১৭ জুন, ২০২৪ | ৩ আষাঢ়, ১৪৩১ | ১০ জিলহজ, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  উখিয়া-টেকনাফের ৫ শতাধিক তরুন-তরুণীকে কারিগরি প্রশিক্ষণ দিচ্ছে ‘সুশীলন’   ●  খাদ্যে ভেজাল রোধে সামাজিক আন্দোলন দরকার : খাদ্যমন্ত্রী   ●  ইজিবাইকের ছাদে তুলে ৮ বছরের শিশু নির্যাতন ভিডিও ভাইরাল: তিন অভিযুক্ত গ্রেপ্তার   ●  ভবিষ্যতে প্রেস কাউন্সিলের সার্টিফিকেট ছাড়া সাংবাদিকতা করা যাবে না   ●  একমাসেও অধরা ঘাতক চক্র, চাঞ্চল্যকর হত্যাকাণ্ডের অগ্রগতি নিয়ে পরিবারে হতাশ   ●  সমুদ্রকেই ঘিরে কক্সবাজারের অর্থনীতি   ●  সামাজিক কাজে বিশেষ অবদানের জন্য হাসিঘর ফাউন্ডেশনকে সম্মাননা স্মারক প্রদান   ●  ডা.আবু বকর ছিদ্দিক এর চতুর্থ  মৃত্যুবার্ষিকী শনিবার    ●  কক্সবাজারে আইএসইসি প্রকল্পের অধীনে যুবক-যুবতীদের প্রশিক্ষণ ও সনদ বিতরণ    ●  কক্সবাজারে শ্রেষ্ঠ সার্কেল রাসেল, ওসি মুহাম্মদ ওসমান গনি 

পেকুয়ায় ছন বোঝাই ট্রাকে দূর্বৃত্তদের অগ্নিসংযোগ!

1421495912
কক্সবাজারের পেকুয়ায় এবার ছনবোঝাই ট্রাকে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। তবে ড্রাইভার ও হেলপার অক্ষত অবস্থায় রক্ষা পেয়েছে। গত বৃহষ্পতিবার (১৯মার্চ) রাত আনুমানিক ১১ টায় উপজেলার সদর ইউনিয়নের নন্দীরপাড়া এলাকায় আঞ্চলিক মহাসড়কে এঘটনা ঘঠেছে। জানা যায়, চট্টগ্রামের বাঁশখালী থেকে ছনবোঝাই একটি ট্রাক আঞ্চলিক মহাসড়ক দিয়ে পেকুয়া হয়ে বদরখালী যাওয়ার পথে উপজেলা পেকুয়া সদর ইউনিয়নের নন্দিরপাড়া এলাকায় পৌছালে একদল দূর্বৃত্ত ট্রাকটি থামিয়ে চালকের কাছ থেকে চাঁদা দাবী করে। এসময় চালক ওই দূর্বৃত্তদলকে চাঁদা দিতে অপরাগতা জানালে ক্ষিপ্ত হয়ে দূর্বৃত্তরা ছনবোঝাই ট্রাকটিতে আগুন ধরিয়ে দেয়। খবর পেয়ে পেকুয়া ফায়ার সার্ভিসের অগ্নি নির্বাপক টিম ঘটনা স্থলে ছুটে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হন। অগ্নিকান্ডের শিকার ট্রাক নারায়নগঞ্জ-ঠ-১১-০৫১৩নং এর গাড়ির ড্রাইভার মোঃ শুক্কুর বাঁশখালী উপজেলার জলদীর শীলকুপ এলাকার নজির আহমদের পুত্র বলে জানা গেছে। পেকুয়া থানা পুলিশ তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। পরে, ট্রাকটি পুলিশের হেফাজতে থানায় নিয়ে আসা হয়। ওই ট্রাকের চালক মো. মোঃ শুক্কুর জানান, তিনি বাঁশখালী থেকে ছনভর্তি করে ট্রাক নিয়ে এবিসি সড়ক দিয়ে পেকুয়া হয়ে বদরখালী বাজারে যাচ্ছিলেন। এসময় পেকুয়া সদর ইউনিয়নের নন্দীরপাড়া এলাকার আঞ্চলিক মহাসড়কে পৌঁছালে হঠাৎ ৭/৮জন দূর্বৃত্ত তার গাড়ীর গতিরোধ করে দাড়ায়। পথরোধ করায় তিনি গাড়িটি থামালে দূর্বৃত্তরার তার কাছ থেকে মোটাংকের চাঁদা দাবী করেন। এসময় দূর্বুত্তরা ড্রাইভারের সাথে বচসায় জড়িয়ে পড়লে দূর্বৃত্তরা ট্রাকটিতে আগুন লাগিয়ে দিয়ে দ্রুত পালিয়ে যান। স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, বিএনপি-জামাতের টানা অবরোধ ও হরতালের সূযোগে সংঘবদ্ধ দূর্বৃত্তরা উপজেলার বিভিন্ন স্থানে প্রতিনিয়ত গাড়ি থামিয়ে প্রথমে মোটাংকের চাঁদা দাবী করেন। দাবীকৃত চাঁদা দিতে অপারগতা জানালে চালক হেলপারদের বেদড়ক মারধর ও সর্বস্ব ছিনিয়ে নেয়া ছাড়াও নির্বিচারে গাড়ি ভাংচুর এবং অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘঠাচ্ছেন। এ ব্যাপারে পেকুয়া থানার ওসি মো.আবদুর রকিব জানান, ট্রাকে আগুন দেওয়ার খবর পেয়ে নিজে সহ থানায় অবস্থানরত জেলা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার(সার্কেল) এম. মাসুদুল আলম সাহেব দ্রুত পর্যাপ্ত পুলিশ ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যাই। কিন্তু ততক্ষনে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে। হামলাকারীদের ধরতে সম্ভাব্য বিভিন্নস্থানে অভিযান অব্যাহত রেখেছে পুলিশ।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।