৩০ জানুয়ারি, ২০২৩ | ১৬ মাঘ, ১৪২৯ | ৭ রজব, ১৪৪৪


শিরোনাম
  ●  হাতের কব্জির রগ কেটে মোবাইল-ল্যাপটপ ছিনতাই   ●  কক্সবাজারে ইয়াবার মামলায় ৮ রোহিঙ্গার যাবজ্জীবন   ●  লোহাগাড়ায় পুলিশ কর্মকর্তার পরিবারকে ‘পেট্রোলের আগুনে’ পুড়িয়ে মারার চেষ্টা!   ●  চকরিয়ার সাহারবিলে সড়ক উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করলেন এমপি জাফর আলম   ●  রাইজিংবিডির বর্ষাসেরা প্রতিবেদক তারেককে আরইউসির শুভেচ্ছা   ●  স্ট্রীটফুড ও ড্রাই ফিস প্রশিক্ষাণার্থীদের মধ্যে সার্টিফিকেট বিতরণ ও সাপোর্ট প্রদান   ●  রামুতে দুই শতাধিক মানুষ বিনামূল্যে পেল স্বাস্থ্যসেবা ও ওষুধ   ●  সেন্টমার্টিনে রিসোর্ট নির্মাণ কাজ বন্ধের নির্দেশ দিলেন পরিবেশ অধিদপ্তর   ●  তত্ত্বাবধায়কের কাছে ভুক্তভোগীর আবেদন চিকিৎসার জন্য টাকা দাবি করলো নার্স, হুমকির অভিযোগ   ●  ডিজিটাল আইল্যান্ডকে স্মার্ট আইল্যান্ডে পরিণত করার পেছনের গল্প রচনা করবে ছাত্রলীগ

উখিয়ায় স্বাস্থ্যকর্মীকে গণধর্ষণের পর হত্যা : এলাকায় তোলপাড়

UKHIYA PIC 01.04.2015.psd
কক্সবাজারের উখিয়ায় বখাটে যুবকরা ফুসলিয়ে কক্সাবাজার নিয়ে গিয়ে এক কিশোরীকে গণধর্ষণ করে খুন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গণধর্ষণ ও হত্যার শিকার হওয়া কিশোরী রাবেয়া বসরী (১৬) উখিয়ার রতœাপালং ইউনিয়নের রুহুলার ঢেবা গ্রামের জয়নাল মিস্ত্রির মেয়ে। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে কক্সবাজার শহরের একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে নেওয়ার পথে কিশোরীর মৃত্যু ঘটে।
এলাকাবাসী ও রতœাপালং ইউনিয়নের ওয়ার্ড সদস্য আকতার কামাল চৌধুরী জানান, রাবেয়া বসরীর সাথে একই এলাকার সৌদি প্রবাসি মাহবুবুল আলমের পুত্র, আব্দুল¬াহ প্রকাশ টিটু (২২) এর সাথে দীর্ঘদিন ধরে ওই মাঠ কর্মীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এক পর্যায়ে গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ৩ টার দিকে রাবেয়া বসরী সূর্যের হাসি ক্লিনিক থেকে দায়িত্ব শেষে বের হওয়ার সময় টিটু ও তার ঘনিষ্ঠ বন্ধু একই ইউনিয়নের জাফর পল¬ান পাড়া গ্রামের আলী আকবরের পুত্র জসিম উদ্দিনকে সাথে নিয়ে কোটবাজার থেকে রতœাপালং ইউনিয়নের তেলী পাড়া গ্রামের জাফর আলমে পুত্র সিএনজি চালক সাহাব উদ্দিন সিএনজি গাড়ি নিয়ে সূর্যের হাসি ক্লিনিকের সামনে থেকে মাঠ কর্মী রাবেয়া বসরীকে জোর পূর্বক সিএনজি গাড়িতে তুলে নিয়ে কক্সবাজার শহরে নিয়ে যায়।
কক্সবাজার শহরের কলাতলী এলাকায় একটি কটেজে রুম নেওয়ার পরে সিএনজি চালক সাহাব উদ্দিন ভাড়া না দেওয়ার কারণে ঐ সিএনজি চালক হোটেলের নিচে দীর্ঘ কয়েক ঘন্টা যাবৎ অপেক্ষা করেন তার সিএনজি ভাড়ার জন্য। দীর্ঘক্ষণ পরে টিটু ও জসিম ওই কিশোরীকে মূমুর্ষ অবস্থায় অপেক্ষামান সিএনজি গাড়িতে তুলে কক্সবাজারের ফুয়াদ আল খতিব হাসপাতালে নিয়ে যায় রাত ১০ টার দিকে। পরে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক কিশোরীকে দেখে তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানায়। এসময় ধর্ষণকারীরা কিশোরীকে হাসপাতালের সামনে রাস্তায় মৃত অবস্থায় ফেলে পালিয়ে যায় বলে সিএনজি অটোরিক্সা চালক স্থানীয় ইউপি সদস্যকে জানিয়েছেন বলে রতœাপালং ইউপি সদস্য আক্তার কামাল চৌধুরী জানান।
এই ব্যাপারে নিহত রাবেয়া বসরীর পিতা জয়নাল মিস্ত্রি বলেন, আমার মেয়েকে বাসায় ফেরার পথে সূর্যের হাসি ক্লিনিকের সামনে থেকে স্থানীয় টিটু ও তার সহযোগি জসিম জোর পূর্বক অপহরণ করে হোটেলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণ করে হত্যা করেছে। কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে লাশ ময়না তদন্ত শেষে গতকাল বুধবার বিকাল সাড়ে ৩ টার দিকে স্থানীয় গ্রামের কবর স্থানে কিশোরী রাবেয়ার মৃত দেহ দাফন করা হয়েছে। উখিয়া থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ হাবিবুর রহমান বলেন, এই হত্যা ও ধর্ষণ সম্পর্কে জানতে পেরেিেছ ইতি মধ্যে ধর্ষক ও হত্যাকারীদের আটকের ব্যাপারে পুলিশ তৎপরতা চালাচ্ছে। তবে এখনও পর্যন্ত এধরনের কোন লিখিত অভিযোগ আসেনি।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।