১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ | ১৮ মাঘ, ১৪২৯ | ৯ রজব, ১৪৪৪


শিরোনাম
  ●  পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানে নিষিদ্ধ পলিথিন, হাইড্রোলিক হর্ণ জব্দ, জরিমানা   ●  বঙ্গবন্ধু ছিলেন বিশ্ব শ্রেষ্ঠ জাতীয়তাবাদের নেতা   ●  হাতের কব্জির রগ কেটে মোবাইল-ল্যাপটপ ছিনতাই   ●  কক্সবাজারে ইয়াবার মামলায় ৮ রোহিঙ্গার যাবজ্জীবন   ●  লোহাগাড়ায় পুলিশ কর্মকর্তার পরিবারকে ‘পেট্রোলের আগুনে’ পুড়িয়ে মারার চেষ্টা!   ●  চকরিয়ার সাহারবিলে সড়ক উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করলেন এমপি জাফর আলম   ●  রাইজিংবিডির বর্ষাসেরা প্রতিবেদক তারেককে আরইউসির শুভেচ্ছা   ●  স্ট্রীটফুড ও ড্রাই ফিস প্রশিক্ষাণার্থীদের মধ্যে সার্টিফিকেট বিতরণ ও সাপোর্ট প্রদান   ●  রামুতে দুই শতাধিক মানুষ বিনামূল্যে পেল স্বাস্থ্যসেবা ও ওষুধ   ●  সেন্টমার্টিনে রিসোর্ট নির্মাণ কাজ বন্ধের নির্দেশ দিলেন পরিবেশ অধিদপ্তর

ছেলেদের সম্পর্কে যে ৯ টি বিষয় মেয়েদের বুঝে নেয়া উচিত

 ছেলে এবং মেয়েদের মধ্যে সৃষ্টিগত ভাবেই কিছু পার্থক্য রয়েছে। শারীরিক এবং মানসিক এই দুটি দিক দিয়েই এই পার্থক্য প্রত্যেক নারী পুরুষের মধ্যে রয়েছে। চাইলেই একজন আরেকজনের মতো চিন্তা করতে পারেন না। পারেন না নিজের চিরায়ত স্বভাব পরিবর্তন করতে। মেয়েদের যেমন নিজস্ব কিছু স্বভাব রয়েছে তেমনই রয়েছে ছেলেদের তা পরিবর্তন করতে পারেন না কেউই। যদি পরিবর্তনের চেষ্টা করা হয় তখনই সম্পর্কে থাকলে তাতে চলে আসে টানাপোড়ন। কোনো কোনো ক্ষেত্রে তো ভেঙেই যায় সম্পর্ক। তাই কিছু ব্যাপারে ঝগড়া না করে মেনে নেয়াই উচিত। কারণ শতবার ঝগড়া করেও আপনি কোনো পরিবর্তন আনতে পারবেন না।১) তিনি তার মতোই থাকবেন, সে কখনোই পরিবর্তন হবেন না। আপনি যতোই চেষ্টা করুন না কেন এবং তার ভালোর জন্য হলেও যদি তিনি সেটা না বোঝেন তাহলে তিনি আর পথেই চলবেন। সুতরাং এই জিনিসটি মেনে নেয়া ছাড়া কিছু করার নেই।

২) নিজের স্ত্রী বা প্রেমিকা সাথে থাকলেও আড়চোখে অন্য মেয়েদের দিকে ছেলেরা তাকাবেনই। এটি তাদের স্বভাবগত আচরণ। এই জিনিসটি আপনি নিয়ে তার সাথে ঝগড়া করেও কোনো লাভ হবে না। হয়তো আপনার সামনে তিনি একটু ঠিক থাকবেন কিন্তু ভেতরে সে আগের মতোই।

৩) প্রায় বেশীরভাগ ছেলের কাছে স্ত্রী না প্রেমিকা তার বন্ধু বান্ধবের পড়ে আসেন। তিনি আপনাকে যতো বেশিই ভালোবাসুন না কেন তিনি আপনার সাথে করা প্ল্যান ঠিকই বাদ দিতে পারবেন বন্ধুবান্ধবের সাথে ঘোরার জন্য। এটিও ছেলেদের একটি স্বাভাবিক স্বভাব যার পরিবর্তন নেই।

৪) ছেলেরা একই কথা বারবার শুনতে পছন্দ করেন না মোটেই। যদিও একবার-দুবার বললে সে কথা কানেও তুলবেন না, আবার একই কথা বারবার শুনতেও চাইবেন না। তাই কথা না বলে মেনে নেয়াই উচিত, তার কাছ থেকে কিছু আশা না করাই ভালো।

৫) ছেলেরা আপনার সকল ছেলেবন্ধুকে একনজরে দেখতে পারবেন না কখনোই। আপনার যতো ছেলেবন্ধু থাকবে তিনি ততোই আপনাকে তাদের কাছ থেকে দূরে সরিয়ে নেয়ার চেষ্টা করবেন। কিন্তু তাই বলে সব মেনে নেয়াটাও উচিত নয়। আপনি তাকে তার মতো থাকতে দিন, আপনি আপনার মতোই থাকুন।

৬) আপনি হুমকি দিয়ে ছেলেদের কিছু করাতে পারবেন না। ছেলেদের মতে মেয়েদের অনেক নরম স্বভাবের হতে হয়। আর সেটাই তারা পছন্দ করেন। আপনি নাকি কণ্ঠে ন্যাকামি করে তাকে কাজ করিয়ে নিতে পারবেন কিন্তু হুমকি দিয়ে নয়।

৭) নিজেরা না করলেও ছেলেরা সবসময়েই চান আর স্ত্রী বা প্রেমিকা সেটাই পছন্দ করুক যেটা তিনি চান। তিনি নিজের অধিকার খাটাতে বেশি পছন্দ করেন, যা আপনি বলেও পরিবর্তন করাতে পারবেন না।

৮) আপনার ঘুরিয়ে পেঁচিয়ে কথা বলা ছেলেরা একেবারেই পছন্দ করেন না। আপনি তাকে হাজার হাজার হিন্টস দিলেও সে ধরতে পারবেন না আপনি কি চান। আপনাকে মুখে বলে বোঝাতে হবে।

৯) আপনি যদি কিছু চান তাহলে সেটা খুব গুরুত্বপূর্ণ নয়, সেটি পরেও করা যাবে। কিন্তু যদি তিনি সেটি চান তাহলে তা তাৎক্ষণিক হতে হবে। এই বিষয়ে আসলে অভিমান করে কোনো লাভ নেই। ছেলেরা এমনই।

(প্রিয়.কম) 

priyo.life's picture

priyo.life

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।