৩০ জানুয়ারি, ২০২৩ | ১৬ মাঘ, ১৪২৯ | ৭ রজব, ১৪৪৪


শিরোনাম
  ●  হাতের কব্জির রগ কেটে মোবাইল-ল্যাপটপ ছিনতাই   ●  কক্সবাজারে ইয়াবার মামলায় ৮ রোহিঙ্গার যাবজ্জীবন   ●  লোহাগাড়ায় পুলিশ কর্মকর্তার পরিবারকে ‘পেট্রোলের আগুনে’ পুড়িয়ে মারার চেষ্টা!   ●  চকরিয়ার সাহারবিলে সড়ক উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করলেন এমপি জাফর আলম   ●  রাইজিংবিডির বর্ষাসেরা প্রতিবেদক তারেককে আরইউসির শুভেচ্ছা   ●  স্ট্রীটফুড ও ড্রাই ফিস প্রশিক্ষাণার্থীদের মধ্যে সার্টিফিকেট বিতরণ ও সাপোর্ট প্রদান   ●  রামুতে দুই শতাধিক মানুষ বিনামূল্যে পেল স্বাস্থ্যসেবা ও ওষুধ   ●  সেন্টমার্টিনে রিসোর্ট নির্মাণ কাজ বন্ধের নির্দেশ দিলেন পরিবেশ অধিদপ্তর   ●  তত্ত্বাবধায়কের কাছে ভুক্তভোগীর আবেদন চিকিৎসার জন্য টাকা দাবি করলো নার্স, হুমকির অভিযোগ   ●  ডিজিটাল আইল্যান্ডকে স্মার্ট আইল্যান্ডে পরিণত করার পেছনের গল্প রচনা করবে ছাত্রলীগ

‘অশান্তি সৃষ্টি করে ক্ষমতায় যাওয়া সম্ভব নয়’

IFA, Cox pic
আন্দোলনের নামে দেশে অশান্তি সৃষ্টি করে ক্ষমতায় যাওয়া সম্ভব নয় বলে মন্তব্য করেছেন কক্সবাজার-বান্দরবানের সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য খোরশেদ আরা হক।
২২ মার্চ রবিবার সকালে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ৪০ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে কক্সবাজারে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন।
তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু দেশের শান্তিশৃঙ্খলা রক্ষার জন্য তিন বাহিনী গঠন করেছেন। সেই বাহিনী আজ অনেক শক্তিশালী। দেশের শান্তি শৃঙ্খলা অক্ষুন্ন রাখতে সকল বাহিনী এক হয়ে কাজ করছে। বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া বাহিনী সাথে পেরে ওঠার ক্ষমতা কারোর নাই।
তিনি আরো বলেন, বোমাবাজির স্থান ইসলামে নেই। যারা ইসলামের নামে বোমা মারছে; মানুষ খুন করছে, তাদের কঠিন পরিণতি ভোগ করতে হবে। বোমা বাজদের শক্ত হাতে দমন করা হচ্ছে। গুলশান অফিসে বসে খালেদাই এসবের নেতৃত্ব দিচ্ছেন।
এমপি খোরশেদ আরা বলেন, বঙ্গবন্ধু ইসলামের জন্য উদার ছিলেন। তাকে কাছ থেকে আমি দেখেছি। তার উদার মনোভাব থেকে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠা। বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া এই ইসলামিক ফাউন্ডেশ আজ প্রতিটি ঘরে ঘরে ইসলামের মর্মবানী পৌঁছিয়ে দিচ্ছে। ধর্মীয় চেতনা প্রচার, প্রসার ও প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে।
খালেদাকে উদ্দেশ্য করে এমপি খোরশেদ আরা বলেন, আপনি একজন মহিলা হয়ে এসব কাজ কিভাবে করেন? আর অশান্তি সৃষ্টি না করে শান্তির পথে ফিরে আসুন। সম্মানজনক মর্যাদা দেওয়া হবে।
নারীদের মর্যাদাহানিকর বক্তব্য প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমিই বড় মৌলভী। আমার চেয়ে বড় এখানে কেউ নেই। যারা মৌলভী দাবী করে নারীদের সম্পর্কে কটুক্তি করে তাদের ছাড় দেওয়া হবেনা। কঠোরভাবে দমন করা হবে।’ এ জন্য ইসলামিক ফাউন্ডেশনে কর্মরত সকল ইমামদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তিনি।
ইসলামিক ফাউন্ডেশন কক্সবাজারের উপ-পরিচালক ফাহমিদা বেগম’র সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার শ্যামল কুমার নাথ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) শাহ এসএম হাবীবুর রহমান হাকীম ও প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ইমাম সমিতির সভাপতি মাওলানা সিরাজুল ইসলাম ছিদ্দিকী। ইসলামিক ফাউন্ডেশন কক্সবাজারের কর্মকর্তা আব্দুর রহমানের পরিচালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সহকারী পরিচালক সরওয়ার আকবর।
আলোচনা সভার আগে গণশিক্ষার শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের নিয়ে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ৪০ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে এক র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়। র‌্যালীটি আসাদ কমপ্লেক্সস্থ কার্যালয় প্রাঙ্গন থেকে শুরু হয়ে শহরের প্রধান সড়ক ঘুরে ইফা’র সম্মেলন কক্ষে মিলিত হয়। অনুষ্ঠান শেষে বঙ্গবন্ধুর আতœার মাগফিরাত ও দেশের সমৃদ্ধি কামনায় মোনাজাত করা হয়।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।