১৭ জুন, ২০২৪ | ৩ আষাঢ়, ১৪৩১ | ১০ জিলহজ, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  উখিয়া-টেকনাফের ৫ শতাধিক তরুন-তরুণীকে কারিগরি প্রশিক্ষণ দিচ্ছে ‘সুশীলন’   ●  খাদ্যে ভেজাল রোধে সামাজিক আন্দোলন দরকার : খাদ্যমন্ত্রী   ●  ইজিবাইকের ছাদে তুলে ৮ বছরের শিশু নির্যাতন ভিডিও ভাইরাল: তিন অভিযুক্ত গ্রেপ্তার   ●  ভবিষ্যতে প্রেস কাউন্সিলের সার্টিফিকেট ছাড়া সাংবাদিকতা করা যাবে না   ●  একমাসেও অধরা ঘাতক চক্র, চাঞ্চল্যকর হত্যাকাণ্ডের অগ্রগতি নিয়ে পরিবারে হতাশ   ●  সমুদ্রকেই ঘিরে কক্সবাজারের অর্থনীতি   ●  সামাজিক কাজে বিশেষ অবদানের জন্য হাসিঘর ফাউন্ডেশনকে সম্মাননা স্মারক প্রদান   ●  ডা.আবু বকর ছিদ্দিক এর চতুর্থ  মৃত্যুবার্ষিকী শনিবার    ●  কক্সবাজারে আইএসইসি প্রকল্পের অধীনে যুবক-যুবতীদের প্রশিক্ষণ ও সনদ বিতরণ    ●  কক্সবাজারে শ্রেষ্ঠ সার্কেল রাসেল, ওসি মুহাম্মদ ওসমান গনি 

জেলাব্যাপী কবিরাজী চিকিৎসার নামে নয়া প্রতারণার ফাঁদ!

images
জেলাব্যাপী কবিরাজী লতাপাতা ঔষুধি চিকিৎসার নামে চলছে নয়া প্রতারণার ফাঁদ! এসব প্রতারণা ব্যবসার প্রচার প্রসার ঘটাতে বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার গেইট, জনসমাগম এলাকায়, বিভিন্ন ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠানের দেয়াল সহ নানা প্রচার মাধ্যম হিসেবে কুরুচিপূর্ণ পোষ্টার ও হ্যান্ডবিল প্রচার থেমে নেই নানা স্থানে। শিক্ষার্থী সহ অনেক অভিভাবক এসব প্রচারপত্র দেখে নানা করুন পরিস্থিতিতে পড়ে যাচ্ছে। পাশাপাশি জেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগের শীঘ্রই এসব লতাপাতা ঔষুধি চিকিৎসালয়ের বিরুদ্ধে অভিযানও দাবী করেছেন। নিরীহ মানুষ এসব কবিরাজী ঔষুধি লতাপাতার নামে  ভেজাল ঔষুধ খেয়ে নানান কঠিন  রোগে ভোগছেন বলে জানান অনেকে। এমনকি-গ্রামগঞ্জের অসহায় মানুষই সব চেয়ে বেশী প্রতারণার শিকার হচ্ছে। জেলায় যত্রতত্র স্থানে এসব কতিপয় লতাপাতার নামে চিকিৎসা কেন্দ্র গুলোকে নিয়ে সচেতন মহলের মাঝে নানান প্রশ্নের ঘুরপাক খাচ্ছে প্রতিনিয়ত। এসব অপ-চিকিৎসা থেকে কবে মুক্তি পাবে নিরীহ সমাজ? আরো জানা যায়, নানা অখ্যাত-কুখ্যাত লতাপাতার নামে ঔষুধি কেন্দ্র গুলোর পরিচিতির স্বার্থে প্রতি হাট বাজারের দিন তাদের নিজস্ব লোক দিয়ে পোষ্টার, রংবেরঙ্গের হ্যান্ডবিল বিতরণ করে চলেছে নানা যানবাহন ও জেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে এবং বাজার কিংবা জনবহুল এলাকায়। আবার, জেলা শহর সহ উপজেলার বিভিন্ন জনগুরুত্বপূর্ণ এলাকায় হরেক রকম প্রচারপত্রে এসব কতিপয় চিকিৎসক যৌন দূর্বলতার চিকিৎসার নামে পুরুষ-মহিলা কিংবা তরুণ-তরুণীদের নানা উপায়ে লোভে ফেলার প্রাণপর চেষ্টা অব্যাহত থাকে। অন্যদিকে, হরেক রকম লতাপাতা ও ভেষজ ঔষুধের নামে মেশানো হচ্ছে যৌন উত্তেজক ট্যাবলেট। শহরসহ জেলা জুড়ে নানা স্থানে এই লতাপাতা ঔষুধি কেন্দ্রের অপতৎপরতা প্রতিনিয়ত বেড়েই চলছে। তাছাড়া  জেলার বিভিন্ন স্থানে এধরণের হীন ব্যবসার আড়ালে চলছে রমরমা বাণিজ্য। উল্লেখ্য, এসব কতিপয় প্রতিষ্ঠান গুলো বিভিন্ন পত্রিকায় নানা লোভনীয় বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রতিবছর লাখ লাখ টাকার বিজ্ঞাপন প্রচার-প্রসারের প্রতিদ্বন্দিতায় নেমে পড়ছে। অপর দিকে, জেলার বিভিন্ন উপজেলায় বাজারবার কিংবা হাটবাজারে যত্রতত্র স্থানে মাইকে কিংবা নানা অঙ্গ-ভঙ্গি দেখিয়ে ক্যাম্পাসের মাধ্যমে গ্রামাঞ্চলের সহজ-সরল লোকজনদেরকে বিপদ মুখী করে তোলছে বলে সচেতন মহল সহ শিক্ষার্থী ও অভিভাবক মহলের অভিযোগ।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।