১৭ এপ্রিল, ২০২৪ | ৪ বৈশাখ, ১৪৩১ | ৭ শাওয়াল, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  ‘বনকর্মীদের শোকের মাঝেও স্বস্তি, হত্যার ‘পরিকল্পনাকারি কামালসহ গ্রেপ্তার আরও ২   ●  উখিয়া নাগরিক পরিষদ এর ঈদ পুনর্মিলনী ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত   ●  আদালতে ফরেস্টার সাজ্জাদ হত্যার দায়স্বীকার সেই ডাম্পার চালক বাপ্পির   ●  ‘অভিযানে ক্ষুব্ধ, ফরেস্টার সাজ্জাদকে পূর্বপরিকল্পনায় হত্যা করা হয়’   ●  ফাঁসিয়াখালীতে পৃথক অভিযানে জবর দখল উচ্ছেদ, বালিবাহী ডাম্পার জব্দ   ●  অসহায়দের পাশে ‘রাবেয়া আলী ফাউন্ডেশন’   ●  ফরেস্টার সাজ্জাদ হত্যার মূল ঘাতক সেই বাপ্পী পুলিশের জালে   ●  ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশন অব কক্সবাজার,ক্র্যাকের সভাপতি জসিম, সম্পাদক নিহাদ   ●  নতুন জামাতে রঙিন ১০০ শিশুর মুখ   ●  মহেশখালী উপজেলা আ’লীগ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার পাশা চৌধুরীর মৃত্যুতে জেলা আ’লীগের শোক

জাতিসংঘের ব্রিফিংয়ে ‘সালাহ উদ্দিন’

জাতিসংঘের ব্রিফিংয়ে 'সালাহ উদ্দিন'
জাতিসংঘের নিয়মিত সংবাদ-সম্মেলনে আবারো উঠে এলো বাংলাদেশ প্রসঙ্গ। জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্র ফারহান হকের কাছে গতকাল  প্রশ্ন রাখেন বাংলাদেশী সাংবাদিক মুশফিকুল ফজল আনসারী। সম্প্রতি বিএনপি’র মুখপাত্র ও যুগ্ম-মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদের নিখোঁজের বিষয়ে জাতিসংঘের অবস্থান সম্পর্কে জানতে চান তিনি। অবশ্য, জাতিসংঘের কাছে নতুন কোন তথ্য নেই বলে জানিয়েছেন মুখপাত্র। তবে সব রাজনৈতিক দলের সংলাপে অংশ নেয়ার প্রয়োজনীয়তার বিষয়টি উল্লেখ করেন মুখপাত্র। বাংলাদেশ সরকারের প্রতি মতপ্রকাশ ও সভা-সমাবেশের অধিকার ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিশ্চিতের আহ্বান পুনর্ব্যক্ত করেন ফারহান হক। জাতিসংঘের ব্রিফিংয়ে বাংলাদেশ অংশটুকু এখানে তুলে ধরা হলো:

প্রশ্ন: আপনাকে ধন্যবাদ, ফারহান। অতি সম্প্রতি বাংলাদেশের সাবেক এক প্রতিমন্ত্রী  এবং বিরোধী দলের (বিএনপি) মুখপাত্রকে (সালাহ উদ্দিন আহমেদ) অপহরণ করেছেন আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যরা। তার পরিবার দাবি করছে, আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা অপহরণ করেছে তাকে। কিন্তু, সরকার তা অস্বীকার করছে। আজ ৮ দিন পার হচ্ছে। কিন্তু, কেউ জানেন না তিনি কোথায় আছেন। সব জায়গায় এটা চলছে। এ ব্যাপারে আপনার পর্যবেক্ষণ কি? জাতিসংঘ এ বিষয়ে কোন কিছু করছে কি?

মুখপাত্র: সম্প্রতি বিষয়টি নিয়ে কয়েকবার আলোচনা করেছি আমরা। বাংলাদেশ ইস্যুতে জাতিসংঘের উদ্বেগ ও সংগঠনটির প্রচেষ্টার ব্যাপারে স্টিফেন (স্টিফেন ডুজাররিক) ও আমি কি বলেছি, তা আপনি জানেন। আজ তার সঙ্গে যোগ করার মতো আর নতুন কোন তথ্য নেই আমার কাছে। তবে আমরা যে বিষয়ে আলোচনা করছি, তার সঙ্গে আপনার উল্লেখিত উদ্বেগের বিষয়টি সঙ্গতিপূর্ণ। সব পক্ষের সংলাপে অংশ নেয়ার প্রয়োজনীয়তা এবং কর্তৃপক্ষের প্রতি মতপ্রকাশের স্বাধীনতা, স্বাধীনভাবে সভা-সমাবেশ করার অধিকার এবং গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিশ্চিতের সুযোগ করে দেয়ার বিষয়ে আমরা কথা বলেছি। এ পয়েন্টগুলোতে কর্তৃপক্ষের ওপর চাপ অব্যাহত রেখেছি আমরা। অবশ্যই এ বিষয়গুলো লঙ্ঘনের ব্যাপারে আমরা দৃষ্টি রাখবো।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।