২০ এপ্রিল, ২০২৪ | ৭ বৈশাখ, ১৪৩১ | ১০ শাওয়াল, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  কক্সবাজার পৌরসভায় প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা তারিকুলের বরণ ও উপ-সহকারি প্রকৌশলী মনতোষের বিদায় অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত   ●  জলকেলি উৎসবের বিভিন্ন প্যান্ডেল পরিদর্শনে মেয়র মাহাবুব   ●  উখিয়া সার্কেল অফিস পরিদর্শন করলেন ডিআইজি নুরেআলম মিনা   ●  ‘বনকর্মীদের শোকের মাঝেও স্বস্তি, হত্যার ‘পরিকল্পনাকারি কামালসহ গ্রেপ্তার আরও ২   ●  উখিয়া নাগরিক পরিষদ এর ঈদ পুনর্মিলনী ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত   ●  আদালতে ফরেস্টার সাজ্জাদ হত্যার দায়স্বীকার সেই ডাম্পার চালক বাপ্পির   ●  ‘অভিযানে ক্ষুব্ধ, ফরেস্টার সাজ্জাদকে পূর্বপরিকল্পনায় হত্যা করা হয়’   ●  ফাঁসিয়াখালীতে পৃথক অভিযানে জবর দখল উচ্ছেদ, বালিবাহী ডাম্পার জব্দ   ●  অসহায়দের পাশে ‘রাবেয়া আলী ফাউন্ডেশন’   ●  ফরেস্টার সাজ্জাদ হত্যার মূল ঘাতক সেই বাপ্পী পুলিশের জালে

এক কুকুরের কামড়ে ৫০ জন আহত

কক্সবাজার সময় ডেস্কঃ বরিশালের উজিরপুর উপজেলার বামরাইল ইউনিয়নে এক কুকুরের কামড়ে অন্তত ৫০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে অনেকেই উজিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

শুক্রবার থেকে ওই কুকুরের কামড়ের শিকার হন উপজেলার বামরাইল ইউনিয়নের হস্তিশুন্ড, কাজিরা, সানুহার, ধামসর, আটিপাড়া গ্রামের মানুষ।

তবে কুকুরটিকে মেরে ফেলার কারণে এলাকায় এখন স্বস্তি ফিরে এসেছে বলে জানিয়েছেন বামরাইল ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের (ইউপি) সদস্য মো. সহিদুল ইসলাম জাকারিয়া।

তিনি বলেন, গত শুক্রবার ও শনিবার হস্তিশুন্ড গ্রামের জলিল ডাকুয়া (৬৫), আলেয়া বেগম (৪৫), কামাল ফকির (২৫), ওহাব বেপারী (৭০), জালাল সরদার (৪৫), সামছুল হুদার স্ত্রী, আলামিন ডাক্তারের স্ত্রী, আটিপাড়া গ্রামের গনি সরদারসহ (৬০) কাজিরা, সানুহার, ধামসর, বিভিন্ন গ্রাম ঘুরে ঘুরে অন্তত ৫০ জন ব্যক্তিকে কামড়ে আহত করেছেন। পরে বাধ্য হয়ে এলাকাবাসী কুকুরটিকে শনিবার দুপুরে হস্তিশুন্ড গ্রামে মেরে ফেলে। মেরে ফেলার আগ মুহূর্ত পর্যন্ত গ্রামগুলোতে মানুষের মাঝে কুকুর আতঙ্ক সৃষ্টি হয়। আর কামড়ে আহতদের উজিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

উজিরপুর থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) গোলাম সরোয়ার জানান, কুকুরের কামড়ে অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তবে কুকুরটিকে মেরে ফেলায় এখন আর আতঙ্কের কোনো কারণ নেই।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।