৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ | ২০ মাঘ, ১৪২৯ | ১১ রজব, ১৪৪৪


শিরোনাম
  ●  প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমানোন্নয়নে কক্সবাজার পৌর এলাকায় চলছে দরিদ্রবান্ধব নগর পরিকল্পনা ও উন্নয়ন কাজ   ●  পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানে নিষিদ্ধ পলিথিন, হাইড্রোলিক হর্ণ জব্দ, জরিমানা   ●  বঙ্গবন্ধু ছিলেন বিশ্ব শ্রেষ্ঠ জাতীয়তাবাদের নেতা   ●  হাতের কব্জির রগ কেটে মোবাইল-ল্যাপটপ ছিনতাই   ●  কক্সবাজারে ইয়াবার মামলায় ৮ রোহিঙ্গার যাবজ্জীবন   ●  লোহাগাড়ায় পুলিশ কর্মকর্তার পরিবারকে ‘পেট্রোলের আগুনে’ পুড়িয়ে মারার চেষ্টা!   ●  চকরিয়ার সাহারবিলে সড়ক উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করলেন এমপি জাফর আলম   ●  রাইজিংবিডির বর্ষাসেরা প্রতিবেদক তারেককে আরইউসির শুভেচ্ছা   ●  স্ট্রীটফুড ও ড্রাই ফিস প্রশিক্ষাণার্থীদের মধ্যে সার্টিফিকেট বিতরণ ও সাপোর্ট প্রদান   ●  রামুতে দুই শতাধিক মানুষ বিনামূল্যে পেল স্বাস্থ্যসেবা ও ওষুধ

কেনিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলায় ৭০ জন নিহত

হামলায় আহত এক শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করে নিয়ে যাচ্ছেন নিরাপত্তাকর্মীরা। ছবি: এএফপি।কেনিয়ার একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে আল শাবাব জঙ্গিগোষ্ঠীর হামলায় কমপক্ষে ৭০ জন শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার বার্তা সংস্থা এএফপির এক খবরে এ তথ্য জানা গেছে। দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, ১৯৯৮ সালে দেশটিতে আমেরিকান দূতাবাসে হামলার পর এটি সবচেয়ে ভয়াবহ হামলা।
আজ ভোর হওয়ার আগে মুখোধারী বন্দুকধারীরা বিশ্ববিদ্যালয়টিতে এ হামলা চালায়। ঘুমন্ত শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার আগে গ্রেনেড ছুড়ে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের ফটক উড়িয়ে দেয় তাঁরা। বিশ্ববিদ্যালয়টি উত্তর-পূর্বাঞ্চলের গারিশা শহরে অবস্থিত।
কেনিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ইতিমধ্যে জঙ্গিদের দখলে থাকা একটি ভবনে অভিযান চালিয়েছে দেশটির সেনাবাহিনী। এতে চার জঙ্গি নিহত হয়েছে। জঙ্গিরা ১২ ঘণ্টা ধরে ভবনটি দখল করে রেখেছিল। তবে সেখানে মোট কতজন জঙ্গি ছিল, তা তিনি নিশ্চিত করতে পারেননি।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘দুর্ভাগ্যবশত আমরা বেশ কিছু মানুষকে হারিয়েছি। আমরা পুরোপুরি নিশ্চিত নই, তবে এ ঘটনায় ৭০ জনের কাছাকাছি মারা গেছে। ৭৯ জন আহত হয়েছে, তাঁদের মধ্যে নয়জনের অবস্থা গুরুতর।’

আল শাবাব ইতিমধ্যে এ ঘটনার দায় স্বীকার করেছে। এর আগে ২০১৩ সালে সেপ্টেম্বরে জঙ্গিগোষ্ঠীটি নাইরোবির একটি মার্কেটে হামলা চালিয়ে ৬৭ জনকে হত্যা করে। ২০১১ সালে কেনিয়ার সেনাবাহিনী দক্ষিণ সোমালিয়ায় আল শাবাব জঙ্গিগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করে। এর পর থেকে প্রায়ই কেনিয়ায় পুলিশ ও সাধারণ মানুষের ওপর হামলা করে আসছে গোষ্ঠীটি।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।