২০ এপ্রিল, ২০২৪ | ৭ বৈশাখ, ১৪৩১ | ১০ শাওয়াল, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  কক্সবাজার পৌরসভায় প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা তারিকুলের বরণ ও উপ-সহকারি প্রকৌশলী মনতোষের বিদায় অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত   ●  জলকেলি উৎসবের বিভিন্ন প্যান্ডেল পরিদর্শনে মেয়র মাহাবুব   ●  উখিয়া সার্কেল অফিস পরিদর্শন করলেন ডিআইজি নুরেআলম মিনা   ●  ‘বনকর্মীদের শোকের মাঝেও স্বস্তি, হত্যার ‘পরিকল্পনাকারি কামালসহ গ্রেপ্তার আরও ২   ●  উখিয়া নাগরিক পরিষদ এর ঈদ পুনর্মিলনী ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত   ●  আদালতে ফরেস্টার সাজ্জাদ হত্যার দায়স্বীকার সেই ডাম্পার চালক বাপ্পির   ●  ‘অভিযানে ক্ষুব্ধ, ফরেস্টার সাজ্জাদকে পূর্বপরিকল্পনায় হত্যা করা হয়’   ●  ফাঁসিয়াখালীতে পৃথক অভিযানে জবর দখল উচ্ছেদ, বালিবাহী ডাম্পার জব্দ   ●  অসহায়দের পাশে ‘রাবেয়া আলী ফাউন্ডেশন’   ●  ফরেস্টার সাজ্জাদ হত্যার মূল ঘাতক সেই বাপ্পী পুলিশের জালে

“পরকালের মুক্তির জন্য আল্লাহ ও রাসূল (সা.) এর পথে চলতে হবে”

Fainal 0101
বায়তুশ শরফের পীর ছাহেব বাহ্রুল উলুম আল্লামা শাহ্ মোহাম্মদ কুতুব উদ্দিন বলেন, মানুষের দু’টি জীবন একটি দুনিয়ার জীবন অপরটি পরকালের জীবন,দুনিয়ার জীবন ক্ষণস্থায়ী কিন্তু পরকালের জীবন চিরস্থায়ী। চিরস্থায়ী জীবনের সূখশান্তি নির্ভর করে দুনিয়ায় মানুষের সঠিক পথে জীবন যাপনের উপর। আল্লাহ এবং রাসূল(সা.) এর পথে চলা ছাড়া পরকালে নাযাতের কোন উপায় নেই। মাদ্রাসা এবং এতিমখানাকে কুরআনের বাগান অখ্যায়িত করে তিঁনি বলেন এই বাগানে যারা আসবে তারাই বেহেস্তের সুঘ্রাণ পাবে। সম্প্রতি চকরিয়া উপজেলাধীন জয়নাল আবেদীন মহিউচ্ছুন্নাহ্ দাখিল মাদ্রাসা,সিকদারপাড়া ছলিমুল উলুম এতিমখানা ও হেফজখানা এবং হযরত খদিজাতুল কোবরা (রাঃ) বালিকা এতিমখানার যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত বার্ষিক সভা ও ইছালে সওয়াব মাহফিলের চতুর্থ অধিবেশনে প্রধান অতিথির ভাষনে তিঁনি উপরোক্ত মত প্রকাশ করেন। সিকাদারপাড়া ছলিমুল উলুম এতিমখানা ও হেফজখানার সভাপতি অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মাওলানা জাফর আহমদ বদরীর সভাপতিত্বে অনুষ্টিত উক্ত মাহফিলে বাযতুশ শরফ কমপ্লেক্স কক্সবাজারের মহাপরিচালক আলহাজ্ব মাষ্টার সিরাজুল ইসলাম,চুনতি হাকিমিয়া আলীয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মাওলানা হাফিজুল হক নেজামী,দৈনিক নয়া দিগন্তের ব্যুরো চীফ্ আলহাজ্ব হেলাল হুমায়ুন, মুক্তিযোদ্ধা এস এম কামাল ও শাহজাদা আলহাজ্ব মাওলানা ছলাহ উদ্দিন মুহাম্মদ বেলাল বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। মাহফিলের শুরুতে বার্ষিক রিপোর্ট পাঠ করেন মাদ্রাসা এবং এতিমখানার প্রতিষ্ঠাতা আলহাজ্ব হাফেজ মোহাম্মদ আমান উল্লাহ।
মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা, কুমিল্লা অঞ্চলের উপ-পরিচালক এবং মাদ্রাসার সভাপতি মনোয়ারা বেগম এর সভাপতিত্বে (সকাল ১০ টায়) অনুষ্ঠিত প্রথম অধিবেশনে চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জাফর আলম বি.এ(অনার্স),এম.এ প্রধান অতিথি,চকরিযা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সাহেদুল ইসলাম, চট্টগ্রাম আইডিয়েল স্কুল এন্ড কলেজের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এ কে মাহমুদুল হক,চট্টগ্রাম মেরন সান স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ড. মোহাম্মদ সানাউল্লাহ ও পূর্ব বড়ভেওলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইব্রাহিম খলিল বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক নঈম কাদের,সোহেল মোহাম্মদ ফখরুদ-দ্বীন,ইঞ্জিনিয়ার নুরুচ্ছামাদ,মাষ্টার আবদুল মন্নান ও হাসানুল আবেদীন চৌধুরী (শুভ)। প্রথম অধিবেশনে মাদ্রাসা এবং এতিমখানার ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষকদের মাঝে ১৯৮ টি পুরস্কার বিতরণ করা হয়।
