৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২২ | ১৫ আশ্বিন, ১৪২৯ | ৩ রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪


শিরোনাম
  ●  কক্সবাজারে ১৮ পূজা মণ্ডপ ঝুঁকিপূর্ণ   ●  পর্যটন নগরী কক্সবাজারকে প্রকৃতিবান্ধব পর্যটনে রূপ দিতে হবে- এমপি জাফর   ●  সংগঠনকে সুসংহত করতে ইখলাসপূর্ণ তৎপরতা চালিয়ে যেতে হবে   ●  পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. নজিবুল ইসলামের উদ্যোগে বর্ণিল ‘শারদ সন্ধ্যা’র আয়োজন   ●  মেয়র এলায়েন্স ফর হেলদী সিটি’র নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানকে পৌরসভা সার্ভিস এসোসিয়েশনের সংবর্ধনা   ●  জেলা পরিষদ নির্বাচনে শেখ হাসিনা মনোনীত প্রার্থীকে বিজয়ী করতে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করবে আওয়ামীলীগ   ●  দেড় শতাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান উচ্ছেদ, ক্ষতির দাবি ৫ কোটি টাকার   ●  রুমখাঁ মাদ্রাসার অভিভাবক সদস্য পদে সকলের দোয়া চেয়েছেন ছলিম উল্লাহ বাহাদুর   ●  সাবেক এমপি এড. খালেকুজ্জামান ছিলেন দল মত নির্বিশেষে সকলের কাছে জনপ্রিয় নেতা   ●  বাংলাদেশের মানুষ বঙ্গবন্ধুর প্রতিচ্ছবি দেখতে পায় শেখ হাসিনার মধ্যে- এমপি জাফর

কুতুবদিয়ায় মাদক মামলার পলাতক আসামী আবদুল মান্নান গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক:
কক্সবাজারের কুতুবদিয়া থানার বিশেষ অভিযানে মাদক মামলার দীর্ঘদিনের  পলাতক আসামী আবদুল মান্নানকে গ্রেফতার করেছে। গতকাল  রোববার বিকেল ৪ টায়  আলী আকবর ডেইলের শান্তিবাজার এলাকা থেকে তাকে  গ্রেফতার করা হয়। সে  কুতুবদিয়ার আলী আকবর ডেইল ইউনিয়নে ৩নং ওয়ার্ড়ের(আবদুল হাদী সিকদার পাড়া)’র মৃত রশিদ আহমদের ছেলে৷
কুতুবদিয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ওমর হায়দার জানান, দীর্ঘদিন ধরে  এক মাদক মামলার ওয়ারেন্ট ভুক্ত পলাতক আসামী কুতুবদিয়ায় তার নিজ এলাকায় আত্মগোপন করে আছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযান চালায়। তার আস্তানা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।
প্রসঙ্গত ঃ ৩৮৫০ পিচ ইয়াবা নিয়ে ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর ফেনী থেকে র‍্যাব-৭ এর হাতে আটক হন মান্নান৷ ধারা-১৯৯০ সালের মাদক আইনের ১৯(১), এর ৯(খ), অনুযায়ী ফেনী সদর থানায় তার বিরুদ্ধে নিয়মিত মাদক মামলা রুজু হয়েছিল যার মামলা নং-(৪৩/৭৭৮)৷ এই মামলার পলাতক আসামী হিসেবে আবদুল মান্নান গ্রেফতার হন৷
স্থানীয় সুত্রে মতে, আবদুল মান্নান দীর্ঘদিন  এলাকায় অবস্থান করে বিভিন্ন ধরণের অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে আছেন৷ কিছুদিন পূর্বে তিনি ভিটেবাড়ি দখলের উদ্দেশ্যে নিজের থাকার পলিথিনের ঘরে নিজে আগুন লাগিয়ে তার আপন চাচাত ভাইদের আসামী করে আদালতে মিথ্যা মামলা দায়ের করেছেন বলে কয়েকজন ভুক্তভোগী জানিয়েছেন

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।