১৯ এপ্রিল, ২০২৪ | ৬ বৈশাখ, ১৪৩১ | ৯ শাওয়াল, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  কক্সবাজার পৌরসভায় প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা তারিকুলের বরণ ও উপ-সহকারি প্রকৌশলী মনতোষের বিদায় অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত   ●  জলকেলি উৎসবের বিভিন্ন প্যান্ডেল পরিদর্শনে মেয়র মাহাবুব   ●  উখিয়া সার্কেল অফিস পরিদর্শন করলেন ডিআইজি নুরেআলম মিনা   ●  ‘বনকর্মীদের শোকের মাঝেও স্বস্তি, হত্যার ‘পরিকল্পনাকারি কামালসহ গ্রেপ্তার আরও ২   ●  উখিয়া নাগরিক পরিষদ এর ঈদ পুনর্মিলনী ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত   ●  আদালতে ফরেস্টার সাজ্জাদ হত্যার দায়স্বীকার সেই ডাম্পার চালক বাপ্পির   ●  ‘অভিযানে ক্ষুব্ধ, ফরেস্টার সাজ্জাদকে পূর্বপরিকল্পনায় হত্যা করা হয়’   ●  ফাঁসিয়াখালীতে পৃথক অভিযানে জবর দখল উচ্ছেদ, বালিবাহী ডাম্পার জব্দ   ●  অসহায়দের পাশে ‘রাবেয়া আলী ফাউন্ডেশন’   ●  ফরেস্টার সাজ্জাদ হত্যার মূল ঘাতক সেই বাপ্পী পুলিশের জালে

টেকনাফকে মাদক চোরাচালান ও রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশমুক্ত করতে সবার সহযোগিতা প্রয়োজন

shomoy
সীমান্ত জনপদ টেকনাফে বিজিবির উদ্যোগে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশরোধ কল্পে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ প্রতিরোধ বিষয়ক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কক্সবাজারের সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল খালেকুজ্জামান পিএসসি বলেছেন সর্বস্তরের মানুষের সহযোগিতা পেলে টেকনাফকে চোরাচালান, মাদক ও অবৈধ অনুপ্রবেশ মুক্ত করে আধুনিক উপজেলা হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব। আর রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশে সীমান্ত রক্ষী কোন জওয়ানের সম্পৃক্ততা থাকলে ছাড় দেওয়া হবেনা।
৩০ মার্চ সকাল ১১টায় টেকনাফ ৪২ বিজিবি ব্যাটেলিয়নের সদর বিওপির এজাহার কোম্পানী মাঠে আয়োজিত সীমান্তে অবৈধ অনুপ্রবেশ বিষয়ক সভা ব্যাটেলিয়ন অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল আবুজার আল জাহিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। উপাধিনায়ক আবু রাসেল ছিদ্দিকীর পরিচালনায় এতে প্রধান অতিথি ছিলেন কক্সবাজারের সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল খালেকুজ্জামান পিএসসি। বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক সাংসদ ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আলহাজ্ব অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী, এডিসি ডঃ অনুপম সাহা,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তোফায়েল আহমেদ, টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ মুজাহিদ উদ্দিন। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন টেকনাফ পৌর মেয়র হাজী মুহাম্মদ ইসলাম, টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আতাউর রহমান খোন্দকার ও সদর ইউপির চেয়াম্যান নুরুল আলমসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, জনপ্রতিনিধি, গণ-মাধ্যমকর্মী ও সুশীল সমাজের লোকজন উপস্থিত ছিলেন। এ সময় প্রধান অতিথি বলেন টেকনাফকে চোরাচালান,মাদক ও অবৈধ অনুপ্রবেশমুক্ত করতে সবার সহযোগিতা কামনা করেন উপরোক্ত কথা বলেন। গত ২০১৪ইং সালে ৩ হাজার ২শ রোহিঙ্গা স্বদেশে ফেরত পাঠানো হয় এবং চলতি বছরের বিগত ৩ মাসে ১ হাজার ৬শ ১৯ জনকে স্বদেশে ফেরত পাঠানো হয়। যা আনুপাতিক হারে গত বছরের তুলনায় বেড়েছে। তাই আমরা সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে অবৈধ অনুপ্রবেশরোধ করতে হবে। এছাড়া রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশে জড়িত থাকার প্রমান পেলে যেই হোকনা কেন কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণের হুশিয়ারী উচ্চারণ করেন।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।