১৫ জুন, ২০২৪ | ১ আষাঢ়, ১৪৩১ | ৮ জিলহজ, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  উখিয়া-টেকনাফের ৫ শতাধিক তরুন-তরুণীকে কারিগরি প্রশিক্ষণ দিচ্ছে ‘সুশীলন’   ●  খাদ্যে ভেজাল রোধে সামাজিক আন্দোলন দরকার : খাদ্যমন্ত্রী   ●  ইজিবাইকের ছাদে তুলে ৮ বছরের শিশু নির্যাতন ভিডিও ভাইরাল: তিন অভিযুক্ত গ্রেপ্তার   ●  ভবিষ্যতে প্রেস কাউন্সিলের সার্টিফিকেট ছাড়া সাংবাদিকতা করা যাবে না   ●  একমাসেও অধরা ঘাতক চক্র, চাঞ্চল্যকর হত্যাকাণ্ডের অগ্রগতি নিয়ে পরিবারে হতাশ   ●  সমুদ্রকেই ঘিরে কক্সবাজারের অর্থনীতি   ●  সামাজিক কাজে বিশেষ অবদানের জন্য হাসিঘর ফাউন্ডেশনকে সম্মাননা স্মারক প্রদান   ●  ডা.আবু বকর ছিদ্দিক এর চতুর্থ  মৃত্যুবার্ষিকী শনিবার    ●  কক্সবাজারে আইএসইসি প্রকল্পের অধীনে যুবক-যুবতীদের প্রশিক্ষণ ও সনদ বিতরণ    ●  কক্সবাজারে শ্রেষ্ঠ সার্কেল রাসেল, ওসি মুহাম্মদ ওসমান গনি 

নিরাপদ সড়কের দাবিতে সদরের ১৫ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মানবন্ধন

কক্সবাজার সদরের বাস টার্মিনাল হতে খরুলিয়া বাজার পযর্ন্ত মহাসড়কে ১৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নিরাপদ সড়কের দাবিতে মানববন্ধন সম্পন্ন করেছে। এতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছাড়াও বিভিন্ন ক্রীড়া সংগঠন ও সমবায় সমিতি অংশগ্রহন করে নিরাপদ সড়কের দাবিতে।

এবং গত ২৮ নভেম্বর ঘটে যাওয়া দূর্ঘটনার ঘাতক অবৈধ ডাম্পারের ড্রাইভার মালিকদের শাস্তির দাবিতে ১ ঘন্টা সড়কের পাশে নিরব অবস্থান করেছেন সকলে। সোমবার সকাল ৯:৩০ মিনিটের সময় শুরু করে ১০:৩০ মিনিট পযর্ন্ত সড়কের পাশে সকল শিক্ষার্থী,শিক্ষকবৃন্দ,অভিভাবক সহ সাধারন মানুষের অবস্থান ছিল চোখে পড়ার মত।

নিরাপদ সড়ক চাই,ঘাতক ডাম্পার মালিকদের বিচার চাই,ঘাতক চালকের অবিলম্বে গ্রেফতার চাই,নতুন সড়ক আইন বাস্তবায়ন চাই সহ অনেক শ্লোগান ধারন করা প্লেকার্ড নিয়ে শিক্ষার্থীরা মানববন্ধনে অবস্থান করেছেন। ফাহাদের সহপাঠিদের একটাই দাবি,নিরাপদে চলবে গাড়ি,নিরাপদে ফিরবো বাড়ি।

উক্ত মানববন্ধনে সরকারের চলমান সড়কের নতুন আইনের প্রশংসা করেন উপস্থিত সকলে। প্রতিটা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে স্পীড ব্রেকার,ট্রাফিক পুলিশ জোরদার, মহা সড়কে বেপরোয়া গতির অবৈধ ঘাতক ডাম্পারের ড্রাইভার ও মালিকের শাস্তি দাবি করেছেন তারা। রেজিষ্ট্রেশনবিহীন যানবাহন বন্ধ করা।প্রশাসনের টোকেন বাণিজ্য বন্ধ করা।এবং অনতিবিলম্বে ঘাতক ডাম্পারের ড্রাইভার ও কোম্পানীকে আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের প্রতি দাবি জোর দাবি জানিয়েছেন। গত ২৮ নভেম্বর দূর্ঘটনায় নিহত আবুল বশর ও ইফরাদুল আলম ফাহাদের পরিবারকে ক্ষতিপূরন দেওয়ার জোর দাবি জানিয়েছেন মানববন্ধনকারীরা।

বর্তমান সড়ক আইন বাস্তবায়ন ও দূর্ঘটনা এড়াতে বিভিন্ন দাবি নিয়ে বক্তব্য রাখেন,কক্সবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ফজলুল করিম চৌধুরী,ঝিলংজা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান টিপু সুলতান, ঝিলংজা ৬নং ওয়ার্ডের মেম্বার নাছির উদ্দীন, খরুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জনাব জহিরুল হক, আইডিয়াল ইনস্টিটিউট অধ্যক্ষ মিজানুর রহমান, সম্প্রীতি যুব সমবায় সমিতির  সিনিয়র উপদেষ্টা এডভোকেট নাছির,আমিনুর রশিদ, সভাপতি শহিদ উল্লাহ,ঝিলংজা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতাকর্মী,সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক মুন্না চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান, বীর প্রতীক পুত্র শ্রমিক নেতা খোরশেদুল হক,আনন্দ ক্রীড়া সংস্থার উপদেষ্টা নুরুল আজিম সহ স্থানীয় অনেক মান্যগন্য ব্যক্তিবর্গ। উক্ত মানববন্ধন সম্প্রীতি সমবায় সমিতির সাধারন সম্পাদক দিদারুল আলমের সঞ্চালনায় সমাপ্তি ঘটে।

মানববন্ধনে সদরের মহাসড়কের পাশে অবস্থিত ১৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সহ ৪টি অন্যান্য সংগঠন অংশ গ্রহণ করেছেন।যথাক্রমে, কক্সবাজার সরকারি কলেজ, ইলিয়াছ মিয়া চৌ: উচ্চ বিদ্যালয়,এজি মডেল স্কুল,বীচ পাবলিক স্কুল,আইডিয়াল ইনস্টিটিউট,আইডিয়াল কেজি স্কুল,বাংলাবাজার কেজি স্কুল,বাংলাবাজার মডেল গালর্স স্কুল,বাংলাবাজার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়,মোক্তারকুল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,হযরত আয়েশা ছিদ্দীকা (র:)বালিকা আলিম মাদরাসা,ছুরতিয়া সিনিয়র মাদরাসা,খরুলিয়া সরকারি প্রাইমারী স্কুল,খরুলিয়া তালিমুল কোরান মাদরাসা ও খরুলিয়া কেজি এবং খরুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়।

এছাড়াও আনন্দ ক্রীড়া সংস্থা,আশাবাদী ক্রীড়া সংস্থা,স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন উপকার, মোক্তারকুল বহুমুখী সমবায় সমিতির সকল সদস্যবৃন্দ নিরাপদ সড়কের দাবিতে মানববন্ধনে অংশগ্রহন করেছেন। সার্বিক সহযোগিতায় ও তত্ত্ববধানে মোক্তারকুল সম্প্রীতি যুব সমবায় সমিতির সকল সদস্যবৃন্দ ।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।