্যে সার্বক্ষনিক অবস্থান নিয়ে পুরো উপজেলা জুড়ে মোটর বাইকে চড়ে চষে ঘুরে বেড়াতে দেখা গেলেও প্রশাসনের লোকজন নেই কোন আইনগত এ্যাকশান। এ বিষয়ে জানতে ওয়ারেচী মঞ্জিলের বাসিন্দা সাংষ্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সাইফুর রহমান ওয়ারেচীর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি নো কমেন্ট মন্তব্য করে আর কোন কথা বলতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।