১৪ এপ্রিল, ২০২৪ | ১ বৈশাখ, ১৪৩০ | ৪ শাওয়াল, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  আদালতে ফরেস্টার সাজ্জাদ হত্যার দায়স্বীকার সেই ডাম্পার চালক বাপ্পির   ●  ‘অভিযানে ক্ষুব্ধ, ফরেস্টার সাজ্জাদকে পূর্বপরিকল্পনায় হত্যা করা হয়’   ●  ফাঁসিয়াখালীতে পৃথক অভিযানে জবর দখল উচ্ছেদ, বালিবাহী ডাম্পার জব্দ   ●  অসহায়দের পাশে ‘রাবেয়া আলী ফাউন্ডেশন’   ●  ফরেস্টার সাজ্জাদ হত্যার মূল ঘাতক সেই বাপ্পী পুলিশের জালে   ●  ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশন অব কক্সবাজার,ক্র্যাকের সভাপতি জসিম, সম্পাদক নিহাদ   ●  নতুন জামাতে রঙিন ১০০ শিশুর মুখ   ●  মহেশখালী উপজেলা আ’লীগ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার পাশা চৌধুরীর মৃত্যুতে জেলা আ’লীগের শোক   ●  পাহাড়ে শান্তি ফেরাতে যৌথ অভিযান   ●  নিরাপদ পেকুয়া গড়তে দলমত নির্বিশেষে সকলকে এক হতে হবে, ড. সজীব

চকরিয়া থানার ওসি’র রোষানলে পড়ে এবার সাংবাদিক শাহজাহান মিথ্যা মামলার শিকার

10254006_702053876500241_5666232524633437552_n

ঢাকার দৈনিক সংবাদ প্রতিদিন এর কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি ও স্থানীয় দৈনিক আমাদের কক্সবাজারের নিউজ এডিটর শাহজাহান চৌধুরী শাহীনকে একটি মিথ্যা, কাল্পনিক ও সাজানো মামলা দিয়ে ফাঁসানোর অভিযোগ উঠেছে চকরিয়া থানার ওসি প্রভাষ চন্দ্রের বিরুদ্ধে। দৈনিক সংবাদ প্রতিদিনে মানব ও ইয়াবা পাচার নিয়ে ওসি’র বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় তাকে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে হয়রানীর হুমকি দিয়ে আসছিল ওসি। ‘দৈনিক সংবাদ প্রতিদিনের প্রতিনিধিকে হুমকি,চকরিয়াথানার ওসি আইজিপির নির্দেশ মানছেন না’ শিরোনামে গত ২৩ মে দৈনিক সংবাদ প্রতিদিনে সংবাদ প্রকাশ হলে ওসি প্রভাষ চন্দ্র আরো ক্ষিপ্ত হয়ে যান। সর্বশেষ ওসি নিজেই অতিউৎসাহি হয়ে সাংবাদিক শাহজাহান চৌধুরী শাহীন এর প্রতিপক্ষ লোকজনকে প্রভাবিত করে সম্পূর্ণ উদ্দেশ্য মুলক ও হয়রানীর করার জন্য গত ২৮ জুন সকাল ৯টায় এক নারীকে শালিনতাহানি চেষ্টার অভিযোগ তুলে থানায় একটি মিথ্যা মামলা নং-৫৭, জিআর-২৯০/১৫, তাং–৩০/০৬/২০১৫ইং রেকর্ড করেন।
এদিকে, গত বছরের ২১ ডিসেম্বর বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে চকরিয়া ফুলছড়ি এলাকায় মনজুর বাহিনীর হামলার শিকার হন সাংবাদিক শাহজাহানের দুই বোনসহ একই পরিবারের ৪ জন। শাহজাহান চৌধুরী বাদী হয়ে গত ২২ ডিসেম্বর চকরিয়া থানায় আট জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন ( মামলা নং ৫৩, জিআর ৬৪৯,তাং-২২/১২/২০১৪। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা (আইও) এসআই শাহাদত হোসেন ২ লাখ টাকার বিনিময়ে স্পর্শকাতর এই মামলা হতে ৩২৬ ধারা বাদ দিয়ে অভিযুক্ত মুল আসামী মনজুর আলম ও নুরুল আজিম চার্জসীট হতে বাদ দিয়ে ৬ জন আসামীর বিরুদ্ধে চকরিয়া থানার অভিযোগপত্র নং-১০৮ চকরিয়া ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে দাখিল করেন। এব্যাপারে চার্জসীটের বিরুদ্ধে আদালতে নারাজির দরখাস্তও দেয়া হয়। এনিয়েও বিভিন্ন পত্রিকায় ওসির বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশিত হয়। এই মামলার চার্জসীটভুক্ত আসামী গোলজার বেগম এর মেয়েকে বাদি বানিয়ে ওসি নিজেই অতিউৎসাহি হয়ে সাংবাদিক শাহজাহানকে একমাত্র আসামী করে মামলাটি রেকর্ড করেন।
সাংবাদিক শাহজাহান পেশাগত কাজে দীর্ঘদিন ধরে কক্সবাজার শহরে অবস্থান করেন। এঘটনায় পুরো জেলার সাংবাদিক মহলে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
শাহজাহান চৌধুরী শাহীন সাংবাদিকতার পাশাপাশি জাতীয় যুবজোট কক্সবাজার জেলা শাখার সহ-সভাপতি, কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্য, আন্তজাতিক মানবাধিকার সংগঠন আইন সহায়তা কেন্দ্র (আসক ফাইন্ডেশন) কক্সবাজার জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদকসহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সাথে জড়িত রয়েছেন।
তার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও ঘটনার সুষ্টু তদন্ত করে ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবী জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) কক্সবাজার জেলা সভাপতি নাঈমুল হক চৌধুরী টুটুল, সাধারণ সম্পাদক এড.আবুল কালাম আজাদ, সহ-সভাপতি শ্রী অলক ভট্টাচার্য,যুগ্ম সম্পাদক আজিজুল হক আজিজ, সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ হোসেন মাসু, জাতীয় ডুব জোট কক্সবাজার জেলা শাখার সভাপতি রমজান আলী সিকদার, সহ-সভাপতি এড. খোরশেদ আলম অদুদ, সাধারণ সম্পাদক অজিত কুমার হিমু, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু তৈয়ব প্রমূখ।
সাংবাদিক শাহজাহান চৌধুরী শাহীনের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা অবিলম্বে প্রত্যাহার করা না হলে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারী দেয়া হয়।

এদিকে সাংবাদিক শাহজাহান চৌধুরী শাহীনের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা অবিলম্বে প্রত্যাহার করার দাবি জানিয়েছেন  অনলাইন নিউজ পোর্টাল কক্সবাজার সময় ডটকম পরিবার।

অভিলম্বে  দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।

 

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।