১৯ অক্টোবর, ২০১৯ | ৪ কার্তিক, ১৪২৬ | ১৯ সফর, ১৪৪১


শিরোনাম
  ●  চট্টগ্রামের হকার্স মার্কেটে ভয়াবহ আগুন, নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ১৫টি ইউনিট   ●  চূড়ান্তভাবে বাংলাদেশে বন্ধ হলো জনপ্রিয় গেইমস পাবজি   ●  টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে দুই রোহিঙ্গা পাচারকারী নিহত, ৫০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার   ●  লোহাগাড়ায় অস্ত্র,রামদা ও ৯রাউন্ড গুলিসহ যুবক গ্রেফতার   ●  টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে দুই মাদক কারবারি নিহত,আহত পুলিশ সুপারসহ ৪   ●  কক্সবাজারের মহেশখালীতে নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ   ●  লোহাগাড়ায় মাদক ও সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামীসহ আটক ৩   ●  উখিয়া ফোর মার্ডার : রিপু ও উজ্জ্বল বড়ুয়ার ১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর   ●  টেকনাফে পচে যাচ্ছে মিয়ানমারের পেঁয়াজ, কৃত্রিম সংকট তৈরির অভিযোগ   ●  উখিয়ায় চলমান উন্নয়ন কার্যক্রম পরিদর্শন করলেন মন্ত্রী পরিষদ সচিব শফিউল আলম

উখিয়ায় ফোর মার্ডার : রিকু-উজ্জল গ্রেফতার

মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী,সিবিএন :উখিয়া উপজেলার রত্নাপালং ইউনিয়নের পূর্ব রত্নাপালং বড়ুয়া পাড়ায় গত ২৫ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাতে ৪ জনকে জবাই করে হত্যার ঘটনায় ২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো-শিপু বড়ুয়ার স্ত্রী রিকু বড়ুয়া (২৮) ও অপরজন হলো রোমেল বড়ুয়ার পুত্র উজ্জ্বল বড়ুয়া (২৪)। বিষয়টি উক্ত চাঞ্চল্যকর মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও উখিয়া থানার ওসি (তদন্ত) মোহাম্মদ নুরুল ইসলাম মজুমদার নিশ্চিত করেছেন।

ওসি (তদন্ত) মোহাম্মদ নুরুল ইসলাম মজুমদার জানান, গ্রেপ্তারকৃত ২ জনই রোকেন বড়ুয়ার নিকটাত্মীয়। তারমধ্যে রিকু বড়ুয়া হচ্ছে-প্রবাসী স্বজনহারা রোকেন বড়ুয়ার সেজ ভাই শিপু বড়ুয়ার স্ত্রী এবং ফোর মার্ডারে নিহত সনী বড়ুয়ার (৬) মা। অপর আসামি হলো রোকেন বড়ুয়ার ভাগ্নি জামাই উজ্জ্বল বড়ুয়া। উজ্জ্বল বড়ুয়ার বাড়ি রামু উপজেলার রাজারকুল ইউনিয়নের রামকোট এলাকায় অবস্থিত। উজ্জ্বল বড়ুয়াকে মঙ্গলবার ৮ অক্টোবর দিবাগত রাত সাড়ে ১০ টার দিকে তার শ্বশুরবাড়ি উখিয়া উপজেলার কুতুপালং থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। একই সময়ে রিকু বড়ুয়াকে তার স্বামীর বাড়ি পূর্ব রত্নাপালং এর বড়ুয়া পাড়া থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। এমনটি জানিয়েছেন ওসি (তদন্ত) ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা (আইও) মোহাম্মদ নুরুল ইসলাম মজুমদার।

বিশ্বস্থ সুত্র মতে, গ্রেপ্তারকৃত দু’জন থেকে বিভিন্ন সময়ে আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর জিজ্ঞাসাবাদ করে চাঞ্চল্যকর ফোর মার্ডার হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার মতো যথেষ্ট উপাদান পেয়েছে। তাই গ্রেপ্তারের আগে গ্রেপ্তারকৃত এ দুই জনকে দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা (আইও) মোহাম্মদ নুরুল ইসলাম মজুমদার আরো জানান, বুধবার ৯ অক্টোবর বিকেলে সন্দেহজনকভাবে গ্রেপ্তারকৃত দু’জনকে কোর্ট ইনস্পেকটরের মাধ্যমে আদালতে চালান দেয়া হয়েছে। একই দিন আদালত ২ জন আসমীকে সি ডাব্লিও মূলে কারাগারে প্রেরণের আদেশ দেন। সন্ধ্যায় তাদেরকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে বলে কোর্ট পুলিশ সুত্র নিশ্চিত করেছেন। তদন্তকারী কর্মকর্তা আরো জানান, চাঞ্চল্যকর ফোর মার্ডার মামলাটির অধিকতর তদন্তের স্বার্থে আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে আরো তথ্য উপাত্ত বের করার জন্য আদালতে প্রত্যেককে ৭ দিন করে রিমান্ড চাওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, উখিয়া উপজেলার রত্নাপালং ইউনিয়নের পূর্ব রত্নাপালং বড়ুয়া পাড়ায় প্রবাসী রোকেন বড়ুয়ার বাড়ীতে গত ২৫ সেপ্টেম্বর বুধবার দিবাগত রাত্রে রোকন বড়ুয়ার মা সুখী বালা বড়ুয়া (৬৫), সহধর্মিণী মিলা বড়ুয়া (২৫), একমাত্র পুত্র রবিন বড়ুয়া (৫) ও ভাইজি সনি বড়ুয়া (৬)কে কে বা কারা জবাই করে হত্যা করে। এরমধ্যে, নিহত রবিন বড়ুয়া রুমখা সয়েরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাক প্রাথমিক শ্রেণির ছাত্র এবং সনি বড়ুয়া একই স্কুলের প্রথম শ্রেণির ছাত্রী ছিলো।

এবিষয়ে ২৬ সেপ্টেম্বর উখিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। মামলা নম্বর ৪৭/২০১৯, যার জিআর মামলা নম্বর : ৪৭৮/২০১৯ (উখিয়া) ধারা : ফৌজদারি দন্ড বিধি : ৩০২ ও ৩৪। মামলায় নিহত মিলা বড়ুয়ার পিতা ও রোকেন বড়ুয়ার শ্বশুর শশাংক বড়ুয়া বাদী হয়েছেন। মামলার এজাহারে সুনির্দিষ্ট কাউকে আসামী করা হয়নি, আসামী অজ্ঞাত হিসাবে এজাহারে উল্লেখ রয়েছে। মামলাটির পরিবর্তিত তদন্তকারী কর্মকর্তা (আইও) হচ্ছেন-উখিয়া থানার ওসি (তদন্ত) নুরুল ইসলাম মজুমদার।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।