৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ | ২০ মাঘ, ১৪২৯ | ১১ রজব, ১৪৪৪


শিরোনাম
  ●  প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমানোন্নয়নে কক্সবাজার পৌর এলাকায় চলছে দরিদ্রবান্ধব নগর পরিকল্পনা ও উন্নয়ন কাজ   ●  পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানে নিষিদ্ধ পলিথিন, হাইড্রোলিক হর্ণ জব্দ, জরিমানা   ●  বঙ্গবন্ধু ছিলেন বিশ্ব শ্রেষ্ঠ জাতীয়তাবাদের নেতা   ●  হাতের কব্জির রগ কেটে মোবাইল-ল্যাপটপ ছিনতাই   ●  কক্সবাজারে ইয়াবার মামলায় ৮ রোহিঙ্গার যাবজ্জীবন   ●  লোহাগাড়ায় পুলিশ কর্মকর্তার পরিবারকে ‘পেট্রোলের আগুনে’ পুড়িয়ে মারার চেষ্টা!   ●  চকরিয়ার সাহারবিলে সড়ক উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করলেন এমপি জাফর আলম   ●  রাইজিংবিডির বর্ষাসেরা প্রতিবেদক তারেককে আরইউসির শুভেচ্ছা   ●  স্ট্রীটফুড ও ড্রাই ফিস প্রশিক্ষাণার্থীদের মধ্যে সার্টিফিকেট বিতরণ ও সাপোর্ট প্রদান   ●  রামুতে দুই শতাধিক মানুষ বিনামূল্যে পেল স্বাস্থ্যসেবা ও ওষুধ

ঈদগাঁওতে অপহৃত যুবক চকরিয়া থেকে উদ্ধার আটক- ১

Copy of atok

ঈদগাঁও পুলিশ চকরিয়ায় অভিযান চালিয়ে অপহৃত যুবক মো: ইয়াছিনকে ১৮ মার্চ বুধবার বিকেলে উদ্ধার করেছে। উদ্ধারকৃত যুবক পুলিশকে দিয়েছে চাঞ্চল্যকর তথ্য। জানা যায়, কক্সবাজার সদর উপজেলার জালালাবাদ ইউনয়নের পালাকাটা গ্রামের ছৈয়দুল হকের পুত্র মো: ইয়াছিন (১৮) গত সোমবার সন্ধ্যায় অপহরনের শিকার হয়। তাকে অপহরনকারীরা পাহাড়ী জঙ্গলে নিয়ে পিতার মোবাইলে ৩০ হাজার টাকা মুক্তি পণ দাবী করে। এদিকে এ ঘটনা ঈদগাঁও পুলিশকে লিখিতভাবে জানার পর পুলিশ উদ্ধার তৎপরতার কৌশল প্রয়োগ করে। এরই ধারাবাহিকতায় ঈদগাঁও পুলিশের আইসি মিনহাজের নের্তৃত্বে ফোর্স সহ চকরিয়া পুলিশকে নিয়ে বুধবার ১৮ মার্চ দুপুরে পৌরসভার নিউমার্কেটের আন্ডার গ্রাউন্ডে একটি কক্ষ ভেঙ্গে অপহৃতকে উদ্ধার করে। এ সময় অপহরনকারী চক্রের নেতা জনির ছবি সহ বিভিন্ন তথ্য পান পুলিশ। এদিকে উক্ত অপহরনে জড়িত সন্দেহে জালালাবাদ ইউনিয়নের মিয়াজী পাড়ার মৃত মোস্তাক আহমদের পুত্র আনোয়ারকে পুলিশ গ্রেফতার করে। উদ্ধারকৃত ইয়াছিন জানান তাকে প্যাকেজে চাকরী দেয়ার কথা বলে ধৃত আনোয়ার চকরিয়া বাস স্ট্যান্ডে নিয়ে আকষ্কিক পালিয়ে যায়। সে তখন পৌরসভার দিকে হাটতে থাকলে একটি মাইক্রোবাস তার সামনে থামার পরপরই তাকে দ্রুত গাড়িতে উঠিয়ে প্রথমে পাহাড়ী জঙ্গলে নিয়ে যায়। সেখান হতে তার পিতার মোবাইলে মুক্তিপনের টাকা দাবী করে। এরপর তাকে কিছুক্ষণ পরপর বিভিন্ন স্থানে নিয়ে রাখে। এরপর চকরিয়া নিউমার্কেটের নীচে একটি কক্ষে রাখলে সে ভেতরে দরজা লক করে ফেলে। এরপর পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করে। তার পিতা ঈদগাঁও বাজারের নৈশ প্রহরী ছৈয়দুল হক জানান সোমবার রাতে একটি অজ্ঞাতনামা মোবাইলে তাকে ফোন করে টাকা দাবী করে অন্যথায় তার ছেলেকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। সাথে সাথে তিনি পুলিশের সাথে যোগাযোগের পাশাপাশি মোবাইলে যোগাযোগ অব্যাহত রাখে। ঈদগাঁও পুলিশের আইসি মিনহাজ মাহমুদ জানান প্রাথমিকভাবে অপহরনের ঘটনা জানার পর বিভিন্ন সোর্স নিয়োগ করি। চকরিয়া থানার সাথে যোগাযোগ করি। সোর্সের তথ্য নিশ্চিত করে অভিযান চালাই। এরপর উদ্ধার করা হয় অপহৃত যুবক ইয়াছিনকে। এ ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে মামলার প্রক্রিয়া চলছে ।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।