৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ | ২০ মাঘ, ১৪২৯ | ১১ রজব, ১৪৪৪


শিরোনাম
  ●  প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমানোন্নয়নে কক্সবাজার পৌর এলাকায় চলছে দরিদ্রবান্ধব নগর পরিকল্পনা ও উন্নয়ন কাজ   ●  পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানে নিষিদ্ধ পলিথিন, হাইড্রোলিক হর্ণ জব্দ, জরিমানা   ●  বঙ্গবন্ধু ছিলেন বিশ্ব শ্রেষ্ঠ জাতীয়তাবাদের নেতা   ●  হাতের কব্জির রগ কেটে মোবাইল-ল্যাপটপ ছিনতাই   ●  কক্সবাজারে ইয়াবার মামলায় ৮ রোহিঙ্গার যাবজ্জীবন   ●  লোহাগাড়ায় পুলিশ কর্মকর্তার পরিবারকে ‘পেট্রোলের আগুনে’ পুড়িয়ে মারার চেষ্টা!   ●  চকরিয়ার সাহারবিলে সড়ক উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করলেন এমপি জাফর আলম   ●  রাইজিংবিডির বর্ষাসেরা প্রতিবেদক তারেককে আরইউসির শুভেচ্ছা   ●  স্ট্রীটফুড ও ড্রাই ফিস প্রশিক্ষাণার্থীদের মধ্যে সার্টিফিকেট বিতরণ ও সাপোর্ট প্রদান   ●  রামুতে দুই শতাধিক মানুষ বিনামূল্যে পেল স্বাস্থ্যসেবা ও ওষুধ

কন্ট্রাকে বনভুমিতে নির্মানাধীন বসতঘর উচ্ছেধ

index
কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের ফাঁসিয়াখালী রেঞ্জের অধীন নলবিলা বনবিট এলাকার চকরিয়ার ইসলামনগর ইমাম বোখারী মাদরাসার পূর্বপাশ্বে স্থানীয় বনবিভাগের হেডম্যানের আত্মীয় স্বজন কর্তৃক ১০লাখ টাকার কন্ট্রাকে ১০শতক জমির উপর নির্মানাধীন বসতঘর দখল ভেঙ্গে গুড়িয়ে দিয়ে দখল উচ্ছেধ করেছে বনবিভাগ। গতকাল ২এপ্রিল বিকাল ৪টা থেকে সন্ধা ৬টা পযর্ন্ত সময়ে চালানো হয় এ অভিযান।
স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, বিটের অধীন লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের ২নম্বর ওয়ার্ড জহিরপাড়া এলাকার মরহুম আলী আহমদ হেডম্যানের পুত্র ইব্রাহিম খলিলের নেতৃত্বে এলাকার কতিপয় প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় ইসলামনগর ও আশপাশ এলাকায় একের পর  এক বনভুমি জবর দখল করে যাচ্ছে। সর্বশেষ নগদ ৬লাখ টাকা ও কাজ সম্পন্নের পর ৫লাখ টাকা কন্ট্রাকে ইসলামনগর ইমাম বোখারী মাদরাসার পূর্বপাশ্বে মহাসড়ক লাগোয়া ও ৩দিকে পাহাড় বৈশিষ্ট মাঝখানের সমতল ভুমিতে বসতবাড়ি নির্মাণ কাজ শুরু করেন। এনিয়ে স্থানীয় বনবিট কর্মকর্তাকে ম্যানেজ করার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয় দখলবাজরা। ফলে তাদের অন্যায়কাজে সাড়া নাদেয়ায় পরিচালনা করা হয় উচ্ছেধ অভিযান। অভিযানে নেতৃত্ব দেন কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের ফাঁসিয়াখালীর রেঞ্জার এবিএম জসিম উদ্দিন ও নলবিলা বনবিট কর্মকর্তা মো: আতা ইলাহী। এসময় উপস্থিত ছিলেন নলবিলা বনবিটের অধীন সামাজিক বনায়ন উপকারভোগী কমিটির সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা নুরুল আবছার সহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। এসময় ১০শতক পরিমাণে পাকা পিলার দিয়ে তৈরী করা ঘরে চালা ও খুটি ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়া উচ্ছেধ করে দেয়া হয়েছে। বিট কর্মকর্তা জানান, অবৈধভাবে ইতিপূর্বে দখলে নেয়া বনভুমি উচ্ছেধে বনবিভাগের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

ফাইল ছবি

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।