২২ মে, ২০২৪ | ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ | ১৩ জিলকদ, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  নবগঠিত ঈদগাঁও উপজেলার প্রথম নির্বাচনে সহিংসতায় যুবক খুন; বসতবাড়ি ভাংচুরের অভিযোগ    ●  এভারকেয়ার হসপিটালের শিশু হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. তাহেরা নাজরীন এখন কক্সবাজারে   ●  কালেক্টরেট চতুর্থ শ্রেণী কর্মচারী সমিতির সভাপতি আব্দুল হক, সম্পাদক নাজমুল   ●  ক্যাম্পের বাইরে সেমিনারে অংশ নিয়ে আটক ৩২ রোহিঙ্গা   ●  চেয়ারম্যান প্রার্থী সামসুল আলমের অভিযোগ;  ‘আমার কর্মীদের হুমকি-ধমকি দেয়া হচ্ছে’   ●  নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সবকিছু কঠোর থাকবে, অনিয়ম হলেই ৯৯৯ অভিযোগ করা যাবে   ●  উখিয়া -টেকনাফে শাসরুদ্ধকর অভিযানঃ  জি থ্রি রাইফেল, শুটারগান ও গুলিসহ গ্রেপ্তার ৫   ●  রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হেড মাঝিকে  তুলে নিয়ে   গুলি করে হত্যা   ●  যুগান্তর কক্সবাজার প্রতিনিধি জসিমের পিতৃবিয়োগ   ●  জোয়ারিয়ানালায় কিশোর গ্যাংয়ের হামলায় আহত রামু কলেজের অফিস সহায়ক

নিরাপত্তা পেলে আদালতে যাবেন খালেদা জিয়া

 

 

 

 

 

 

 

 

পর্যাপ্ত নিরাপত্তা পেলে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ৫ এপ্রিল রোববার আদালতে যাবেন বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবী সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি খন্দকার মাহবুব হোসেন।

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনের দায়ের করা দুই মামলার শুনানির জন্য ওইদিন বিচারিক আদালতে দিন ধার্য রয়েছে। এর আগে গত ২৫ ফেব্রুয়ারি মামলা দুটিতে আদালত খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছিল।

এ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন বৃহস্পতিবার দুপুরে সুপ্রীমকোর্ট আইনজীবী সমিতির নিজ চেম্বারে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, ‘পর্যাপ্ত নিরাপত্তা পেলে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়া আদালতে যাবেন।’

কেন নিরাপত্তা প্রয়োজন সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, খালেদা জিয়া এর আগে আদালতে হাজিরা দিতে গেলে তার গাড়িবহরে হামলা হয়েছে।

খন্দকার মাহবুব বলেন, ‘খালেদা জিয়া সবসময় আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তিনি আদালতে যেতে চান। আর পর্যাপ্ত নিরাপত্তা পেলে তিনি অবশ্যই আদালতে যাবেন। সরকারের দায়িত্ব তাকে নিরাপত্তা দেওয়া। কেননা এর আগে আদালতে যাওয়ার সময় তার গাড়িবহরের উপর হামলা করা হয়েছিল।’
তিনি বলেন, ‘ওই মামলায় অনাস্থার দুটি আবেদন হাইকোর্টে শুনানির অপেক্ষায় রয়েছে।’

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।