১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ | ১৮ মাঘ, ১৪২৯ | ৯ রজব, ১৪৪৪


শিরোনাম
  ●  পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানে নিষিদ্ধ পলিথিন, হাইড্রোলিক হর্ণ জব্দ, জরিমানা   ●  বঙ্গবন্ধু ছিলেন বিশ্ব শ্রেষ্ঠ জাতীয়তাবাদের নেতা   ●  হাতের কব্জির রগ কেটে মোবাইল-ল্যাপটপ ছিনতাই   ●  কক্সবাজারে ইয়াবার মামলায় ৮ রোহিঙ্গার যাবজ্জীবন   ●  লোহাগাড়ায় পুলিশ কর্মকর্তার পরিবারকে ‘পেট্রোলের আগুনে’ পুড়িয়ে মারার চেষ্টা!   ●  চকরিয়ার সাহারবিলে সড়ক উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করলেন এমপি জাফর আলম   ●  রাইজিংবিডির বর্ষাসেরা প্রতিবেদক তারেককে আরইউসির শুভেচ্ছা   ●  স্ট্রীটফুড ও ড্রাই ফিস প্রশিক্ষাণার্থীদের মধ্যে সার্টিফিকেট বিতরণ ও সাপোর্ট প্রদান   ●  রামুতে দুই শতাধিক মানুষ বিনামূল্যে পেল স্বাস্থ্যসেবা ও ওষুধ   ●  সেন্টমার্টিনে রিসোর্ট নির্মাণ কাজ বন্ধের নির্দেশ দিলেন পরিবেশ অধিদপ্তর

কক্সবাজার ফিশারীঘাটে মৎস্য ব্যবসায়ীকে মারধর করে ৮০ হাজার টাকা ছিনতাই

Cox's Bazar Fisari Gat Pic-14-03-2015-2
প্রকাশ্য দিবালোকে এক মৎস্য ব্যবসায়ীকে এলোপাতাড়ি মারধর ও অস্ত্রেরমুখে জিম্মি করে ৮০ হাজার টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। ১৪ মার্চ শানবার বেলা ১২টার দিকে কক্সবাজার ফিশারীঘাটস্থ মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটেছে। আহত ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করে প্রথমে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতাল ভর্তি ও পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় ব্যবসায়ীদের মাঝে আতংক, ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় ব্যবসায়ীদের সুত্রে জানা গেছে, শনিবার ১৪ মার্চ বেলা ১২টার দিকে কক্সবাজার ফিশারীঘাটস্থ মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রে নিত্য দিনের মতো মাছ ক্রয়ের জন্য যান ব্যবসায়ী রমজান আলী (৩৪)। সাগর থেকে লুন্ঠিত মাছ বিক্রির নিয়ে কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে ওসমান গণি টুলুর নেতৃত্বে আরও দুই ব্যক্তি প্রকাশ্যে তাকে এলোপাতাড়ি মারধর করে মাথা ফেটে দেন ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারাত্মক ফুলাজখম করে অস্ত্রের মুখে নগদ ৮০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। উপস্থিত ব্যবসায়ীরা গুরুতর আহত রমজান আলীকে উদ্ধার করে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলে হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। আহত রমজান আলী শহরের বাহারছড়া এলাকার মৃত আলী হোছনের ছেলে ও কক্সবাজার মৎস্য অবতরণ কেন্দ্র মৎস্য ব্যবসায়ী ্ঐক্য সমবায় সমতিরি সাবেক সাধারণ সম্পাদক এবং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা।
আহত ব্যবসায়ী রমজান আলী জানান, শহরের নতুন বাহারছড়া এলাকার মৃত আবদুল মালেকের ছেলে ওসমান গলি টুলু, মিয়ানমার বংশোদ্ভোত বর্তমানে শহরের নতুন বাহারছড়ায় বসবাসকারী ম।নি উদ্দিনের ছেলে মোঃ রফিক (ছোট) ও রাম দক্ষিণ মিঠাছড়ি চেইন্দা এলাকার মৃত মোঃ শফির ছেলে মোঃ রফিক  (বড়) এঘটনাটি প্রকাশ্যে সংগঠিত করেছে। যা মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রের ব্যবসায়ীরা প্রত্যক্ষ করেছে। তাক্ষনিক ঘটনাটি কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসিকে অবহিত করা হয়েছে বলেও জানা তিনি।
ফিশারীঘাট মৎস্য ব্যবসায়ীদের একাধিক সুত্র জানায়, ওসমান গণি টুলুর নেতৃত্বে একটি চক্র দীর্ঘদিন ধরে জলদস্যুদের কাছ থেকে মাছ ক্রয় করে ফিশারীঘাটে বেচা বিক্রি করে আসছিল। গত দেড় সপ্তাহ পূর্বেও এ ধরনের জলদুুস্যুর চক্রের মাছ বিক্রির ঘটনা নিয়ে স্থানীয় ব্যবসায়ী মনিরসহ অন্যান্যদের সাথে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছিল।
প্রকাশ্যে মারধর করে মৎস্য ব্যবসায়ীকে আহত করার ঘটনার খবর পেয়ে কক্সবাজার মৎস্য অবতরণ কেন্দ্র মৎস্য ব্যবসায়ী ্ঐক্য সমবায় সমতিরি প্রতিষ্টাতা সভাপতি জয়নাল আবেদীন, ব্যবসায়ী জানে আলম পুতুসহ বিভিন্ন স্তুরের লোকজন তাকে দেখতে হাসপাতালে ছুঁটে যান। প্রকাশ্যে হামলা চালিয়ে টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় ব্যবসায়ীরা ক্ষোভ প্রকাশ ও জড়িতদের গ্রেফতারের দাবী জানান। এব্যাপারে থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানা গেছে।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।