২৫ এপ্রিল, ২০২৪ | ১২ বৈশাখ, ১৪৩১ | ১৫ শাওয়াল, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  কক্সবাজারে সড়ক দুর্ঘটনা রোধ, শৃংখলা জোরদারের  লক্ষ্যে মোবাইল কোর্ট, জরিমানা   ●  রামুতে নিরাপদ পানি ও উন্নত স্যানিটেশন  সুবিধা পেয়েছে ৫০ হাজার মানুষ     ●  কক্সবাজারে ছাত্রলীগের ৫ লক্ষ গাছ লাগনোর উদ্যোগ   ●  মহেশখালীতে সাংসদের বিরুদ্ধে নির্বাচনী পরিবেশ বিনষ্টের অভিযোগ    ●  জেএস‌আরের বিরুদ্ধে উঠা সকল অভিযোগ কে অপপ্রচার বলে দাবি সভাপতি জসিমের   ●  ‘দশ হাজার ইয়াবা গায়েব, আটক  সিএনজি জিডিমূলে জব্দ   ●  বাংলাদেশ ফরেস্ট রেঞ্জার’স ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা   ●  কক্সবাজার পৌরসভায় প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা তারিকুলের বরণ ও উপ-সহকারি প্রকৌশলী মনতোষের বিদায় অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত   ●  জলকেলি উৎসবের বিভিন্ন প্যান্ডেল পরিদর্শনে মেয়র মাহাবুব   ●  উখিয়া সার্কেল অফিস পরিদর্শন করলেন ডিআইজি নুরেআলম মিনা

নাইক্ষ্যংছড়িতে পরকিয়া প্রেমের টানা ওরা দু’জন নেটওয়ার্কের বাইরে

Prem news
প্রেম বয়স, জাতভেদ কিছুই মানেনা। তাইতো পরকিয়া প্রেমের টানে প্রবাসীর তিন সন্তান রেখে প্রতিবেশী যুবকের হাত ধরে ওরা দু’জন চলে গেছে নের্টওয়ার্কের বাইরে। তৃতীয় শ্রেণীতে দুইজন ও প্রথম শ্রেণীতে পড়–য়া এক শিশু ও স্বামী-সংসার ছেড়ে লাকিছা তংচংগ্যা (২৮) অজানার উদ্দেশ্যে পাড়ি দেওয়ার ঘটনাটি এলাকায় হাস্যরস্যের সৃষ্টি হয়েছে। আবার অনেকে অসহায় তিন সন্তানের ভবিষ্যতের বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন। ২০ এপ্রিল ঘটনাটি ঘটেছে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের মনজয়পাড়া এলাকায়।
থানায় দেওয়া লিখিত অভিযোগ ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের মনজয়পাড়া গ্রামের মৃত লাভাই অং তংচংগ্যার ছেলে লাতুমং তংচংগ্যার সাথে একই ইউনিয়নের বড়ইতলী গ্রামের মৃত নিতাই অং তংচংগ্যার মেয়ে লাকিছা তংচংগ্যার মধ্যে প্রায় ১৪ বছর পূর্বে বিবাহ হয়। সংসার জীবনে তাদের পরিবারে জীবন তংচংগ্যা (১১), কান্তি তংচংগ্যা (৮) ও বাপ্পি তংচংগ্যা (৫) নামে তিন সন্তান আছে। গত দুই বছর যাবত লাতুমং তংচংগ্যা মালেশিয়ায় অবস্থান করে আসছে। এ সুযোগে তাঁর স্ত্রী লাকিছা তংচংগ্যা তার প্রতিবেশী লেড়াইয়া প্রকাশ বাবু তংচংগ্যার সাথে পরকিয়া প্রেম আসক্ত হয়ে পড়ে। আর প্রেমের সম্পর্ক ধরে রাখতে গত ২০ এপ্রিল ২০১৫ তারা দুইজন অজানার উদ্দেশ্যে পাড়ি জমায়। পালানোর আগের দিন লাকিছা ইসলামী ব্যাংকের, কোট বাজার শাখার- ৭৯৫৮ নং হিসাব থেকে ৭৪ হাজার টাকা, স্বর্ণলংকার, বন্ধক নেওয়া জমি বাবদ ৫৫ হাজার টাকাসহ বিভিন্ন মূল্যবান জিনিসপত্রও নিয়ে যায়।
এ ব্যাপারে স্থানীয় গ্রাম পুলিশ প্রধান ছৈয়দ আলম এ প্রতিবেদককে জানান, অসহায় তিন শিশুকে রেখে পালিয়ে যাওয়ার বিষয়টি সচেতন মানুষকে নাড়া দিয়েছে। ঘটনার পর থেকে পালিয়ে যাওয়া এই দুইজনের মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। যার কারনে প্রবাসী স্বামী লাতুমং এর পক্ষে তার ভাই চাইহ্লা তংচংগ্যা ২৭ এপ্রিল ২০১৫ নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় একটি অভিযোগপত্র দায়ের করেছেন।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।