২৩ মে, ২০২৪ | ৯ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ | ১৪ জিলকদ, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সাঁড়াশি অভিযানে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গুলিসহ আরসা সন্ত্রাসী গ্রেপ্তার    ●  নবগঠিত ঈদগাঁও উপজেলার প্রথম নির্বাচনে সহিংসতায় যুবক খুন; বসতবাড়ি ভাংচুরের অভিযোগ    ●  এভারকেয়ার হসপিটালের শিশু হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. তাহেরা নাজরীন এখন কক্সবাজারে   ●  কালেক্টরেট চতুর্থ শ্রেণী কর্মচারী সমিতির সভাপতি আব্দুল হক, সম্পাদক নাজমুল   ●  ক্যাম্পের বাইরে সেমিনারে অংশ নিয়ে আটক ৩২ রোহিঙ্গা   ●  চেয়ারম্যান প্রার্থী সামসুল আলমের অভিযোগ;  ‘আমার কর্মীদের হুমকি-ধমকি দেয়া হচ্ছে’   ●  নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সবকিছু কঠোর থাকবে, অনিয়ম হলেই ৯৯৯ অভিযোগ করা যাবে   ●  উখিয়া -টেকনাফে শাসরুদ্ধকর অভিযানঃ  জি থ্রি রাইফেল, শুটারগান ও গুলিসহ গ্রেপ্তার ৫   ●  রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হেড মাঝিকে  তুলে নিয়ে   গুলি করে হত্যা   ●  যুগান্তর কক্সবাজার প্রতিনিধি জসিমের পিতৃবিয়োগ

‘নির্বাচনী পরিবেশকে পক্ষপাতদুষ্ট ও আতঙ্কগ্রস্ত করে তুলেছে সরকার’

'নির্বাচনী পরিবেশকে পক্ষপাতদুষ্ট ও আতঙ্কগ্রস্ত করে তুলেছে সরকার'
আসন্ন সিটি নির্বাচনে বিরোধী প্রার্থীদের বেলায় সুষ্ঠু আচরণবিধি পালনের মাধ্যমে নির্বাচনী প্রচারণা চালানোর কিঞ্চিত সুযোগও দেয়া হচ্ছেনা। পাশাপাশি সরকার কর্তৃক বিরোধী প্রার্থী ও সমর্থক নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বিভিন্ন মিথ্যা ও বানোয়াট মামলা মোকদ্দমা দিয়ে হয়রানী করছে। বিরোধী নেতা-কর্মীদের নির্বিঘ্নে চলাচল ও নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণের ক্ষেত্রে সরকারের মন্ত্রী, এমপি ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর উর্দ্ধতন কর্তাব্যক্তিদের কঠোর হুঁশিয়ারী নির্বাচনী পরিবেশকে আরো বেশী মাত্রায় পক্ষপাতদুষ্ট ও আতঙ্কগ্রস্ত করে তুলেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব ও ২০ দলের মুখপাত্র বরকত উল্লাহ বুলু।

সোমবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করেছেন। এ সময় তিনি বলেন, আমরা বহুবার বলে এসেছি-বর্তমান অবৈধ ও জনবিচ্ছিন্ন সরকারের নিকট কখনোই অবাধ, নিরপেক্ষ ও সবার নিকট গ্রহণযোগ্য নির্বাচন আশা করা যায়না।

আর এ কারণেই ২০ দলীয় জোট জনগণকে সাথে নিয়ে মানুষের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য আন্দোলন সংগ্রাম অব্যাহত রেখেছে।

২০ দলের এই মুখপাত্র বলেন, গণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থায় সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচনের মাধ্যমেই একটি দেশের সরকার ও জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হয়। এদেশের স্বাধীনতার বীজ বপনে গোপন ব্যালটে ভোট প্রদানের মাধ্যমেই বাংলার জনগণ ভুমিকা রেখেছিল।

পৃথিবীর বিভিন্ন গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে গোপন ব্যালটে অবাধ ও নিরপেক্ষ ব্যবস্থায় ভোট প্রদানের দ্বারা রাষ্ট্রীয় ও স্থানীয় পছন্দের জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হয়ে থাকে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

বরকত উল্লাহ বুলু বলেন, কিন্তু বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক দেশ হওয়া সত্ত্বেও জনপ্রতিনিধি নির্বাচনে আজ নাগরিকের ভোট দেয়ার অধিকার হারিয়ে গেছে। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারীর প্রহসনের জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর এই ভোটাধিকার হরণের দস্যুতা আরো প্রকট হয়েছে।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।