১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ | ১৮ মাঘ, ১৪২৯ | ৯ রজব, ১৪৪৪


শিরোনাম
  ●  পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানে নিষিদ্ধ পলিথিন, হাইড্রোলিক হর্ণ জব্দ, জরিমানা   ●  বঙ্গবন্ধু ছিলেন বিশ্ব শ্রেষ্ঠ জাতীয়তাবাদের নেতা   ●  হাতের কব্জির রগ কেটে মোবাইল-ল্যাপটপ ছিনতাই   ●  কক্সবাজারে ইয়াবার মামলায় ৮ রোহিঙ্গার যাবজ্জীবন   ●  লোহাগাড়ায় পুলিশ কর্মকর্তার পরিবারকে ‘পেট্রোলের আগুনে’ পুড়িয়ে মারার চেষ্টা!   ●  চকরিয়ার সাহারবিলে সড়ক উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করলেন এমপি জাফর আলম   ●  রাইজিংবিডির বর্ষাসেরা প্রতিবেদক তারেককে আরইউসির শুভেচ্ছা   ●  স্ট্রীটফুড ও ড্রাই ফিস প্রশিক্ষাণার্থীদের মধ্যে সার্টিফিকেট বিতরণ ও সাপোর্ট প্রদান   ●  রামুতে দুই শতাধিক মানুষ বিনামূল্যে পেল স্বাস্থ্যসেবা ও ওষুধ   ●  সেন্টমার্টিনে রিসোর্ট নির্মাণ কাজ বন্ধের নির্দেশ দিলেন পরিবেশ অধিদপ্তর

কক্সবাজার আইন কলেজের দূর্নীতির তদন্ত ধামাচাপা দিতে মরিয়া

ain colleg pic
কক্সবাজার আইন কলেজের অনিয়ম দূর্নীতির তদন্ত ধামাপাচা দিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ও অবসরপ্রাপ্ত অফিস সহকারী।
গতকয়েকদিনে দৈনিক সাগরদেশসহ স্থানীয় কয়েকটি পত্রিকায় আইন কলেজের অনিয়ম নিয়ে কয়েক পর্ব সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর কলেজের অর্ধশতাধিক ছাত্র-ছাত্রী জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে। এর প্রেক্ষিতে গভর্নিং বড়ির সভাপতি জেলা প্রশাসক এডিসি এস এম হাবিবুর রহমানকে তদন্তের জন্য দায়িত্ব দিয়েছে।
সূত্র জানিয়েছে, গত কয়েকদিন ধরে এক প্রভাবশালী গভর্নিং বড়ির সদস্যকে নিয়ে জেলা প্রশাসকের সাথে দফায় দফায় বৈঠক করেছে। বর্তমানে কথিপয় ওই গভর্নিং সদস্যকে সঙ্গে নিয়ে ২০১৩-২০১৪ অর্থ বছরের অর্ধকোটি টাকার ব্যয় নিরক্ষন প্রতিবেদন অনুমোদন নিতে তোড়জোড় শুরু করেছেন কক্সবাজার আইন কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ এডভোকেট মো. বাহার উদ্দিন ও নুরু হুদা।
ইতিমধ্যেই তিনি এসব ব্যয়ের নিরীক্ষা প্রতিবেদন করিয়ে নিয়েছেন। এটি গভর্নিং বডির বৈঠকে অনুমোদন করিয়ে নিতে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন বলে জানা গেছে।
এদিকে, গত ৪ মার্চ দৈনিক সাগরদেশ পত্রিকায় সচিত্র সংবাদ প্রকাশ হওয়ার পর আইন কলেজের অফিস সহকারী নুরু হুদার কক্ষটি পরিস্কার করে অন্যরকম সাজিয়ে রাখা হয়েছে। তবে ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ এখনো থামেনি অবসরপ্রাপ্ত অফিস সহকারী নুরুল হুদার এমনটা অভিযোগ একাধিক ছাত্র-ছাত্রীদের।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।