১৭ এপ্রিল, ২০২৪ | ৪ বৈশাখ, ১৪৩১ | ৭ শাওয়াল, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  ‘বনকর্মীদের শোকের মাঝেও স্বস্তি, হত্যার ‘পরিকল্পনাকারি কামালসহ গ্রেপ্তার আরও ২   ●  উখিয়া নাগরিক পরিষদ এর ঈদ পুনর্মিলনী ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত   ●  আদালতে ফরেস্টার সাজ্জাদ হত্যার দায়স্বীকার সেই ডাম্পার চালক বাপ্পির   ●  ‘অভিযানে ক্ষুব্ধ, ফরেস্টার সাজ্জাদকে পূর্বপরিকল্পনায় হত্যা করা হয়’   ●  ফাঁসিয়াখালীতে পৃথক অভিযানে জবর দখল উচ্ছেদ, বালিবাহী ডাম্পার জব্দ   ●  অসহায়দের পাশে ‘রাবেয়া আলী ফাউন্ডেশন’   ●  ফরেস্টার সাজ্জাদ হত্যার মূল ঘাতক সেই বাপ্পী পুলিশের জালে   ●  ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশন অব কক্সবাজার,ক্র্যাকের সভাপতি জসিম, সম্পাদক নিহাদ   ●  নতুন জামাতে রঙিন ১০০ শিশুর মুখ   ●  মহেশখালী উপজেলা আ’লীগ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার পাশা চৌধুরীর মৃত্যুতে জেলা আ’লীগের শোক

কুতুবদিয়ায় বসত ভিটা দখলকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের সংর্ঘষে গুরুত্বর আহত ৬

shomoy
কুতুবদিয়া উপজেলায় গতকাল (শুক্রবার) ১৩ মার্চ বসত ভিটা দখলকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের সংর্ঘষে গুরুত্বর আহত হয়েছে মহিলাসহ ৬ জন। ঘটনাটি ঘঠেছে উপজেলার লেমশীখালী ইউনিয়নের মাঝের পাড়া গ্রামে। প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে প্রকাশ,গতকাল ১৩ মার্চ সকাল সাড়ে ৮টায় লেমশীখালী ইউনিয়নের মাঝের পাড়া একার আব্দুর গণির পুত্র কলিম উল্লাহর বসত ভিটা দখল করার জন্য একই এলাকার মৃত আব্দুস ছমতের পুত্র জালাল আহম্মদের নেতৃত্বে ২৫/৩০ জন সন্ত্রাসী লোহার রট,দা,কিরিচ, লাটি সোটা নিয়ে হামলা চালায়। এ সময় কলিম উল্লাহর পরিবারের লোকজন বাঁধা দিলে উভয় পক্ষের মধ্যে সংর্ঘষ বেঁেধ যায়। উভয় পক্ষের সংর্ঘষে গুরুত¦র আহত হয় আবদুল গণির পুত্র হাবিবুল্লাহ(৪০),তার ছোট ভাই ছলিম উল্লাহ(৩৫),হাবিবুল্লাহর স্ত্রী তসলিমা বেগম (৩০), কলিম উল্লাহর স্ত্রী মিনুন নাহার, অপর পক্ষের কবির আহম্মদের পুত্র গিয়াস উদ্দিন(২৬),আব্দু শুক্কুরের পুত্র আব্দুল গফুর(৪০)। আহতদের এলাকাবাসী উদ্ধার করে কুতুবদিয়া সরকারী হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক হাবিবুল্লাহ ও ছলিম উল্লাহর অবস্থা আশংকাজনক দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফার করেন। এ ব্যাপারে কলিম উল্লাহ এ প্রতিবেদকে জানায়, তার স্ত্রীর বিয়ের সময় স্বার্ণালংকারের পরিবর্তে ১১ শতক জমি দেয় তার শাশুর। শাশুরের দেওয়া তার স্ত্রীর পৈত্রিক সম্পতিতে গত ৫ বছর পূর্বে বসতঘর নির্মান করে বসবাস করে আসছে। গতকাল একই এলাকার আব্দু ছমতের পুত্র জলাল আহম্মদ ভাড়াটে সন্ত্রাসী নিয়ে বসতঘর ভাংচুর করে বসত ভিটা দখল করার জন্য হামলা চালায়। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানায় ভিকটিম কলিম উল্লাহ।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।