২০ এপ্রিল, ২০২৪ | ৭ বৈশাখ, ১৪৩১ | ১০ শাওয়াল, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  কক্সবাজার পৌরসভায় প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা তারিকুলের বরণ ও উপ-সহকারি প্রকৌশলী মনতোষের বিদায় অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত   ●  জলকেলি উৎসবের বিভিন্ন প্যান্ডেল পরিদর্শনে মেয়র মাহাবুব   ●  উখিয়া সার্কেল অফিস পরিদর্শন করলেন ডিআইজি নুরেআলম মিনা   ●  ‘বনকর্মীদের শোকের মাঝেও স্বস্তি, হত্যার ‘পরিকল্পনাকারি কামালসহ গ্রেপ্তার আরও ২   ●  উখিয়া নাগরিক পরিষদ এর ঈদ পুনর্মিলনী ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত   ●  আদালতে ফরেস্টার সাজ্জাদ হত্যার দায়স্বীকার সেই ডাম্পার চালক বাপ্পির   ●  ‘অভিযানে ক্ষুব্ধ, ফরেস্টার সাজ্জাদকে পূর্বপরিকল্পনায় হত্যা করা হয়’   ●  ফাঁসিয়াখালীতে পৃথক অভিযানে জবর দখল উচ্ছেদ, বালিবাহী ডাম্পার জব্দ   ●  অসহায়দের পাশে ‘রাবেয়া আলী ফাউন্ডেশন’   ●  ফরেস্টার সাজ্জাদ হত্যার মূল ঘাতক সেই বাপ্পী পুলিশের জালে

উখিয়ায় বন বিভাগের পৃথক অভিযানে ১৪ অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

উখিয়া প্রতিনিধি:
কক্সবাজারের উখিয়া রেঞ্জ ও ইনানী রেঞ্জ পৃথক পৃথক অভিযান চালিয়ে ১৪টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে  বন বিভাগ।
জানা গেছে, মঙ্গলবার (২ আগস্ট) দিনব্যাপী উখিয়া রাজাপালং নিউ ফরেস্ট অফিস সংলগ্ন এলাকায় উখিয়া রেঞ্জ কর্মকর্তা গাজী শফিউল আলম এর নেতৃত্বে বন বিভাগের জায়গায় গড়ে উঠা ৩ টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়।
অভিযানে উপস্থিত ছিলেন, বিট কর্মকর্তা রাকিব হাসান রাজু, বজলুর রশিদ, দুলাল চন্দ্র, সাজ্জাদ।
অপরদিকে একইদিন বিকেলে ইনানী রেঞ্জের জালিয়াপালং বন বিটের আওতাধীন জুম্মাপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১১টি অবৈধ স্থাপনা (ঘর) উচ্ছেদ করা হয়।
জালিয়াপালং বনবিট কর্মকর্তা মো:  ইসরাঈল হোসাইন এর নেতৃত্বে এই অভিযান পরিচালনা করা হয়।
তিনি বলেন, অভিযানে ২০১০-২০১১ সনের ৩০ হেক্টর, ২০১৪-২০১৫ সনে সৃজিত সামাজিক বনায়ন থেকে ৮ হেক্টর বনভূমি দখল মুক্ত করা হয়। জবরদখলকারীদের বিরুদ্ধে মামলা প্রক্রিয়াধীন।
তিনি আরো বলেন, এ ধরণের অভিযান আগামীতেও অব্যাহত থাকবে। জবরদখলকারী কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। দখলমুক্ত জায়গায় চলতি বর্ষা মৌসুমে চারা রোপন করা হবে।

ওই সময় সাথে ছিলেন, রাজাপালং বনবিট কর্মকর্তা ক্যাচিং মারমা, ইশতিয়াক হোসেন এফজি, আব্দু রশিদ বিএম, ভিলেজার, উপকারভোগী সদস্য এবং সিপিজি সদস্য ও ইনানী পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।