৩০ মার্চ, ২০২৩ | ১৬ চৈত্র, ১৪২৯ | ৭ রমজান, ১৪৪৪


শিরোনাম
  ●  মহেশখালীতে উচ্ছেদ অভিযানে অবৈধ পাকা স্থাপনা ধ্বংস করলো বনবিভাগ; ৫০ একর বনভূমি দখলমুক্ত   ●  সাগরে ১০টি বস্তায় মিলল ৭ লাখ ইয়াবা   ●  উখিয়ায় কলেজ ছাত্রকে নির্যাতনের ঘটনায় গ্রেপ্তার ৪   ●  মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে শহীদদের প্রতি কক্সবাজার জেলা কারাগারের বিনম্র শ্রদ্ধা   ●  উখিয়ায় মাটি ভর্তি ডাম্পার আটক   ●  কক্সবাজারে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত   ●  স্বাধীনতা দিবসে মরিচ্যা উচ্চ বিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি উন্মোচন   ●  পানেরছড়ায় পাহাড় ও গাছ কাটার হিড়িক, নিরব বন বিভাগ   ●  চকরিয়ায় গণহত্যা দিবসের আলোচনা সভায় এমপি জাফর আলম   ●  চকরিয়া পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ড আ.লীগের ইফতার মাহফিল-আলোচনা সভায় এমপি জাফর

ঈদগাঁও বাজার দখল দূষণ অবৈধ স্থাপনায় ঐতিহ্য হারাতে বসেছে


কক্সবাজার সদর উপজেলার বৃহত্তর বাণিজ্যিক কেন্দ্র ঈদগাঁও বাজার তার ঐতিহ্য হারাতে বসেছে। অবৈধ স্থাপনা, অব্যবস্থাপনা, দখল- দূষণ, ড্রেনেজ ব্যবস্থার কারনে আগের সেই জৌলুস নেই ঈদগাঁও বাজারে। দীর্ঘদিন ধরে বাজার কমিটি না থাকায় উন্নয়নের ছোঁয়া লাগছে না প্রায় শত বছরের পুরনো এ বাজারে।
জানা গেছে, সদরের ঈদগাঁওর মানুষ ছাড়াও পাশের ঈদগড়, বাইশারী, চৌফলদন্ডী, ভারুয়াখালী, পোকখালী, ইসলামপুর, জালালাবাদ, ইসলামাবাদ, খুটাখালীসহ বিভিন্ন এলাকার মানুষ এ বাজারে বাজার করতে আসেন। সপ্তাহের শনি- মঙ্গলবার এখানে বাজার বসে।
বাজারের ব্যবসায়ীরা জানান, এ বাজারের কয়েক হাজার ছোট বড় ব্যবসায়ী রয়েছেন। প্রতি বছর কোটি টাকায় বাজার ইজারা দেয়া হলেও নুন্যতম উন্নয়ন হয়নি বলে অভিযোগ করেন একাধিক ব্যবসায়ীরা। যেখানে সেখানে ময়লা আবর্জনার স্তুপ, নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে যত্রতত্র বাজার বসা, ময়লা ফেলে পরিবেশ দূষণ, ড্রেন- ময়লা আবর্জনায় ভরাট হওয়ায় পানি নিস্কাষনের সুবিধা না থাকায় সামান্য বৃষ্টিতেই রাস্তায় পানি জমে চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়ে। এছাড়া ডিসি সড়কের সওজের জায়গা দখল করে অবৈধ দোকান নির্মানের কারনে প্রতিদিন ঐ সড়কে যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। যার কারনে পথচারী, স্কুল-কলেজগামী ছাত্র-ছাত্রীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। দীর্ঘদিন ধরে বাজারের কোন কমিটি না থাকায় প্রায় সময় চুরিসহ একাধিক দূর্ঘটনা ঘটছে। গত কয়েক মাসে অনেক মার্কেটে ৩০ টির অধিক চুরির ঘটনা ঘটেছে। ব্যবসায়ীরা জানান, বাজারের টিএনটি টাওয়ারের এলাকায় জলাশয় ভরাট করে মাছ, মাংশ বাজার, তরকারীর কয়েকটি দোকান সেখানে নেয়া হলে বাজারের যানজট সৃষ্টি হবে না।
সরেজমিন বাজার ঘুরে দেখা যায়, ডিসি সড়কে যত্রতত্র দোকান, সড়ক দখল করে গাড়ি পার্কিং, ট্রাক থেকে মালামাল উঠা নামা, সড়কের পাশে ত্রিপল দিয়ে ভাসমান দোকান নির্মানের কারনে যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। এছাড়াও ব্যক্তি মালিকানাধীন দোকানের বাইরে ফুটপাতে গড়ে উটেছে অসংখ্য দোকান। এদিকে অবৈধ দখল উচ্ছেদের ব্যাপারে সরকারী নির্দেশনা থাকলেও অজ্ঞাত কারনে তা বন্ধ রয়েছে।
বাজারের ব্যবসায়ী আবদু রশিদ, আমিন শরিফ ও নাজির হোছাইন জানান, বাজারের বাঁশ ঘাটায় কয়েকজন প্রভাবশালী সরকারী জায়গা দখল করে ঘর তুলে ভাড়া আদায় করছে। বেশ কয়েকটি স্পটে প্রকাশ্যে জুয়া ও মাদক বিক্রির ও অভিযোগ তুলেন তারা।
সূত্রে জানা গেছে, বিগত ১ দশক পর বাজার কমিটির নির্বাচন হচ্ছে। বাজার ইজারাদাররা জানান, বাজারে চরম অব্যবস্থাপনা, দখল দূষণ ও অবৈধ স্থাপনা নির্মানের চলছে মহোৎসব।
এ বিষয়ে কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম জানান, বাজারের বিভিন্ন সমস্যার কথা আমাকে ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন। খোঁজ খবর নিচ্ছি সমাধানের চেষ্টা করা হবে।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।