২২ মে, ২০২৪ | ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ | ১৩ জিলকদ, ১৪৪৫


শিরোনাম
  ●  নবগঠিত ঈদগাঁও উপজেলার প্রথম নির্বাচনে সহিংসতায় যুবক খুন; বসতবাড়ি ভাংচুরের অভিযোগ    ●  এভারকেয়ার হসপিটালের শিশু হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. তাহেরা নাজরীন এখন কক্সবাজারে   ●  কালেক্টরেট চতুর্থ শ্রেণী কর্মচারী সমিতির সভাপতি আব্দুল হক, সম্পাদক নাজমুল   ●  ক্যাম্পের বাইরে সেমিনারে অংশ নিয়ে আটক ৩২ রোহিঙ্গা   ●  চেয়ারম্যান প্রার্থী সামসুল আলমের অভিযোগ;  ‘আমার কর্মীদের হুমকি-ধমকি দেয়া হচ্ছে’   ●  নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সবকিছু কঠোর থাকবে, অনিয়ম হলেই ৯৯৯ অভিযোগ করা যাবে   ●  উখিয়া -টেকনাফে শাসরুদ্ধকর অভিযানঃ  জি থ্রি রাইফেল, শুটারগান ও গুলিসহ গ্রেপ্তার ৫   ●  রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হেড মাঝিকে  তুলে নিয়ে   গুলি করে হত্যা   ●  যুগান্তর কক্সবাজার প্রতিনিধি জসিমের পিতৃবিয়োগ   ●  জোয়ারিয়ানালায় কিশোর গ্যাংয়ের হামলায় আহত রামু কলেজের অফিস সহায়ক

‘আন্দোলনের নামে মানুষ হত্যা বরদাশত করা হবে না’

 প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আন্দোলনের নামে সাধারণ মানুষকে হত্যা বরদাশত করা হবে না। মানুষের রক্ত নিয়ে যারা খেলছে তাদের শাস্তি হবেই হবে। জঙ্গি সন্ত্রীদের কোন ক্ষমা নেই। বোমা হামলা করে এদেশের মানুষকে দাবিয়ে রাখা যাবে না। বিকালে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উপলক্ষে আয়োজিত জনসভায় দলের কেন্দ্রীয় নেতারা বক্তব্য রাখেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে জঙ্গি নেত্রী আখ্যা দিয়ে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বলেন, উনার অনেক আশা ছিল। ভেবেছিলেন বিদেশ থেকে এসে কেউ ক্ষমতায় বসিয়ে দেবে। কিন্তু বিদেশীরাও বলেছে আগে এই সহিংসতা ও সন্ত্রাসী কর্মকা- বন্ধ করেন।
তিনি দেশবাসীর উদ্দেশে বলেন, সন্ত্রাসী ও জঙ্গিদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান। জঙ্গি নেত্রীর স্থান বাংলার মাটিতে হবে না।
বিরোধী জোটের হরতাল-অবরোধের সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০১৩ সালের নির্বাচন ঠেকাতে বিএনপি জোট মানুষ হত্যা করেছে। পুড়িয়ে মেরেছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জ্বালিয়ে দিয়েছে। এতো কিছুর পরও তারা নির্বাচন ঠেকাতে পারেনি। এবার তারা আবার হরতাল-অবরোধ দিয়েছে। অবরোধ ডেকে খালেদা জিয়া বাড়ি ছেড়ে অফিসে বসে আছেন। তিনি অবরোধ ডাকলেও তা কেউ মানছে না।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।