অধ্যক্ষ মাওলানা নুরুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে¡ (বাদ যোহর) অনুষ্টিত দ্বিতীয় অধিবেশনে কক্সবাজার জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক প্রীতম কুমার চৌধুরী প্রধান অতিথি এবং বাংলাদশ জাতীয় সমাজকল্যাণ পরিষদের সদস্য ইঞ্জিনিয়ার কানন পাল ও বড় মহেশখালী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোহাম্মদ শহিদ উল্লাহ বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।
অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মাওলানা রুহুল কুদ্দুস আনওয়ারীর সভাপতিত্বে (বাদ আছর) অনুষ্টিত তৃতীয় অধিবেশনে চট্টগ্রাম হযরত শাহ্ আমানত দরগাহ্ লেইনস্থ তনজিমুল মোছলেমীন এতিমখানার প্রতিষ্ঠাতা আলহাজ্ব হাকীম মাওলানা মোবারক আলী হেজাজী প্রধান অতিথি এবং বিশিষ্ট আলেমেদ্বীন ও সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাওলানা শফিক আহমদ,চট্টগ্রাম দারুল উলুম আলীয়া মাদ্রাসার মোহাদ্দেস আলহাজ্ব মাওলানা মকছুদ আহমদ,রাজাখালী ফাযিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা কফিল উদ্দিন ফারুক ও পালাকাটা দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাওলানা নুরুল হোসাইন বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।
চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জাফর আলম প্রথম অধিবেশনে প্রধান অতিথির ভাষনে বলেন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং এলাকার রাস্তাঘাটের সার্বিক উন্নয়নই আমার লক্ষ। তিনি সিকাদারপাড়া এতিমখানার বাউন্ডারি ওয়াল নির্মাণের জন্য ২ লক্ষ টাকা অনুদান ঘোষনা করেন এবং শিক্ষা কমপ্লেক্সে ২০১৫ সালের মধ্যে দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে একটি বহুতল ভবন নির্মাণ ও রামপুর থেকে সিকদারপাড়া এতিমখানা পর্যন্ত রাস্তার কার্পেটিং এর কাজ শুরু করার প্রতিশ্রুতি দেন।
কক্সবাজার জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক প্রীতম কুমার চৌধুরী দ্বিতীয় অধিবেশনে প্রধান অতিথির ভাষনে বলেন, মানুষের মাঝে প্রচেষ্টা ও সদিচ্ছা থাকলে যে কোন সেবামূলক কর্মকান্ড বাস্থবায়ন করা সম্ভব যার বাস্তব প্রমান সিকদারপাড়া ছলিমুল উলুম এতিমখানা,বালিকা এতিমখানা এবং মাদ্রাসা কমপ্লেক্স।
চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সাহেদুল ইসলাম বলেন, শিক্ষার ব্যাপক প্রসার ছাড়া দেশের উন্নয়ন সম্ভব নয়। সিকদারপাড়া শিক্ষা কমপ্লেক্সে একটি মাদ্রাসা,একটি বালক এতিমখানা ও একটি বালিকা এতিমখানায় বহুমূখী শিক্ষা বিস্তারের যে প্রচেষ্টা চলছে তাতে আমি মুগ্ধ ও অবিভূত। তিনি মাদ্রাসা ও এতিমখানায় সর্বাতœক সহযোগীতার আশ্বাস দেন।
মাহফিলে অন্যান্যদের মধ্যে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন মজলিসুল ওলামা বাংলাদেশের মহাসচিব আলহাজ্ব মাওলানা মামুনুর রশীদ নূরী, আলহাজ্ব মাওলানা ক্বাজী নাসির উদ্দিন, আলহাজ্ব মাওলানা ক্বাজী শিহাব উদ্দিন,আলহাজ্ব মাওলানা ফারুক হোসাইন,আলহাজ্ব মাওলানা ফেরদৌস আহমদ ও মাওলানা এহছানুল হক বদরী প্রমূখ।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।