৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ | ২০ মাঘ, ১৪২৯ | ১১ রজব, ১৪৪৪


শিরোনাম
  ●  প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমানোন্নয়নে কক্সবাজার পৌর এলাকায় চলছে দরিদ্রবান্ধব নগর পরিকল্পনা ও উন্নয়ন কাজ   ●  পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানে নিষিদ্ধ পলিথিন, হাইড্রোলিক হর্ণ জব্দ, জরিমানা   ●  বঙ্গবন্ধু ছিলেন বিশ্ব শ্রেষ্ঠ জাতীয়তাবাদের নেতা   ●  হাতের কব্জির রগ কেটে মোবাইল-ল্যাপটপ ছিনতাই   ●  কক্সবাজারে ইয়াবার মামলায় ৮ রোহিঙ্গার যাবজ্জীবন   ●  লোহাগাড়ায় পুলিশ কর্মকর্তার পরিবারকে ‘পেট্রোলের আগুনে’ পুড়িয়ে মারার চেষ্টা!   ●  চকরিয়ার সাহারবিলে সড়ক উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করলেন এমপি জাফর আলম   ●  রাইজিংবিডির বর্ষাসেরা প্রতিবেদক তারেককে আরইউসির শুভেচ্ছা   ●  স্ট্রীটফুড ও ড্রাই ফিস প্রশিক্ষাণার্থীদের মধ্যে সার্টিফিকেট বিতরণ ও সাপোর্ট প্রদান   ●  রামুতে দুই শতাধিক মানুষ বিনামূল্যে পেল স্বাস্থ্যসেবা ও ওষুধ

চকরিয়ায় নাশকতা রোধে দায়িত্ব পালনরত আনসার সদস্যরা বেতন পাচ্ছেন না দেড়মাস ধরে

s1
চকরিয়ায় মহাসড়কে নাশকতা রোধে দিবা-রাত্রি দায়িত্ব পালন করছেন মাস্টাররোলে নিয়োগপ্রাপ্ত ১৪০ আনসার সদস্য। অভিযোগ উঠেছে, জীবন বাজি রেখে এসব আনসার সদস্য দায়িত্ব পালন করলেও গত দেড়মাস ধরে তাঁরা বেতন পাচ্ছে না। এ অবস্থার কারনে এসব আনসার সদস্য বেতন না পাওয়ায় পরিবার সদস্যদের নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছে। তাঁরা অবিলম্বে তাদের বেতন নিশ্চিতের দাবি জানিয়েছেন সরকারের কাছে।
জানা গেছে, গত ৫ জানুয়ারীর পর থেকে সারাদেশে বিএনপি-জামায়াত জোট আন্দোলনের নামে ব্যাপক অরাজকতা সৃষ্টি করে। সারাদেশের মতো এর প্রভাব পড়ে কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলা জুড়ে। এ অবস্থার প্রেক্ষিতে প্রশাসন মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে নাশকতা প্রতিরোধে সর্তক অবস্থানের জন্য মাস্টাররোলে ১৪০জন আনসার সদস্যকে নিয়োগ দেন।
সুত্র জানায়, গত ৫ ফেব্রুয়ারী থেকে উপজেলার বিভিন্ন পয়েন্টে বর্তমানে কর্মরত রয়েছে মাস্টাররোলে নিয়োগপ্রাপ্ত আনসার সদস্যরা। একাধিক আনসার সদস্য জানিয়েছেন, তাঁরা প্রশাসনের নির্দেশে উপজেলা আনসার ভিডিপি বিভাগের অধীনে গত দেড়মাস ধরে মহাসড়কে নাশকতা প্রতিরোধে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। কিন্তু দীর্ঘ দেড়মাস সময় অতিবাহিত হলেও এখনো তাঁরা বেতন পাননি। এ অবস্থার ফলে তাদের অভাব-অনটনের পরিবারে চরম দুর্দিন চলছে।
জানতে চাইলে চকরিয়া উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা ছরওয়ার আলম বলেন, মাস্টাররোলে নিয়োগপ্রাপ্ত এসব আনসার সদস্য বেশির ভাগ দরিদ্র শ্রৈনীর। দেড়মাস ধরে তাঁরা বেতন পাচ্ছে না একথা সত্য। তবে শুনেছি ঢাকা থেকে তাদের বেতন ছাড় হয়েছে। আশা করি চলতি সপ্তাহের মধ্যে তাঁরা বেতন পেয়ে যাবে।

ফাইল ছবি

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।