৩০ জানুয়ারি, ২০২৩ | ১৬ মাঘ, ১৪২৯ | ৭ রজব, ১৪৪৪


শিরোনাম
  ●  হাতের কব্জির রগ কেটে মোবাইল-ল্যাপটপ ছিনতাই   ●  কক্সবাজারে ইয়াবার মামলায় ৮ রোহিঙ্গার যাবজ্জীবন   ●  লোহাগাড়ায় পুলিশ কর্মকর্তার পরিবারকে ‘পেট্রোলের আগুনে’ পুড়িয়ে মারার চেষ্টা!   ●  চকরিয়ার সাহারবিলে সড়ক উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করলেন এমপি জাফর আলম   ●  রাইজিংবিডির বর্ষাসেরা প্রতিবেদক তারেককে আরইউসির শুভেচ্ছা   ●  স্ট্রীটফুড ও ড্রাই ফিস প্রশিক্ষাণার্থীদের মধ্যে সার্টিফিকেট বিতরণ ও সাপোর্ট প্রদান   ●  রামুতে দুই শতাধিক মানুষ বিনামূল্যে পেল স্বাস্থ্যসেবা ও ওষুধ   ●  সেন্টমার্টিনে রিসোর্ট নির্মাণ কাজ বন্ধের নির্দেশ দিলেন পরিবেশ অধিদপ্তর   ●  তত্ত্বাবধায়কের কাছে ভুক্তভোগীর আবেদন চিকিৎসার জন্য টাকা দাবি করলো নার্স, হুমকির অভিযোগ   ●  ডিজিটাল আইল্যান্ডকে স্মার্ট আইল্যান্ডে পরিণত করার পেছনের গল্প রচনা করবে ছাত্রলীগ

টেকনাফকে মাদক চোরাচালান ও রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশমুক্ত করতে সবার সহযোগিতা প্রয়োজন

shomoy
সীমান্ত জনপদ টেকনাফে বিজিবির উদ্যোগে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশরোধ কল্পে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ প্রতিরোধ বিষয়ক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কক্সবাজারের সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল খালেকুজ্জামান পিএসসি বলেছেন সর্বস্তরের মানুষের সহযোগিতা পেলে টেকনাফকে চোরাচালান, মাদক ও অবৈধ অনুপ্রবেশ মুক্ত করে আধুনিক উপজেলা হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব। আর রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশে সীমান্ত রক্ষী কোন জওয়ানের সম্পৃক্ততা থাকলে ছাড় দেওয়া হবেনা।
৩০ মার্চ সকাল ১১টায় টেকনাফ ৪২ বিজিবি ব্যাটেলিয়নের সদর বিওপির এজাহার কোম্পানী মাঠে আয়োজিত সীমান্তে অবৈধ অনুপ্রবেশ বিষয়ক সভা ব্যাটেলিয়ন অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল আবুজার আল জাহিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। উপাধিনায়ক আবু রাসেল ছিদ্দিকীর পরিচালনায় এতে প্রধান অতিথি ছিলেন কক্সবাজারের সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল খালেকুজ্জামান পিএসসি। বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক সাংসদ ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আলহাজ্ব অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী, এডিসি ডঃ অনুপম সাহা,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তোফায়েল আহমেদ, টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ মুজাহিদ উদ্দিন। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন টেকনাফ পৌর মেয়র হাজী মুহাম্মদ ইসলাম, টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আতাউর রহমান খোন্দকার ও সদর ইউপির চেয়াম্যান নুরুল আলমসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, জনপ্রতিনিধি, গণ-মাধ্যমকর্মী ও সুশীল সমাজের লোকজন উপস্থিত ছিলেন। এ সময় প্রধান অতিথি বলেন টেকনাফকে চোরাচালান,মাদক ও অবৈধ অনুপ্রবেশমুক্ত করতে সবার সহযোগিতা কামনা করেন উপরোক্ত কথা বলেন। গত ২০১৪ইং সালে ৩ হাজার ২শ রোহিঙ্গা স্বদেশে ফেরত পাঠানো হয় এবং চলতি বছরের বিগত ৩ মাসে ১ হাজার ৬শ ১৯ জনকে স্বদেশে ফেরত পাঠানো হয়। যা আনুপাতিক হারে গত বছরের তুলনায় বেড়েছে। তাই আমরা সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে অবৈধ অনুপ্রবেশরোধ করতে হবে। এছাড়া রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশে জড়িত থাকার প্রমান পেলে যেই হোকনা কেন কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণের হুশিয়ারী উচ্চারণ করেন।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।